kalerkantho

শনিবার । ২৫ মে ২০১৯। ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ১৯ রমজান ১৪৪০

ছেলেদের অত্যাচারে মায়ের আত্মহত্যা!

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি   

৯ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ছেলেদের অত্যাচারে মায়ের আত্মহত্যা!

রাতে নিখোঁজ চেনি বেগমকে পরের দিন সকালে মৃত অবস্থায় পাওয়া গেল বাড়ির পাশে ভুট্টা ক্ষেতে। সঙ্গে মিলল একটি বিষের কৌটাও। গতকাল শুক্রবার নারী দিবসের সকালে আসে এই দুঃসংবাদ। পুলিশ ছুটে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে। পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে চেনি বেগমের দুই ছেলেকে। দুই সন্তানের হাতে মা নিয়মিতই মারধরের শিকার হতেন বলে অভিযোগ করেছেন চেনি বেগমের স্বামী এবং আটক চঞ্চল (৩০) ও রাসেলের (২৬) বাবা পানচু মিয়া। ঘটনাটি মানিকগঞ্জের দৌলতপুর উপজেলার কাকনা গ্রামের।

পানচু মিয়া জানান, পারিবারিক কলহের কারণে মাঝে মাঝেই তাঁর দুই ছেলে মাকে মারধর করত। গত মঙ্গল ও বৃহস্পতিবারও মাকে মারধর করে দুই ছেলে। গত বৃহস্পতিবার রাত ৯টার পর থেকে চেনি বেগমকে পাওয়া যাচ্ছিল না। রাতে অনেক খোঁজাখুঁজি করেও লাভ হয়নি। গতকাল শুক্রবার সকালে ক্ষেতে কাজ করার সময় কয়েকজন চেনি বেগমের মৃত দেহ দেখতে পান। খবর পেয়ে পুলিশ এসে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মানিকগঞ্জ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়ে দেয়। স্থানীয় ইউপি সদস্য নুরুল ইসলামও জানান চেনি বেগমকে তাঁর ছেলেরা মাঝে মাঝেই মারধর করত।

দৌলতপুর থানার ওসি সুনিল কুমার কর্মকার জানান, মৃতদেহের মুখে ফেনা এবং পাশেই একটি গ্লাস পড়ে থাকতে দেখা যায়। সবার ধারণা, চেনি বেগম বিষ পান করেছেন। তবে ওসি বলেন, ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পাওয়ার পরই মৃত্যুর কারণ নিশ্চিত হওয়া যাবে এবং সে অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

দুই ছেলের হাতে মারধরের বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তাদের আটক করা হয়েছে বলেও জানান ওসি।

মন্তব্য