kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২৭ জুন ২০১৯। ১৩ আষাঢ় ১৪২৬। ২৩ শাওয়াল ১৪৪০

ডাব্লিউটিও সভায় বাণিজ্যমন্ত্রী

বাংলাদেশি পণ্যে ভারতের অ্যান্টি ডাম্পিং শুল্ক প্রত্যাহারের অনুরোধ

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৫ মে, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বাংলাদেশ ২০২৪ সালে স্বল্পোন্নত দেশ (এলডিসি) থেকে বেরিয়ে উন্নয়নশীল দেশে পরিণত হবে। এ সময় বাংলাদেশের বিশ্ববাণিজ্যের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থার (ডাব্লিউটিও) সহযোগিতা প্রয়োজন হবে বলে মনে করেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি। এ ছাড়া বাণিজ্যমন্ত্রী বাংলাদেশের বিভিন্ন পণ্যের ওপর ভারতের আরোপিত অ্যান্টি ডাম্পিং শুল্ক প্রত্যাহারের অনুরোধ জানান।

গতকাল মঙ্গলবার নয়াদিল্লিতে অনুষ্ঠিত দুই দিনব্যাপী ডাব্লিউটিও মিনিস্ট্রিয়াল মিটিং অব ডেভেলপমেন্ট-২০১৯ এ তিনি এসব কথা বলেন। ভারতের বাণিজ্য, শিল্প ও বেসামরিক বিমান চলাচল মন্ত্রী সুরেশ প্রভু অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন। বিশ্বের ২৩টি উন্নয়নশীল দেশের মন্ত্রীরা এ সভায় যোগ দেন।

বাংলাদেশ বিস্ময়কর উন্নয়নে দ্রুত এগিয়ে যাচ্ছে উল্লেখ করে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, ২০২১ সালের আগেই বাংলাদেশ মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হবে। বাংলাদেশ উন্নয়নশীল দেশে পরিণত হওয়ার পর সব দেশের আন্তরিক সহযোগিতা প্রয়োজন। বিশ্ববাণিজ্যে এলডিসিভুক্ত দেশগুলোর সক্রিয় অংশগ্রহণ প্রয়োজন। বহুপক্ষীয় বাণিজ্য ব্যবস্থায় চলমান সমস্যাগুলো চিহ্নিত করে তা সমাধানে ভবিষ্যৎ করণীয় নির্ধারণে ডাব্লিউটিওকে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে হবে।

পরে আনুষ্ঠানিক বৈঠকে টিপু মুনশি ভারতের বাণিজ্য, শিল্প ও বেসামরিক বিমান চলাচল মন্ত্রী সুরেশ প্রভুর সঙ্গে একান্ত বৈঠক করেন। এ সময় তিনি ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের বাণিজ্য উন্নয়নের বিভিন্ন দিক নিয়ে আলোচনা করেন।

বাংলাদেশে আরো বেশি বিনিয়োগের আহ্বান জানিয়ে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে বড় ধরনের ব্যাবসায়িক অংশীদারিত্বের ভিত্তি স্থাপন করা সম্ভব। তিনি বাংলাদেশ থেকে তৈরি পোশাক আমদানি করার জন্য তাদের প্রতি আহ্বান জানান।

ভারতের বাণিজ্য, শিল্প এবং বেসামরিক বিমান চলাচল মন্ত্রী সুরেশ প্রভু বাংলাদেশের উন্নয়নের প্রশংসা করে বলেন, বাংলাদেশ দ্রুত এগিয়ে যাচ্ছে। ভারত বাংলাদেশের উন্নয়নে সব ধরনের সহযোগিতা অব্যাহত রাখবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা