kalerkantho

রবিবার । ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯। ৩০ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৭ রবিউস সানি                    

বদলে গেল বিকাশ অ্যাপ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১৬:৫৪ | পড়া যাবে ৬ মিনিটে



বদলে গেল বিকাশ অ্যাপ

আর্থিক লেনদেনে গ্রাহককে আরো সঠিক সিদ্ধান্ত নেবার সুযোগ তৈরি করে দিয়ে বিকাশ অ্যাপটি হয়ে গেল আরো পারসোনালাইজড ও ইন্টারঅ্যাকটিভ। এখন থেকে এই নতুন অ্যাপে ব্যবহারকারীদের লেনদেনের ধরণ, লাইফস্টাইল এবং লোকেশন অনুযায়ী থাকবে বিভিন্ন পণ্য ও সেবার সাজেশন এবং নানা রকমের অফার। সেই সঙ্গে অ্যাপের হোম স্ক্রিনে আরো থাকছে বিকাশের মূল সেবাগুলোর আইকন, গ্রাহকের নিয়মিত লেনদেনের তথ্য, বিকাশের সেরা অফার, কিউ আর কোড স্ক্যান করার সুবিধা সহ প্রয়োজনীয় সমস্ত সেবা। নতুন অ্যাপের আরেকটি উল্লেখযোগ্য দিক হচ্ছে- গ্রাহক না হয়েও যে কেউ  অ্যাপে গিয়ে বিকাশের সেবাগুলো সম্পর্কে জানতে পারছেন এবং আগ্রহী হলে সঙ্গে সঙ্গেই অ্যাপ থেকেই কয়েক মিনিটের মধ্যেই নতুন বিকাশ একাউন্টও খুলতে পারছেন। এমনি সব দরকারি, আধুনিক অথচ সহজে ব্যবহার-উপযোগী সেবাগুলো নিয়ে বিকাশের নতুন অ্যাপটি এখন থেকেই অ্যাপস্টোর ও গুগুল প্লেস্টোর থেকে আপডেট বা ডাউনলোড করা যাচ্ছে। 

গ্রাহকদের জন্য আকর্ষণীয় অফার : বিকাশ এর নতুন অ্যাপ ডাউনলোড করে অ্যাপ থেকে নিজের একাউন্ট খুলে বিকাশে লগ-ইন করলে নতুন গ্রাহক তাৎক্ষণিক ভাবেই প্রথমবার ১০০ টাকা বোনাস পেয়ে যাবেন তার একাউন্টে। অফারটি ১২ সেপ্টেম্বর থেকে ৩১ অক্টোবর ২০১৯ পর্যন্ত চলবে।  

যাদের বিকাশ একাউন্ট আছে কিন্তু কখনও অ্যাপ ব্যবহার করেননি, তাদের জন্যও থাকছে অফার। এমন গ্রাহকরা অ্যাপ ডাউনলোড করে লগইন করলেই পেয়ে যাবেন তাৎক্ষণিক ৫০ টাকা বোনাস। অফারটি ১২ সেপ্টেম্বর থেকে ৩১ ডিসেম্বর ২০১৯ পর্যন্ত চলবে। 

নতুন গ্রাহক অথবা প্রথমবার অ্যাপ ব্যবহারকারী নিজের অ্যাপ থেকে নিজের মোবাইলে প্রথমবার ২৫ টাকা রিচার্জ করলে পাবেন ৫০ টাকা তাৎক্ষণিক বোনাস। অফারটি ১২ সেপ্টেম্বর থেকে ৩১ অক্টোবর ২০১৯ পর্যন্ত চলবে।  

আর যারা আগে থেকেই অ্যাপ ব্যবহার করছেন এমন গ্রাহকদের জন্য অ্যাপেই রয়েছে অসংখ্য আকর্ষণীয় অফার। নির্দিষ্ট সুপারশপ থেকে ১ টাকায় একটি পণ্য কেনাসহ বিভিন্ন ধরনের ক্যাশব্যাক অফারের তথ্যগুলো গ্রাহক তার অ্যাপেই পেয়ে যাবেন। তাছাড়া যারা বিকাশ অ্যাপ ব্যবহার করছেন তারা আত্মীয়-পরিজনকে বিকাশ অ্যাপ রেফার করেও আকর্ষণীয় বোনাস পেতে পারেন। 

পরবর্তী ঘোষণা না দেয়া পর্যন্ত-নতুন অ্যাপ দিয়ে টাকা পাঠালে (সেন্ড মানি) এবং বিভিন্ন সেবার বিল পরিশোধ (পে বিল) করলে গ্রাহকের বাড়তি কোন খরচ থাকছে না। নতুন অ্যাপ দিয়ে ক্যাশআউট করলে এক হাজার টাকায় ১৫ টাকা খরচ হবে। 

নতুন অ্যাপের বিস্তারিত 
একাউন্ট না থাকলেও বিকাশ অ্যাপ ব্যবহারের সুযোগ :  যাদের বিকাশ একাউন্ট নেই কিন্তু বিকাশ অ্যাপ সম্পর্কে জানতে আগ্রহী তাদের জন্য নতুন বিকাশ অ্যাপে অতিথি হিসেবে (গেস্ট মোড) প্রবেশ করার সুযোগ থাকছে। গেস্ট মোডে বা অতিথি হিসেবে অ্যাপ ব্যবহার করে বিকাশের সবগুলো সেবা, অ্যাপের ফিচারসহ বিস্তারিত বিষয়গুলো সম্পর্কে জানতে ও বুঝতে পারবেন আগ্রহী ব্যক্তি। 

নিজে নিজে একাউন্ট খোলার সুযোগ : বিকাশ অ্যাপ সম্পর্কে জেনে ব্যবহারকারী যদি বিকাশ একাউন্ট খুলতে আগ্রহী হন তাহলে অ্যাপেই নিজের জাতীয় পরিচয়পত্র দিয়ে ই-কেওয়াইসি (গ্রাহকের নাম, ঠিকানা, নিবন্ধন নম্বর, মোবাইল নম্বর এর মত মৌলিক তথ্য সমৃদ্ধ ইলেকট্রনিক ফরম) এর মাধ্যমে সরাসরি নতুন একাউন্ট খুলে নিতে পারবেন। 

মূল সেবাসমূহ : এতদিন বিকাশ অ্যাপে যে আইকন-গুলো ব্যবহার করেছেন গ্রাহক সেই আইকন-গুলোই থাকছে স্ক্রিনের উপরের অংশে। ক্যাশইন, ক্যাশআউট, মোবাইল রিচার্জ, মেক পেমেন্ট, অ্যাড মানি, পে বিল, মুভি টিকেট এর আইকন গুলো এখানে পাবেন গ্রাহক।
 
আমার বিকাশ : এই অংশটি একবারে প্রত্যেক গ্রাহকের মত করে সাজিয়ে দেয়া হবে। যে গ্রাহক যে সেবাটি বেশি ব্যবহার করেন তা সাজানো থাকবে ‘আমার বিকাশ’ অংশে। যেমন, কেউ হয়ত মাকে নিয়মিত টাকা পাঠান। তার ‘আমার বিকাশ’ অংশে থাকবে মা নামে একটি লোগো যেখানে ক্লিক করেই মাকে টাকা পাঠানোর প্রক্রিয়া শুরু করতে পাদরবেন তিনি। 

সেরা অফার এবং সব অফারের তালিকা : বিকাশ-এ কি অফার চলছে তা জানাতে বিকাশ এর নতুন এই অ্যাপ স্ক্রিনে যুক্ত হয়েছে একটি ব্যানার। যেখানে বিকাশের সেরা অফারটি প্রর্দশিত হবে। ক্লিক করলে অফারটির বিস্তারিত জানার সুযোগ থাকবে। 

সেরা অফার ছাড়াও প্রতিষ্ঠিত ব্র্যান্ডগুলোর অফার নিয়ে স্ক্রিনে থাকছে একটি অফার অংশ। । ক্লিক করলেই থাকবে বিস্তারিত জানার সুযোগ।  

প্রতিটি জেলার জন্য থাকছে ভিন্ন ভিন্ন অফার। গ্রাহক যখন যেখানে অবস্থান করবেন সেখানে অ্যাপ-এ লোকেশন দিলে ঐ এলাকার অফার গুলো তার অ্যাপ স্ক্রিনে প্রর্দশিত হবে। 

সাজেশন : বিকাশের সব সেবার মধ্যে গ্রাহকের প্রয়োজনীয় সেবা সহজে খুঁজে দিতে নতুন বিকাশ অ্যাপে যুক্ত হয়েছে সাজেশন। যেখানে গ্রাহকের অবস্থান, অ্যাপ ব্যবহারের ধরন, লাইফস্টাইল প্রভৃতির উপর নির্ভর করে প্রত্যেক গ্রাহকের সাজেশন বক্স ভিন্নভাবে সাজানো থাকবে। যেমন সিলেটের গ্রাহকের সাজেশন বক্সে থাকবে জালালাবাদ গ্যাস বিতরণ কোম্পানীর লোগো আবার ঢাকার গ্রাহকের জন্য হয়ত ডিপিডিসির লোগো। 

নেভিগেশন বার : হোমস্ক্রিনের একবারে নিচের অংশে রয়েছে নেভিগেশন বার। যেখানে হোমস্ক্রিন বাটন, কিউআর কোড বাটন এবং ইনবক্স বাটনের দেখা পাবেন গ্রাহক। যে কোন ইউন্ডো থেকে একটি ক্লিকেই মূল স্ক্রিনে ফিরে আসতে গ্রাহক এই বাটনটি ব্যবহার করতে পারবেন। 

কিউআর কোড বাটন : নতুন অ্যাপের স্ক্রিনের একদম নিচে থাকছে একটি কিউআর বাটন। যেখান থেকে সরাসরি কিউআর কোড স্ক্যান করে গ্রাহক কাক্সিক্ষত সেবার ইন্টারফেসে পৌঁছে যাবেন কয়েক ধাপ অতিক্রম করে।

ইনবক্স : গ্রাহকের লেনদেনের ধরন ভেদে বিভিন্ন সময়ে নির্দিষ্ট শ্রেণীর গ্রাহকের জন্য থাকে বিশেষ অফার। গ্রাহক তার জন্য বিশেষ এই অফারের দেখা পাবেন ইনবক্স এর প্রমোশন অংশে। আর ট্রানজেকশন অংশে তার শেষ ৫০টি ট্রানজেকশনের তালিকা পাবেন।   

তাছাড়া হোমস্ক্রিনে ট্যাপ করে ব্যালেন্স চেক করার সুযোগ, একবারে ডানদিকে বিকাশ লোগোতে ক্লিক করে লিমিট, ট্রানজেকশন, ব্যবহারকারীর তথ্য পরিবর্তন সহ আগের অপশনগুলো সবই যুক্ত হয়েছে এই অ্যাপেও। 

ব্র্যাক ব্যাংক, যুক্তরাষ্ট্র ভিত্তিক মানি ইন মোশন, বিশ্ব ব্যাংক গ্রুপের অর্ন্তগত ইন্টারন্যাশনাল ফিন্যান্স কর্পোরেশন, বিল অ্যান্ড মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশন এবং অ্যান্ট ফিনান্সিয়াল এর যৌথ মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠান বিকাশ, ২০১১ সাল থেকে বাংলাদেশ ব্যাংক নিয়ন্ত্রিত পেমেন্ট সেবা দানকারী প্রতিষ্ঠান হিসেবে বিভিন্ন ধরনের মোবাইল/ডিজিটাল ফিনান্সিয়াল সার্ভিস দিয়ে আসছে। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা