kalerkantho

রবিবার । ২৬ মে ২০১৯। ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ২০ রমজান ১৪৪০

অনলাইনে কেনাকাটায় প্রতারণা

১৯ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



প্রযুক্তির উন্নয়নে বিশ্বের উন্নয়ন যখন লাফিয়ে লাফিয়ে ওপরে উঠছে, বাংলাদেশও তখন কম কিসে। প্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে বিশ্বের অনেক দেশ অনলাইনে মার্কেটের কেনাকাটার ব্যবস্থা করেছে। ঘরে বসেই পণ্য কেনাকাটার সুযোগ তৈরি করে মানুষের চাহিদা পূরণে সহজতর করেছে। পাশাপাশি বাংলাদেশেও অনলাইনে কেনাকাটার অসংখ্য মাধ্যম তৈরি হয়েছে। অনলাইনে কেনাকাটার মাধ্যমকে প্রসারের জন্য বিভিন্নরূপে প্রচার-প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছে। তারা অ্যাপস তৈরি করে গণমাধ্যমে প্রচার করে জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছানোর চেষ্টা করছে। অনেক প্রতিষ্ঠান অনলাইনের এ ব্যবসায় প্রতিষ্ঠিতও হয়েছে। কিন্তু অনলাইনের ব্যবসায় অনেকে মানুষকে প্রতারণায় ফেলছে প্রতিনিয়ত। একটি পণ্য গুণগত মান দেখে ক্রয়ের অর্ডার করলে পাঠানোর সময় তা বদলে পচা পণ্য সরবরাহ করে। মোবাইলের অর্ডার করলে পেঁয়াজ পাঠায়, সাবান পাঠায়। ঘড়ির অর্ডার করলে ইটের টুকরো পাঠায়। অসংখ্য প্রতারণার সংবাদ প্রতিনিয়ত পাওয়া যাচ্ছে। প্রযুক্তির কল্যাণেই অনলাইনের এই ব্যবসা। কিন্তু এ ব্যবসায় প্রতারণা প্রবেশ করায় প্রযুক্তিমাধ্যমকে কলঙ্কিত করছে। এতে দেশের সুনামও নষ্ট করছে। যাদের অক্লান্ত পরিশ্রমের টাকায় তারা ব্যবসা করে টাকা কামিয়ে কোটিপতি বনে যাচ্ছে, তাদেরকেই তারা প্রতারণার ফাঁদে ফেলছে। প্রতারকদের বিরুদ্ধে কোনো শাস্তিমূলক ব্যবস্থাও দেখা যাচ্ছে না। আইনি লড়াই অনেক কঠিন হওয়ায় কেউ আইনের আশ্রয় নিতে আগ্রহী হয় না। ফলে তারা দ্রুত টাকার পাহাড় তৈরি করে ফেলছে। প্রতারণাকারীদের বিরুদ্ধে কঠিন শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণে আইনি প্রক্রিয়া সহজ করা জরুরি। বিষয়টি বিবেচনার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করছি।

আজিনুর রহমান লিমন

ডিমলা, নীলফামারী।

মন্তব্য