kalerkantho

শনিবার । ২৩ নভেম্বর ২০১৯। ৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

সরকারি দাবি উপেক্ষা করে ম্যাসেঞ্জারে গ্রাহকদের নিরাপত্তা বাড়াচ্ছে ফেসবুক

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৭ নভেম্বর, ২০১৯ ২০:০২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সরকারি দাবি উপেক্ষা করে ম্যাসেঞ্জারে গ্রাহকদের নিরাপত্তা বাড়াচ্ছে ফেসবুক

ম্যাসেঞ্জারে End-to-end encryption (E2EE)  ফিচার চালু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ফেসবুক। এতে করে দুজন ইউজারের মধ্যে কথা চালাচালির বিষয়টি আরো বেশি নিরাপদ হবে। দুজন ইউজারের কথোপকথনে তৃতীয় পক্ষ আর সহজেই আড়ি পাততে পারবে না। অন্য কেউ তাদের কথোপকথন সহজে হ্যাক করতে পারবে না।

কিন্তু বিভিন্ন দেশের সরকার ফেসবুককে ম্যাসেঞ্জারে এই ফিচারটি চালু করতে নিষেধ করছে। সরকারগুলোর দাবি এরে ফলে অপরাধীরা আরো নিশ্চিন্তে ও গোপনে নিজেদের মধ্যে যোগাযোগ রক্ষা করতে সক্ষম হবে। কিন্তু ফেসবুক তার ইউজারদের নিরাপত্তার কথা বিবেচনা সরকারগুলোর ওই আহবানে কান দেয়নি।

গত মাসে যুক্তরাজ্য ও যুক্তরাষ্ট্রের আইন প্রণেতারা বলেছেন, এই ফিচারটি চালু করলে শিশু নিপীড়ক ও সন্ত্রাসীদের ধরা আরো কঠিন হয়ে পড়বে।

ফেসবুককে চাপ দেওয়া হচ্ছে ম্যাসেঞ্জারে বার্তা আদান-প্রদানকে আরো কম নিরাপদ করার জন্য। কিন্তু ফেসবুক আপাতত সে দাবি উপেক্ষা করছে।

গ্রাহকদের নিরাপত্তা বাড়ানোর পাশাপাশি ফেসবুক কোনো ফেসবুক অ্যাকাউন্টের সঙ্গে যুক্ত নয় এমন ম্যাসেঞ্জার অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে  দেওয়ারও সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

বর্তমানে বেশিরভাগ ম্যাসেঞ্জার অ্যাকাউন্ট ফেসবুকের কোনো না কোনো প্রোফাইলের সঙ্গে যুক্ত। তবে ফেসবুকের সঙ্গে যুক্ত নয় এমন কিছু ম্যাসেঞ্জার অ্যাকাউন্টও রয়েছে। যেগুলো ব্যবহার করে অপরাধ এবং অযাচিত ভাবে কাউকে বার্তা প্রেরণ এর মতো কাজ করা হতে পারে।

ম্যাসেঞ্জার অ্যাকাউন্টকে ফেসবুকের সঙ্গে যুক্ত করার শর্ত জুড়ে দেওয়ার ফলে হয়তো গ্রাহকদের নিরাপত্তা কিছুটা কমবে। তবে এর ফলে ফেসবুক নিজে গ্রাহকদের ওপর আরো বেশি নজরদারি করতে সক্ষম হবে। এবং বাজে গ্রাহককে সাবধান করতে পারবে অথবা কেউ অপরাধ করলে পুলিশকেও জানাতে পারবে।

গ্রাহকদের নিরাপত্তা বাড়ানোর জন্য ফেসবুক যেসব পদক্ষেপ নিতে চলেছে তার মধ্যে আরো রয়েছে অপ্রত্যাশিত কন্টাক্ট সম্পর্কে গ্রাহকদেরকে রিমাইন্ডার পাঠানো। এবং অপ্রত্যাশিত কন্টেন্ট এর টেক্সট সংস্করণ ফেসবুককে পাঠানোর আহবান। যার ওপর ভিত্তি করে ফেসবুক ওই বাজে কন্টেন্ট প্রেরণকারীকে ব্লক করবে বা পুলিশে অভিযোগ করবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা