kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৫ জুন ২০১৯। ১১ আষাঢ় ১৪২৬। ২২ শাওয়াল ১৪৪০

প্রথম আরব হিসেবে বুকার ইন্টারন্যাশনাল জিতলেন জোখা আলহারথি

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৩ মে, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



প্রথম আরব হিসেবে বুকার ইন্টারন্যাশনাল জিতলেন জোখা আলহারথি

আরব বিশ্বের প্রথম লেখক হিসেবে এ বছরের ম্যান বুকার ইন্টারন্যাশনাল প্রাইজ জিতে নিয়েছেন ওমানের লেখক জোখা আলহারথি। ওমানের পরিবর্তিত সমাজব্যবস্থায় একটি পরিবারের জীবন নিয়ে লেখা ‘সিলেসটিয়াল বডিস’ বইয়ের জন্য তিনি এ পুরস্কার পান।

৪০ বছর বয়সী জোখা আলহারথি ওমানের প্রথম নারী ঔপন্যাসিক, যাঁর লেখা ইংরেজিতে অনুবাদ করা হয়েছে। আলহারথি ক্লাসিক্যাল আরবি সাহিত্য নিয়ে এডিনবরা বিশ্ববিদ্যালয়ে লেখাপড়া করেছেন। বর্তমানে মাসকাটের সুলতান কাবুস বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষকতা করছেন তিনি। আলহারথি ও বইটির ইংরেজি অনুবাদক মেরিলিন বুথ পুরস্কারের ৫০ হাজার পাউন্ড ভাগ করে নেবেন। এ পুরস্কার বইটির প্রকাশনা সংস্থা স্ট্যান্ডস্টোন পাবলিশার্সের জন্যও একটি বড় অর্জন। স্কটল্যান্ডের ডিংওয়ালের ছোট এ প্রকাশনীটি বছরে মাত্র ২০ থেকে ২৫টি বই প্রকাশ করে। পুরস্কার পাওয়ায় তারা খুবই খুশি বলে জানিয়েছেন তাদের এক মুখপাত্র।

লন্ডনের রাউন্ডহাউসে আনুষ্ঠানিকভাবে এ পুরস্কার গ্রহণের পর জোখা আলহারথি সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে বলেন, ‘আরব সংস্কৃতি অনেক সমৃদ্ধ। এ পুরস্কারের মাধ্যমে এই সংস্কৃতি ছড়িয়ে পড়ার ক্ষেত্রে একটি নতুন দিগন্ত উন্মোচিত হলো। আমি ওমানের জীবন থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে বইটি লিখেছি। কিন্তু আন্তর্জাতিক পাঠকরাও বইয়ে থাকা স্বাধীনতা ও ভালোবাসার মতো মানবিক অনূভূতিগুলোকে নিজেদের জীবনের সঙ্গে মেলাতে পারবেন।’

‘সিলেসটিয়াল বডিসে’ ওমানের আল আওয়াফি গ্রামের তিন বোনের জীবনের গল্প বলা হয়েছে। ঔপনিবেশিক ব্যবস্থা-পরবর্তী সময়ে ওমানের ক্রমপরিবর্তনশীল সংস্কৃতি ও সমাজের প্রত্যক্ষদর্শী তাঁরা। মূলত পরিবর্তনশীল ওই সমাজে ওমানের মধ্যবিত্তদের মানিয়ে নেওয়ার চেষ্টার বিষয়টিই ফুটিয়ে তোলা হয়েছে গল্পে।

জোখা আলহারথির মতে, বইটিতে মানুষের দাসত্বের বিষয়টি উঠে এসেছে। আর এ বিষয়ে আওয়াজ তোলার জন্য সাহিত্যই সবচেয়ে ভালো মাধ্যম।

বইটিকে ‘গভীর ভাব ও কাব্যিক অন্তর্দৃষ্টি সম্পন্ন’ বলে উল্লেখ করেছেন বিচারকরা। বিচারকদের একজন ইতিহাসবিদ বেটানি হিউজ বলেন, উপন্যাসটি ইতিহাসের শিল্পিত কোমল দিক যেমন দেখিয়েছে, তেমনি বিভিন্ন অসংগতিও তুলে ধরেছে।

এ বছর বুকার ইন্টারন্যাশনাল পুরস্কারের জন্য মনোনীত লেখকদের তালিকায় জায়গা পাওয়া অন্য লেখকরা ছিলেন—ফ্রান্সের অ্যানি অর্নক্স, জার্মানির মারিয়ান পশম্যান, পোল্যান্ডের ওলগা টোকারচুক, কলম্বিয়ার হুয়ান গাব্রিয়েল ভাসকুয়েস এবং চিলির আলিয়া ত্রাবুকো জেরান। সূত্র : এএফপি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা