kalerkantho

শনিবার । ২৫ মে ২০১৯। ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ১৯ রমজান ১৪৪০

দুর্নীতি মামলা

সাবেক পুলিশ সার্জেন্টের ৭ বছরের কারাদণ্ড

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৩ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সাবেক পুলিশ সার্জেন্টের ৭ বছরের কারাদণ্ড

জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জন ও সম্পদের তথ্য গোপনের দায়ে সাবেক পুলিশ সার্জেন্ট মো. আজাহার আলীকে সাত বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। দুদকের করা মামলায় গতকাল মঙ্গলবার ঢাকার বিভাগীয় বিশেষ জজ আদালতের বিচারক সৈয়দ কামাল হোসেন এ রায় দেন।

রায় ঘোষণার সময় আসামি আজাহার আদালতে উপস্থিত ছিলেন। রায়ের পর তাঁকে কারাগারে পাঠানো হয়।

রায়ে বলা হয়েছে, আজাহার আলীকে সম্পদের তথ্য গোপনের জন্য দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) আইনের ২৬(২) ধারায় দুই বছরের ও অবৈধ সম্পদ অর্জন বা জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের দায়ে ২৭(১) ধারায় পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। উভয় ধারায় ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। জরিমানার টাকা দিতে ব্যর্থ হলে প্রতি ধারায় আরো তিন মাস করে কারাদণ্ড ভোগ করতে হবে। একই সঙ্গে অবৈধ সম্পদ অর্জনের মাধ্যমে আজাহার আলীর নামে থাকা তিনটি ফ্ল্যাট বাজেয়াপ্ত করার নির্দেশও দেওয়া হয়েছে।

জানা যায়, আজাহার সিলেটে কর্মরত অবস্থায় জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জন করেন। এই তথ্য জানার পর দুদক তাঁকে সম্পদের হিসাব দেওয়ার জন্য ২০১১ সালে নোটিশ দেয়। পরে সম্পদের হিসাব দিলে দুদকের অনুসন্ধানে জানা যায়, আজাহার এক কোটি ১২ লাখ টাকার জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জন করেন। একই সঙ্গে তিনি ৭৬ লাখ টাকার সম্পদের তথ্য গোপন করেন। ঘুষ, দুর্নীতির মাধ্যমে তিনি বিপুল সম্পদের মালিক হয়েছেন।

অনুসন্ধানে অভিযোগের সত্যতা প্রমাণ হওয়ায় ২০১২ সালের ২৭ ফেব্রুয়ারি রাজধানীর রমনা থানায় তাঁর বিরুদ্ধে মামলা করে দুদক।

 

মন্তব্য