kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২৭ জুন ২০১৯। ১৩ আষাঢ় ১৪২৬। ২৩ শাওয়াল ১৪৪০

পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ

ধর্ষণ-ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে তিন জেলায় গ্রেপ্তার ৭

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২১ মে, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ

মাদারীপুরে পুলিশের এক সদস্য স্কুলছাত্রীকে (১৬) ধর্ষণ করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। এই অভিযোগে প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়েছে মোক্তার হোসেন (৫০) নামের ওই পুলিশ সদস্যকে। গঠন করা হয়েছে তদন্ত কমিটিও।

এদিকে রাজশাহীর দুর্গাপুরে এক আদিবাসী গৃহবধূকে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা হয়েছে। গ্রেপ্তার করা হয়েছে অভিযুক্ত জাহাঙ্গীর আলমকে (৩৫)। খুলনায় এক গৃহকর্মীকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে গ্রেপ্তার হয়েছে পাঁচজন। এ ছাড়া নরসিংদীর রায়পুরায় পঞ্চম শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে একজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। কালের কণ্ঠ’র আঞ্চলিক অফিস ও প্রতিনিধিদের খবরে বিস্তারিত—

মাদারীপুর : অভিযুক্ত মোক্তার হোসেন জেলা পুলিশ লাইনে কর্মরত। তিনি শহরের টিবি ক্লিনিক সড়কে ভাড়া থাকেন। অভিযোগ অনুযায়ী, গত রবিবার রাতে তিনি প্রতিবেশী এক স্কুলছাত্রীকে ঘরে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ করেন। স্থানীয় লোকজন বিষয়টি টের পেয়ে বাইরে থেকে দরজা বন্ধ করে দেয়। পরে মোক্তার হোসেন ওই স্কুলছাত্রীকে ঘরের পেছনের ভেন্টিলেটর ভেঙে নিচে ফেলে দেয়। এতে ওই স্কুলছাত্রী গুরুতর আহত হয়। স্থানীয় লোকজন তাকে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করেছে।

ওই স্কুলছাত্রী বলে, ‘ভেন্টিলেটর দিয়ে ফেলে দেওয়ায় আমার পায়ের হাড় ভেঙে গেছে। এর আগে সে আমাকে লাঠি দিয়ে মারধরও করেছে।’

মাদারীপুর সদর হাসপাতালের চিকিৎসক মফিজুল ইসলাম লেলিন বলেন, ‘মেয়েটির হাড় ভেঙে গেছে। সেরে উঠতে কমপক্ষে তিন মাস সময় লাগবে।’

হাসপাতালের আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার ডা. শশাঙ্ক ঘোষ বলেন, ‘ধর্ষণের অভিযোগ নিশ্চিত হতে প্রয়োজনীয় নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে।’

অভিযুক্ত পুলিশ সদস্য মোক্তার হোসেন বলেন, ‘আমি নির্দোষ। আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে।’

মাদারীপুরের ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার উত্তম প্রসাদ পাঠক বলেন, ‘এ ঘটনায় দুই সদস্যের তদন্ত কমিটি করা হয়েছে। প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়েছে অভিযুক্ত পুলিশ সদস্যকে।’

দুর্গাপুর : আদিবাসী গৃহবধূকে ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেপ্তার জাহাঙ্গীর আলম উপজেলার ব্রহ্মপুর গ্রামের বাসিন্দা। আর ভুক্তভোগীর বাড়ি চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোল উপজেলায়। তিনিসহ কয়েক নারী দুর্গাপুরে দৈনিক মজুরির ভিত্তিতে মাঠে কাজ করেন। মামলার এজাহার অনুযায়ী, গত শুক্রবার ওই নারী টিউবওয়েলের পানি আনতে জাহাঙ্গীরের বাড়িতে যান। তখন জাহাঙ্গীর তাঁকে ধর্ষণ করেন।

খুলনা : গৃহকর্মীকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তাঁরা হলেন নগরীর দারুল আমান মহল্লার সরোয়ার, জুয়েল ওরফে কালু, মনির সরদার, মাসুদ রানা ও জাহিদুল হাওলাদার। এক গৃহকর্মীকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে গত রবিবার সোনাডাঙ্গা থানায় তাঁদের বিরুদ্ধে মামলা হয়।

রায়পুরা : উপজেলার মিজাপুর ইউনিয়নের এক স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের ঘটনায় মূল অভিযুক্ত মুজিবুর রহমানকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গতকাল সোমবার সকালে সিলেট থেকে ফেরার পথে উপজেলার হাঁটুভাঙ্গা রেলস্টেশন থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়। ঘটনার পর থেকে তিনি সিলেট, মৌলভীবাজার ও সুনামগঞ্জের বিভিন্ন স্থানে আত্মগোপনে ছিলেন।


খবরটি ইউনিকোড থেকে বাংলা বিজয় ফন্টে কনভার্ট করা যাবে কালের কণ্ঠ Bangla Converter দিয়ে

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা