kalerkantho

শনিবার । ১০ ফাল্গুন ১৪২৬ । ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০। ২৮ জমাদিউস সানি ১৪৪১

ব্যাংক লেনদেনে নানা ঝামেলা থেকে বাঁচতে সাত পরামর্শ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৪ ১৭:৪৯ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



ব্যাংক লেনদেনে নানা ঝামেলা থেকে বাঁচতে সাত পরামর্শ

আপনার ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থেকে যদি অগোচরেই অর্থ চলে যায় তাহলে নিশ্চয়ই খুশি হবেন না। ব্যাংকের অ্যাকাউন্ট যারা পরিচালনা করেন তাদের অনেকেই কোনো না কোনো সময়ে তা নিয়ে বিড়ম্বনায় পড়েন। সময়মতো এ বিষয়টি ধরতে পারলে তা অনেকাংশে সমাধান করা যায়। কিন্তু যদি বিষয়টি ধরতে অনেক দেরি হয় তাহলে তা বাড়তি বিড়ম্বনার কারণ হয়ে দাঁড়ায়। অনেক সময় আর কিছুই করার থাকে না। এ ধরনের সমস্যা এড়াতে গিয়ে ব্যাংক অ্যাকাউন্ট ব্যবহার বাদ দেওয়াও বাস্তবে সম্ভব নয়। তাই অ্যাকাউন্টের এসব বিষয় এড়ানোর জন্য সাতটি সতর্কতামূলক বিষয় থাকছে এ লেখায়।
১. অংকটি লিখে ফেলুন
ব্যাংক থেকে অর্থ তুললে, ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করে কোনো কেনাকাটা করলে কিংবা কাউকে চেক লিখে দিলে সঙ্গে সঙ্গে আর্থিক অংকটি লিখে ফেলুন। এ তথ্য সংরক্ষণ করুন আপনার ব্যক্তিগত ডায়েরিতে বা হিসাবের খাতায়। এভাবে প্রত্যেক লেনদেনের পরই টাকার অংকটি লিখে রাখতে ভুলবেন না।
২. স্বয়ংক্রিয় অর্থ প্রত্যাহার খেয়াল রাখুন
আপনি যদি অ্যাকাউন্ট থেকে স্বয়ংক্রিয়ভাবে অর্থ প্রত্যাহারের ব্যবস্থা সেট করে রাখেন তবে তা সম্বন্ধে খুব সাবধান থাকবেন। সবচেয়ে ভালো হয় ক্যালেন্ডারে তারিখগুলো চিহ্নিত করে রাখলে। এতে আপনার অনাকাঙ্ক্ষিত ঝামেলা থেকে বাঁচা সহজ হবে।
৩. অংকগুলো দুইবার করে পরীক্ষা করুন
প্রত্যেক মানুষেরই ভুল হয়। আর তাই যে কোনো আর্থিক লেনদেনের আগে অংকগুলো দুইবার করে পরীক্ষা করে নিন। এতে আপনার ভুলের পরিমাণ অনেক কমবে।
৪. প্রয়োজনে ক্যালকুলেটর ব্যবহার করুন
আপনার আর্থিক বিষয়গুলো নিয়মিত আপডেট থাকতে ক্যালকুলেটর ব্যবহার করুন। ব্যাংকের মতো গুরুত্বপূর্ণ আর্থিক হিসাব মুখে মুখে করলে তা থেকে ভুল হতে পারে।
৫. নিয়মিত পর্যবেক্ষণ করুন
আপনার ব্যাংকের হিসাব নিয়মিত পর্যবেক্ষণ করুন। এতে কোনো বাড়তি বা সন্দেহজনক লেনদেন হলে তা আপনার চোখে পড়বে। ফলে দ্রুত সে বিষয়ে ব্যবস্থা নেওয়া সম্ভব হবে।
৬. অংকগুলো খেয়াল করুন
প্রত্যেকটি আর্থিক লেনদেনের আগে আপনার লেখা অংকটি খেয়াল করুন। ভালো করে দেখুন, ৩৯ টাকার বদলে ৯৩ টাকা লিখে ফেললেন কি না।
৭. নিয়মিত ব্যালেন্স চেক করুন
আপনার অ্যাকাউন্টের ব্যালেন্স নিয়মিত চেক করুন। নিয়মিত ব্যালেন্স চেক করলে অনেক সময় অ্যাকাউন্টের গণ্ডগোল নির্ণয় করা সম্ভব হয়। আর সময়মতো সমস্যা নির্ণয় করা সম্ভব হলে সে বিষয়ে মিটমাট করাও সহজ হয়।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা