kalerkantho

সোমবার । ২০ মে ২০১৯। ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ১৪ রমজান ১৪৪০

বিনা মূল্যে সিলিন্ডার সেবা দেবে বসুন্ধরা এলপি গ্যাস

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২১ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



বিনা মূল্যে সিলিন্ডার সেবা দেবে বসুন্ধরা এলপি গ্যাস

বসুন্ধরা এলপি গ্যাস সার্ভিস ক্যাম্প সেবার উদ্বোধন উপলক্ষে সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বসুন্ধরা গ্রুপের সেক্টর-এ এর মানবসম্পদ প্রধান ক্যাপ্টেন (অব.) শেখ এহসান রেজাসহ অন্য কর্মকর্তারা। ছবি : কালের কণ্ঠ

সামাজিক দায়বদ্ধতা কর্মসূচির আওতায় অগ্নিকাণ্ড বা দুর্ঘটনা এড়াতে গ্রাহক সচেতনতা ও নিরাপত্তায় বিনা মূল্যে সিলিন্ডার সেবা প্রকল্প চালু করছে এলপিজি খাতের শীর্ষ ব্র্যান্ড বসুন্ধরা এলপি গ্যাস লিমিটেড। সারা দেশে বছরব্যাপী এলপিজি সিলিন্ডার ব্যবহারকারী গ্রাহকদের বাসায় গিয়ে এ সেবা প্রদান করবে তারা। কোনো সার্ভিস চার্জ ছাড়া সিলিন্ডার ব্যবহার ও সতর্কতা বিষয়ে পরামর্শ ও নির্দেশনা দেবে প্রশিক্ষিত টিম। বসুন্ধরা ছাড়াও অন্য কম্পানির সিলিন্ডার ব্যবহারকারীকেও সেবা দেবে।

গতকাল শনিবার বসুন্ধরা ইন্ডাস্ট্রিয়াল হেডকোয়ার্টার-২ সম্মেলন কেন্দ্রে ‘বসুন্ধরা এলপি গ্যাস সার্ভিস ক্যাম্প’ নামে সেবা চালু করতে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানানো হয়। এতে আরো জানানো হয়, পাইলট প্রকল্প হিসেবে আগামী ২৩ এপ্রিল নারায়ণগঞ্জ থেকে কার্যক্রম শুরু হবে। আগ্রহীরা ১৬৩৩৯ হটলাইন নম্বর বা নিকটস্থ ডিস্ট্রিবিউটর/রিটেইল পয়েন্টে যোগাযোগ করে সেবা নিতে পারবে। ক্যাম্পেইন বিষয়ে প্রতিষ্ঠানটির ফেসবুক পেইজ ও পত্রিকায় বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে জানাবে বসুন্ধরা এলপি গ্যাস। সার্ভিস কার্ড ব্যবস্থাও থাকবে যাতে ভালো ব্যবহারকারীর জন্য লাকি কুপন থাকবে, পরবর্তীতে সিলিন্ডার কিনতে ছাড় পাবেন গ্রাহকরা।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বসুন্ধরা গ্রুপের সেক্টর-এ এর মানবসম্পদ প্রধান ক্যাপ্টেন (অব.) শেখ এহসান রেজা, হেড অব বিজনেস ডেভেলপমেন্ট জেড এম আহমেদ প্রিন্স, বসুন্ধরা এলপি গ্যাস লিমিটেডের হেড অব অ্যাকাউন্টস অ্যান্ড ফাইন্যান্স মাহবুব আলম ও বিপণন বিভাগের জিএম জাকারিয়া জালাল।

আয়োজকরা বলছেন, সাম্প্রতিক অগ্নিকাণ্ড কিংবা দুর্ঘটনায় সিলিন্ডার বিস্ফোরণকে দায়ী করা হয়, কিন্তু সঠিকভাবে তৈরি সিলিন্ডারে বিস্ফোরণ হওয়া সহজ নয়, তবে ব্যবহারে দুর্বলতা বা অসচেতনতায় দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। ক্যাম্পেইনে সঠিক ব্যবহার সম্পর্কে গ্রাহককে অবগত করা গেলে দুর্ঘটনা এড়ানো সম্ভব।

শেখ এহসান রেজা বলেন, ‘সামাজিক দায়বদ্ধতা বা সিএসআর কার্যক্রম থেকে এই ক্যাম্পেইন, গ্রাহকরা যেন সিলিন্ডার ব্যবহার করতে গিয়ে কোনো সমস্যার সম্মুখীন না হয়। নিরাপদভাবে সিলিন্ডার ব্যবহার করা বা গ্রাহকদের বার্তা দিতেই এই ক্যাম্পেইন।’

জনসচেতনতামূলক এই ক্যাম্পেইন গ্রাহকদের উপকৃত করবে আখ্যা দিয়ে জেড এম আহমেদ প্রিন্স বলেন, ‘জনসচেতনতা তৈরিতেই এই ক্যাম্পেইন, সিলিন্ডার ব্যবহারকারীদের জন্যই এটা। সিলিন্ডার ব্যবহার সম্পর্কিত বিষয়কে সচেতন করা হবে, যা আগামী ২৩ এপ্রিল থেকে চালু হবে।’

মাহবুব আলম বলেন, ‘অগ্নিকাণ্ড বা দুর্ঘটনা ঘটলেই এলপিজি সিলিন্ডারের ওপর অঙ্গুলি নির্দেশ করা হয়। কিন্তু একটা সিলিন্ডার যে প্রক্রিয়ায় তৈরি হয়, সেটা বিস্ফোরণ হওয়া খুবই কঠিন। কিন্তু ঢালাওভাবে সিলিন্ডারকে দায়ী করা হয়, গণমাধ্যমও অনেক সময় না বুঝে সেটিই লিখে দেয়।’

জাকারিয়া জালাল বলেন, ‘পাইলট প্রকল্প হিসেবে নারায়ণগঞ্জ জেলা থেকে ক্যাম্পেইন শুরু হয়ে, বছরব্যাপী চলবে।’

মন্তব্য