kalerkantho

নতুন ধরনের স্তন ক্যান্সার, ধরা পড়ছে দেরিতে

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৩০ এপ্রিল, ২০১৯ ১৯:২৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নতুন ধরনের স্তন ক্যান্সার, ধরা পড়ছে দেরিতে

বাঁ দিকে স্বাভাবিক এবং ডানে বিরল ক্যান্সারে আক্রান্ত স্তন

হঠাৎ করেই স্তনে ছোট আকারের ফোসকা লক্ষ করেন এক নারী। তবে সেটি পুরাতন কাপড় গায়ে দেওয়ার কারণে হয়েছে বলে ধারণা হয় তার। সে অনুসারে নতুন অন্তর্বাস কিনে পরতে থাকেন তিনি।

সেই সঙ্গে স্তনে ফোসকা হওয়ার বিষয়টি মাথা থেকে ঝেড়ে ফেলে স্বাভাবিকভাবে দৈনন্দিন জীবনযাপন করতে থাকেন এলাইনা দেবয়ী। এলাইনা বলেন, ওই সময় বিষয়টি সেভাবে গুরুত্ব সহকারে চিন্তা করিনি।

তবে কিছুদিনের মধ্যেই ফোসকা আরো বড় আকার ধারণ করে। বাধ্য হয়ে তাকে চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হয়। ওই চিকিৎসক তাকে পরামর্শ দেন বিশেষজ্ঞ আরেকজনের সঙ্গে আলাপের ব্যাপারে।  

সেই চর্মরোগ বিশেষজ্ঞের পরামর্শে ডায়াগনিসিস করা হলে জানা যায়, এলাইনার স্তন ক্যান্সার হয়েছে। বিষয়টি জানার পর ভেঙে পড়েছেন তিনি। একর্পযায়ে কেমোথেরাপি নিতে হয়েছে ৫৬ বছর বয়সী এই নারীকে। তবে সবসময় তার দুঃশ্চিন্তা হয়েছে, কেমোথেরাপি নিলেই সুস্থ হতে পারবেন কিনা সে ব্যাপারে।

এলাইনা বিরল এক প্রকারের স্তন ক্যান্সারে আক্রান্ত। এ ধরনের ক্যান্সারে কেবল ত্বকের উপরিভাগে হালকা মাত্রায় লক্ষণ দেখা যায়। যা অনেক সময় রোগী বুঝে উঠতে পারে না।

স্তন ক্যান্সারে আক্রান্তদের মধ্যে এ ধরনের সমস্যায় পড়েন হাতেগোনা কিছু রোগী। আমেরিকার ক্যান্সার সোসাইটি ২০১৯ সালেই দুই লাখ ৬৮ হাজার ছয়শ জনকে চিকিৎসা দিয়েছে। তার মধ্যে প্রায় ১৩ হাজার স্তন ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসা নিয়েছে।

বিরল এ ধরনের ক্যান্সারে স্তনের টিস্যু ক্ষতিগ্রস্ত হয়। সেই সঙ্গে ফোসকা বড় হতে থাকে এবং চারপাশ লাল হয়ে যায়। হালকা ফোসকা থেকে বড় ধরনের ফোসকা কিংবা ঘা হতে কয়েক সপ্তাহ থেকে কয়েক মাসও লেগে যেতে পারে।

তবে ছোট আকারের ফোসকা হিসেবে দেখা দেওয়ায় বেশিরভাগ সময় রোগ চিহ্নিত করতে না পেরে নিজেকে শঙ্কামুক্ত মনে করেন আক্রান্ত নারী। তবে বড় আকার ধারণ করতে করতে সময় অনেকটাই ফুরিয়ে যায়। ফোসকা ছোট আকারে দেখা দেওয়ার পর চিকিৎসকের কাছে গেলে এর প্রতিকার অনেক সহজ হয়।

মন্তব্য