kalerkantho

বুধবার । ১ বৈশাখ ১৪২৮। ১৪ এপ্রিল ২০২১। ১ রমজান ১৪৪২

স্লিক ও স্টাইলিশ অপো এফ১৯ প্রো স্মার্টফোনে একের ভেতর সব

নিজস্ব প্রতিবেদক    

৫ এপ্রিল, ২০২১ ২৩:১৭ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



স্লিক ও স্টাইলিশ অপো এফ১৯ প্রো স্মার্টফোনে একের ভেতর সব

করোনায় লকডাউনে ঘরবন্দি দিনগুলোতে তরুণরা স্মার্টফোনের ওপর নির্ভরশীল হয়ে উঠছে। ক্লাস, অনলাইন মিটিং, বিনোদনমূলক কনটেন্ট, প্রিয়জনের সঙ্গে আড্ডা সব ক্ষেত্রেই স্মার্টফোন জরুরি হয়ে পড়েছে। এসব বিবেচনা করে অপো বাংলাদেশ বাজারে এনেছে স্লিম ডিজাইন, ভালো ক্যামেরা, ভিডিওগ্রাফি ও শক্তিশালী ব্যাটারির এফ১৯ প্রো স্মার্টফোন।

অপো জানিয়েছে, ভালো কনটেন্ট উপভোগের জন্য বড় স্ক্রিন দরকার। অপো এফ১৯ প্রো স্মার্টফোনে ৬.৪৩ ইঞ্চির তেমনই সুপার অ্যামোলেড ফ্রন্ট প্যানেল স্ক্রিন রয়েছে। ব্যবহারের সময় ফ্রন্ট ক্যামেরা থেকে সিঙ্গেল হোল-পাঞ্চ সরে যাবে এবং পাতলা ব্যাজেল থেকে প্রক্সিমিটি সেন্সর ভেতর ঢুকে গিয়ে ৯.৮ শতাংশ স্ক্রিন টু বডি রেশিও প্রদর্শিত হবে। ফলে ব্যবহারকারী বড় স্ক্রিনের দারুণ অভিজ্ঞতা পাবেন।

এছাড়া তরুণরা আজকাল স্মার্টফোনে তাদের পছন্দের শো দেখতে পছন্দ করেন। বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া শিক্ষার্থীরা অনলাইনে ক্লাস, তরুণ পেশাজীবীরা ফোনে অনলাইন মিটিংয়ে অংশগ্রহণ করেন। তাই বড় স্কিন ও ভালো মানের ডিসপ্লের প্রয়োজন মেটাতে স্মার্টফোনটিতে আছে যাচ্ছে সুপার এমোলেড ডিসপ্লে।

এলসিডি এবং সিঙ্গেল পাঞ্চ সুপার এমোলেড ডিসপ্লের মধ্যে পার্থক্য আছে। এলসিডি ডিসপ্লে থেকে ‘ব্যাকলাইট’ আলো উত্পন্ন হয়। তাছাড়া এলসিডি ডিসপ্লে আরো বেশি কিছু সমস্যা যা সুপার এমোলেড ডিসপ্লেতে নেই। এর চমৎকার রেজ্যুলেশন ব্যবহারকারীকে অনেকগুলো কালারের অভিজ্ঞতা দিবে। যেকোনো লাইটিং পরিবেশে স্বয়ংক্রিয়ভাবে সুপার এমোলেড ডিসপ্লে মানিয়ে নিতে সক্ষম। এটি ব্যবহারকারীর চোখের জন্য আরামদায়ক বিশেষ করে যখন গেম খেলা ও পছন্দের মাল্টিমিডিয়া কনটেন্ট দেখা হয়।

এফ১৯ প্রো স্মার্টফোনের অন্যতম দিক হচ্ছে এর ডুয়েল ভিউ ভিডিও। মানে একই সময়ে ক্যামেরার দুই সাইডে ভিডিও ধারণ করা যাবে স্বতঃস্ফূর্তভাবে। কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা (এআই) সম্বলিত কালার প্রোট্রেট সুবিধা থাকার কারণে ভিডিও এর মানও হবে ভালো। স্মার্টফোন ব্যবহারকারীর রা সবসময় আনন্দময় ও রোমাঞ্চকর মুহূর্তগুলো ক্যামেরায় ধরে রাখতে চায়। সেলফি তুলতে ফোনটিতে যুক্ত করা হয়েছে কোয়াড ক্যামেরা সেট-আপ। স্মার্টফোনটিতে আছে দ্রত চার্জিং সুবিধাসহ ৪৩১০ এমএএইচ ব্যাটারি। এর ৩০ ওয়াটের ভুক ফ্ল্যাশ চার্জ মাত্র ৫৬ মিনিটে ১০০ ভাগ চার্জ দেবে। মানে মাত্র ৫ মিনিটের চার্জ দিয়ে ৩.২ ঘণ্টা কথা বলা, ১ ঘণ্টা ইন্সটাগ্রাম ব্যবহার করা এবং ২.৯ ঘণ্টা ইউটিউব দেখা যাবে। 

ফোনটির ৮জিবি র‍্যাম এবং ১২৮ জিবি রম ফোনটিকে দিয়েছে শক্তিশালী পারফরমেন্স ক্ষমতা। এর সঙ্গে অক্টা-কোর মিডিয়া টেক হেলিও পি৯৫ এর মতো প্রসেসরের ফোনটি দেশের বাজারে ফ্যান্টাস্টিক পার্পল এবং ফ্লুইড ব্ল্যাক এই দুই কালারে পাওয়া যাচ্ছে। অপো এফ১৯ প্রোর দাম নির্ধারণ করা হয়েছে মাত্র ২৮ হাজার ৯৯০ টাকা। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা