kalerkantho

সোমবার । ৫ আশ্বিন ১৪২৮। ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১। ১২ সফর ১৪৪৩

ফেসবুক আড়াই কোটি টাকা ভ্যাট দিল, অন্যরা সময় চায়

ফরিদ আহমেদ    

৩০ জুলাই, ২০২১ ০২:২১ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



ফেসবুক আড়াই কোটি টাকা ভ্যাট দিল, অন্যরা সময় চায়

বাংলাদেশে করা আয় থেকে ফেসবুক গত জুন মাসের ভ্যাট রিটার্ন হিসেবে সরকারি কোষাগারে দুই কোটি ৪৪ লাখ টাকা ভ্যাট জমা দিয়েছে। কিন্তু গুগল, অ্যামাজন, মাইক্রোসফট ভ্যাট রিটার্ন দাখিলে অপারগতা প্রকাশ করে আরো সময় চেয়ে ঢাকা দক্ষিণ ভ্যাট কমিশনারেটে আবেদন করেছে। গত ১০ জুন এসব প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপনের আড়ালে টাকা পাচারের সংবাদ প্রকাশিত হয় কালের কণ্ঠে। এর তিন দিন পর ১৩ জুন ফেসবুক ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান হিসেবে বাংলাদেশ থেকে ভ্যাট নিবন্ধন নেয়।

জানা গেছে, ফেসবুকের পক্ষে নিবন্ধিত তিনটি প্রতিষ্ঠান হচ্ছে ফেসবুক আয়ারল্যান্ড লিমিটেড, ফেসবুক পেমেন্টস ইন্টারন্যাশনাল ও ফেসবুক টেকনোলজিস আয়ারল্যান্ড লিমিটেড। নিবন্ধনের এক মাস পর গত ১৫ জুলাই প্রতিষ্ঠানটি ভ্যাট রিটার্ন দাখিল করে। জুন মাসের ব্যাবসায়িক হিসাব বিবরণী দিয়ে করা ওই রিটার্নে ফেসবুক মোট দুই কোটি ৪৪ লাখ টাকা ভ্যাট পরিশোধ করেছে। ব্যাংকের মাধ্যমে তারা সরকারি কোষাগারে এই টাকা জমা দিয়েছে।

এদিকে গত ২৩ মে গুগল ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান হিসেবে বাংলাদেশের ভ্যাট নিবন্ধন নেয়। প্রতিষ্ঠানটি নিজের মালিকানাধীন ইউটিউব, ইনস্টাগ্রাম, হোয়াটসঅ্যাপের নিবন্ধন নিলেও এখনো কোনো ভ্যাট রিটার্ন দাখিল করেনি, বরং এনবিআরের কাছে ভ্যাট রিটার্ন দাখিলে অপারগতা প্রকাশ করে আরো সময় চেয়েছে।

একইভাবে গত ২৭ মে অ্যামাজন ঢাকা দক্ষিণ ভ্যাট কমিশনারেট থেকে অনাবাসী প্রতিষ্ঠান ক্যাটাগরিতে ব্যাবসায়িক ভ্যাট নিবন্ধন নেয়। নিবন্ধন নিলেও প্রতিষ্ঠানটি এখনো রিটার্ন দাখিল করে ভ্যাটের টাকা পরিশোধ করেনি। তারাও নির্দিষ্ট সময়ে রিটার্ন দাখিলে অপারগতা প্রকাশ করে সময় চেয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

দক্ষিণ ভ্যাট কমিশনারেট সূত্র জানায়, সর্বশেষ গত ১ জুলাই মাইক্রোসফট ভ্যাট নিবন্ধন নেয়। সিঙ্গাপুরের ঠিকানা ব্যবহার করে মাইক্রোসফট রিজিওনাল সেলস পিটিই লিমিটেড নামে নিবন্ধন নিয়েছে। এই প্রতিষ্ঠানটি বিজ্ঞাপন প্রচার ছাড়াও সফটওয়্যার ও অ্যাপস বিক্রি করে থাকে। এ ছাড়া ইয়াহুর কার্যক্রম মাইক্রোসফটের সঙ্গে যুক্ত। সে জন্য ইয়াহু যেসব সেবা দেয়, তার বিপরীতেও ভ্যাট দিতে হবে মাইক্রোসফটকে। এই প্রতিষ্ঠানটিও নির্ধারিত সময়ে ভ্যাট রিটার্ন দাখিলে অপারগতা প্রকাশ করে এরই মধ্যে ভ্যাট রিটার্ন দাখিলে সময় চেয়েছে।

ঢাকা দক্ষিণ ভ্যাট কমিশনারেটের অতিরিক্ত কমিশনার প্রমিলা সরকার কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘ফেসবুক ভ্যাট রিটার্ন দাখিল করেছে। তারা ভ্যাটের টাকা পরিশোধও করেছে। তবে অন্যরা এখনো ভ্যাট রিটার্ন জমা না দিয়ে সময় চেয়ে আবেদন করেছে। আমরা এক মাস সময় দিয়েছি তাদের।’ এক মাসের সময় শেষ হলে তাদের একসঙ্গে দুই মাসের ভ্যাট রিটার্ন জমা দিতে হবে বলে জানান তিনি।

কালের কণ্ঠ’র প্রতিবেদনে বলা হয়, ইন্টারনেটভিত্তিক বিদেশি প্রতিষ্ঠান ফেসুবক, গুগল, ইউটিউব, ইনস্টাগ্রাম, হোয়াটসঅ্যাপ, অ্যামাজন ও মাইক্রোসফটে বাংলাদেশ থেকে বিজ্ঞাপন প্রচার করা হচ্ছে। এই ফাঁকে দেশ থেকে পাচার হয়ে যাচ্ছে বিপুল অঙ্কের বৈদেশিক মুদ্রা। তবে এ খাতে ঠিক কী পরিমাণ অর্থ দেশের বাইরে যাচ্ছে তার কোনো সঠিক তথ্য কারো কাছে নেই। সরকারের কোনো দপ্তরও জানে না এ খাতে কী পরিমাণ রাজস্ব থেকে বঞ্চিত হচ্ছে দেশ।

তবে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা জানান, গুগল, ফেসবুক, ইউটিউব, ইমো, হোয়াটসঅ্যাপসহ সামাজিক যোগাযোগের বিভিন্ন প্ল্যাটফর্মে বিজ্ঞাপন দিতে গিয়ে বছরে হাজার কোটির বেশি অর্থ বিদেশে পাচার হচ্ছে। সরকার এক টাকাও রাজস্ব পাচ্ছে না।

এমন পরিস্থিতিতে প্রতিষ্ঠানগুলোকে ভ্যাট নিবন্ধনের আওতায় আনতে চাপ সৃষ্টি করে সরকার। অর্থনীতিবিদরা বলছেন, এ ধরনের প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে উন্নত জোট জি-৭ যে কঠোর অবস্থান নিয়েছে, সেটিকে উদাহরণ ধরে বাংলাদেশও আরো সোচ্চার হতে পারে।



সাতদিনের সেরা