kalerkantho

বুধবার। ১৯ জুন ২০১৯। ৫ আষাঢ় ১৪২৬। ১৫ শাওয়াল ১৪৪০

সবজি বেচেও খেতে পড়তে দেবে না ওরা!

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি   

২৫ মে, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সবজি বেচেও খেতে পড়তে দেবে না ওরা!

চাঁদার টাকা না দেওয়ায় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থীকে মারধর করেছে কবি নজরুল কলেজ ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। গত বৃহস্পতিবার রাতে পুরান ঢাকার লক্ষ্মীবাজারে এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ১২তম ব্যাচের ইংরেজি বিভাগের মেধাবী শিক্ষার্থী মাহমুদুল হাসান নিজের পড়াশোনা ও পরিবারের ভরণ-পোষণের অর্থ জোগাড় করার জন্য সন্ধ্যার পর পুরান ঢাকার লক্ষ্মীবাজারে সবজি বিক্রি করেন। তাঁর সবজির দোকান থেকে প্রতিদিন কবি নজরুল ইসলাম কলেজ শাখা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা চাঁদা দাবি করে। বৃহস্পতিবার তাঁর কাছ থেকে চাঁদার টাকা না পেয়ে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা দোকান থেকে পেঁয়াজ, মরিচ নিয়ে যায়। তারপর মাহমুদুল প্রতিবাদ করায় কবি নজরুল কলেজ ছাত্রলীগের সহসভাপতি এসডি আকাশ, সহসম্পাদক ইয়াসিন আল অনিক ও ছাত্রলীগকর্মী মোল্লা আলামিনের নেতৃত্বে কয়েকজন তাঁকে বেধড়ক মারধর করে।

আহত শিক্ষার্থী মাহমুদুল হাসান জানান, পরিবার থেকে তাঁর পড়াশোনার টাকা দেওয়ার সামর্থ্য নেই। তাই তিনি সন্ধ্যার পরে লক্ষ্মীবাজারে সবজি বিক্রি করেন। চাঁদার টাকা না দেওয়ায় তাঁর দোকান থেকে তারা প্রতিদিন পেঁয়াজ, মরিচ নিয়ে যেত। আজ প্রতিবাদ করায় তারা তাঁকে মারধর করে। মাহমুদুল হাসান অভিযুক্তদের শাস্তির দাবি জানিয়ে বলেন, তাদের এমন শাস্তি দিতে হবে, যাতে কারো গায়ে হাত দিতে না পারে। এভাবে মানুষের কাছে চাঁদা দাবি করতে না পারে।

এ বিষয়ে কবি নজরুল কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হাওলাদারের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি মারধরের বিষয়টি অস্বীকার করেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. নূর মোহাম্মদ কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘আমাদের শিক্ষার্থীকে মারধরের কথা শুনেছি। এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনের পক্ষ থেকে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য পুলিশকে বলা হয়েছে। এ ছাড়া শিক্ষার্থীকে আমরা সব ধরনের সাহায্য-সহযোগিতা করব।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা