kalerkantho

শুক্রবার । ২৪ মে ২০১৯। ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ১৮ রমজান ১৪৪০

সবিশেষ

জলবায়ু পরিবর্তনে বাড়বে ইঁদুরের ‘জ্বালাতন’

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৪ নভেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



জলবায়ু পরিবর্তনে বাড়বে ইঁদুরের ‘জ্বালাতন’

ফ্রান্সের প্যারিসে মেয়র নির্বাচন হতে বাকি আছে দুই বছরের মতো। কিন্তু জরিপে এখনই দেখা যাচ্ছে যে ৫৮ শতাংশ লোক বর্তমান মেয়রকে ভোট দেবে না। আর এর কারণ হলো শহরে ভয়াবহ ইঁদুরের উৎপাত। নাইজেরিয়ায় প্রেসিডেন্ট মুহাম্মাদু বুহারি প্রায় এক সপ্তাহ বাড়ি থেকে রাষ্ট্রীয় কাজ করতে বাধ্য হয়েছেন। কারণ তাঁর কার্যালয় চলে যায় ইঁদুরের দখলে। যুক্তরাষ্ট্রের শিকাগো শহর একসময় পরিচিত ছিল গান আর খেলার শহর হিসেবে। কিন্তু এখন একে ডাকা হচ্ছে ‘ইঁদুরের রাজধানী’।

বিজ্ঞানীদের পূর্বাভাস, ইঁদুরের ‘জ্বালাতন’ সামনে আরো ভয়াবহ হবে। কারণ ইঁদুর প্রচুর সন্তান জন্ম দিয়ে থাকে। গরম আবহাওয়ায় এদের প্রজনন আরো বেশি হয়। এক জুটি ইঁদুর সাধারণত ১২ মাসে এক হাজার ২৫০টি নতুন ইঁদুরের জন্ম দেয়। জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে যেভাবে আবহাওয়া গরম হচ্ছে তাতে ইঁদুরের প্রজননচক্র আরো দীর্ঘ হবে।

গবেষকরা বলছেন, ইঁদুরের কারণে শুধু যে একজন মেয়রের রাজনীতির ক্যারিয়ার বিপদগ্রস্ত তা নয়, ইঁদুর নানা ধরনের অসুখ ছড়ানোর জন্যও দায়ী। এ ছাড়া স্থাপনা, খাদ্যশস্যেরও ক্ষতি করে থাকে। শুধু যুক্তরাষ্ট্রে ইঁদুরের উৎপাতের কারণে প্রায় দুই হাজার কোটি ডলার সমপরিমাণ ক্ষতি হচ্ছে। গত এক হাজার বছরে সবগুলো যুদ্ধে যে পরিমাণে মানুষ মারা গেছে, তার চেয়ে অনেক বেশি মানুষ মারা গেছে ইঁদুরের কারণে।

জাতিসংঘ বলছে, ২০৫০ সাল নাগাদ বিশ্বের প্রায় ৭০ শতাংশ জনগোষ্ঠী শহরে বাস করবে, যা এখন ৫৫ শতাংশ। এর অর্থ হলো, শহরে ইঁদুরের খাদ্য ও বাসস্থানের পরিমাণ ব্যাপক হারে বাড়বে।

গ্রিনিচ বিশ্ববিদ্যালয়ের ইকোলজির শিক্ষক স্টিভ বেলমেইন বলেন, ‘ইঁদুরকে পুরোপুরি নির্মূল করা অসম্ভব। ওদের মেরে ফেলার বিষয়টা কাজ করবে না। কারণ যেগুলো বাকি থাকবে তারা বেশ দ্রুতই পরিস্থিতি আগের জায়গায় নিয়ে যেতে পারবে।’

২০১৬ সালে মার্কিন একটি কম্পানি ঘোষণা দিয়েছে, তারা একটি জন্ম নিয়ন্ত্রণ ওষুধ তৈরি করেছে, যাতে নারী ইঁদুরের প্রজননক্ষমতা নষ্ট করে দেওয়া যায়। এতে পৃথিবী বদলে যাবে। সূত্র : বিবিসি।

 

মন্তব্য