kalerkantho

শুক্রবার । ১৯ জুলাই ২০১৯। ৪ শ্রাবণ ১৪২৬। ১৫ জিলকদ ১৪৪০

চুল কালো রাখতে এড়িয়ে চলবেন যে খাবার

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৫ জুন, ২০১৯ ১৭:৪৮ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



চুল কালো রাখতে এড়িয়ে চলবেন যে খাবার

বর্তমানে অল্প বয়সেই অনেকেরই মাথার চুল সাদা হয়ে যায়। অনেক কারণেই মাথার চুল সাদা হতে পারে। হতে পারে জেনেটিকের কারণে বা ভিটামিনের অভাবে। এ ছাড়াও ধূমপানের কারণে চুল সাদা হয়ে যেতে পারে। তাছাড়া এমন কয়েক ধরনের খাবার আছে যা খেলে চুল সাদা হয়ে যেতে পারে। তাই মাথায় সাদা চুলের বহর নিয়ে ঘুরতে না  চাইলে এড়িয়ে চলুন নীচের খাবারগুলো। 


চিনি ও লবণ: 

যে সব খাবারে অতিমাত্রায় চিনি থাকে যেমন সফ্ট ড্রিঙ্কস আর জাঙ্ক ফুড কম বয়সেই চুল সাদা করে দিতে পারে। বেশি চিনি খেলে শরীরে ভিটামিন-ই কমে যায়। আর ভিটামিন-ই সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ ভিটামিন যা হেয়ার গ্রোথ কন্ট্রোল করে। কৃত্রিম মিষ্টির বদলে প্রাকৃতিক চিনি যা বিভিন্ন ফল‚ সবজি এবং মিষ্টি আলুতে পাওয়া যায় তা শরীরের জন্য কিন্তু খুব উপকারী। এদিকে লবণ খুবই গুরুত্বপূর্ণ শরীরের নর্মাল ফ্লুইড ব্যালেন্স বজায় রাখার জন্য। কিন্তু এটা বেশি পরিমাণে খেলে শরীরের ওপর বাজে প্রভাব পড়বে।

মনোসোডিয়াম গ্লুটামেট: 

সাধারণত একে আমরা আজিনা মোতো নামেই চিনি যা প্রসেসড খাবার ব্যবহার করা হয় স্বাদ বৃদ্ধির জন্য। মাঝে মাঝে অল্প পরিমাণে খেলে খুব একটা ক্ষতি হয় না। কিন্তু নিয়মিত যদি খাওয়া হয় তাহলেই এর ক্ষতি কদিনের মধ্যে চোখে পড়বে। অনেক ডাক্তার এবং ডায়েটিশিয়ানরা মানেন শরীরের মেটাবলিজম ঠিক মতো হতে দেয় না এটা। বয়েসের আগেই চুল সাদা হয়ে যায়। তাই প্রসেসড ফুড এড়িয়ে চললে শুধু যে আপনার ওজন কমবে তা নয় একই সঙ্গে চুলও বহুদিন কালো থাকবে।

অ্যানিমাল প্রোটিন: 

অতিমাত্রায় মাংস‚ মাছ বা ডিম খেলেও কিন্তু অকালে আপনার চুল পেকে যেতে পারে। আমাদের ডায়জেস্টিভ সিস্টেম অনেক ধরনের অ্যানিমাল প্রোটিন হজম করতে পারে না‚ ফলে তা ইউরিক অ্যাসিডে পরিণত হয়। শরীরে অতিমাত্রায় ইউরিক অ্যাসিড উৎপাদন হলে চুল পেকে যায়। তাই সঠিক পরিমাণে মাংস বা মাছ খাওয়ার চেষ্টা করুন।

কৃত্রিম রঙ আর চিনি যুক্ত খাবার:

এই ধরনের খাবারগুলো দেখতে এত লোভনীয় হয় যে এইগুলো খেলে আমাদের শরীরে কী ক্ষতি হতে পারে তা ভুলে যাই। শরীরের নানাবিধ ক্ষতি ছাড়াও কম বয়সে চুল সাদা হয়ে যাবে এগুলো খেলে। তাই পরের বার ভেলভেট কেক বা পেস্ট্রি খাওয়ার আগে একবার ভেবে দেখুন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা