kalerkantho

শুক্রবার । ২৪ মে ২০১৯। ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ১৮ রমজান ১৪৪০

বিপিওর সক্ষমতা তুলে ধরতে সম্মেলন আজ

বাণিজ্য ডেস্ক   

২১ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বিপিওর সক্ষমতা তুলে ধরতে সম্মেলন আজ

আজ রবিবার থেকে শুরু হচ্ছে ‘বিজনেস প্রসেস আউটসোর্সিং (বিপিও) সামিট বাংলাদেশ ২০১৯’। রাজধানীর হোটেল সোনারগাঁওয়ে দুই দিনের বিপিও সামিট উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্য-প্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার, আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহেমদ পলক।

দেশীয় ও আন্তর্জাতিক বাজারে বিপিও খাতের অবস্থান তুলে ধরতে চতুর্থবারের মতো অনুষ্ঠিত হচ্ছে এই সম্মেলন। সোমবার এ আয়োজন শেষ হবে।

বিপিও সামিটে দুই দিনে ১৩টি সেমিনার অনুষ্ঠিত হবে। আজ ২১ এপ্রিল উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের পর দুপুর ২টার সময় বলরুমে অনুষ্ঠিত হবে ‘বিপিও এজ এ ক্যারিয়ার ফর ইয়ুথ অ্যান্ড লেবারজিং বিপিও ফর এমপ্লয়মেন্ট’ শিরোনামে সেমিনার। একই সময় সুরমা হলে অনুষ্ঠিত হবে ‘গভর্নমেন্ট প্রসেস আউটসোর্সিং স্টেপস ফরওয়ার্ড’ সেমিনার। দুপুর ২টার সময় মেঘনা হলে অনুষ্ঠিত হবে বিপিও সামিটের ‘অন স্পট জব ইন্টারভিউ ফর নিউ ইন্ট্রান্টস’ শিরোনামে নতুন চাকরিপ্রার্থীদের জন্য একটি আয়োজন। একই সময় বেলকনি হলে ‘এক্সেস টু ফিন্যান্স ফর বিপিও ইন্ডাস্ট্রি’ শিরোনামে গোলটেবিল বৈঠক। চিত্রা হলে দুপুর ২টার সময় শুরু হবে ‘বি২বি নেটওয়ার্কিং সেশন’। এর মধ্য দিয়ে প্রথম দিনের প্রথম পর্বের সেমিনার শেষ হবে।

বিপিও সামিট সম্পর্কে আয়োজকরা জানান, দুই দিনের আয়োজনে দেশি-বিদেশি তথ্য-প্রযুক্তিবিদ, সরকারের নীতিনির্ধারক, গবেষক, শিক্ষার্থী এবং বিপিও খাতের সঙ্গে জড়িতরা অংশ নেবেন। প্রযুক্তি ব্যবসা বিশেষ করে আউটসোর্সিং ব্যবসা পরিচালনা, ব্যবসার উন্নয়ন ও বিনিয়োগের আদর্শ দেশ হিসেবে বাংলাদেশ বিশ্ব দরবারে এরই মধ্যে পরিচয় পেয়েছে। এবারের আয়োজনে দেশের আউটসোর্সিং খাতকে আরো কিভাবে ভালো করা যায় সে বিষয় বিশ্বকে জানানো হবে। বিপিও খাতে ২০২১ সালের মধ্যে এক লাখ কর্মসংস্থান সৃষ্টির লক্ষ্যে এ আয়োজন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে বলে আশা করেন আয়োজকরা।

এবারের আয়োজনে ৪০ জন স্থানীয় স্পিকার, ২০ জন আন্তর্জাতিক বক্তা অংশগ্রহণ করবে।

সরকারের ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্য-প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের ‘তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগে’র আওতাধীন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদপ্তর এবং বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব কল সেন্টার অ্যান্ড আউটসোর্সিংয়ের (বাক্য) আয়োজনে এই সামিট অনুষ্ঠিত হবে।

মন্তব্য