kalerkantho

অফিসার ক্যাডেট নেবে বিমানবাহিনী

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৬ জানুয়ারি, ২০১৯ ১৩:০৩ | পড়া যাবে ৪ মিনিটে



অফিসার ক্যাডেট নেবে বিমানবাহিনী

অফিসার ক্যাডেট চেয়ে বিজ্ঞপ্তি দিয়েছে বাংলাদেশ বিমানবাহিনী। বাছাই পরীক্ষা দেওয়া যাবে ২০ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। বিস্তারিত জানাচ্ছেন পাঠান সোহাগ

পুরুষ ও মহিলা উভয়ই অফিসার ক্যাডেট পদে আবেদন করতে পারবেন। পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হলে ২৯ জুনের মধ্যে যোগ দেওয়া যাবে। বিজ্ঞপ্তিটি প্রকাশিত হয়েছে ৩০ ডিসেম্বর কালের কণ্ঠে। পাওয়া যাবে www.baf.mil.bd,  www.joinbangladeshairforce.mil.bd ওয়েবসাইট, bit.ly/2M8srJT শর্টলিংক অথবা JoinBAF অ্যানড্রয়েড অ্যাপে।

আবেদনের যোগ্যতা
শিক্ষা শাখায় আবেদনের জন্য যেকোনো স্বীকৃত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ন্যূনতম সিজিপিএ ৩.০০সহ মনোবিজ্ঞান, গণিতে স্নাতক সম্মানসহ স্নাতকোত্তর কিংবা বিবিএ (ফিন্যান্স) ও এমবিএ থাকতে হবে। আইন বিষয়ে একই সিজিপিএ পেয়ে অনার্স ও মাস্টার্স করলে আবেদন করা যাবে লিগ্যাল বিভাগে। বাংলাদেশের স্থায়ী নাগরিক হতে হবে। বয়সসীমা ২০ থেকে ৩০ বছর। সাধারণ পুরুষ প্রার্থীর ক্ষেত্রে উচ্চতা ৬৪ ইঞ্চি, বুকের মাপ ৩২ ইঞ্চি (প্রসারিত অবস্থায় ৩৪ ইঞ্চি) হতে হবে। মহিলা প্রার্থীর ক্ষেত্রে উচ্চতা কমপক্ষে ৬২ ইঞ্চি, বুকের মাপ ২৮ ইঞ্চি (প্রসারিত অবস্থায় ৩০ ইঞ্চি) হতে হবে। ওজন থাকতে হবে বয়স ও উচ্চতানুযায়ী। দৃষ্টিশক্তি থাকতে হবে ৬ বাই ৬।

পরীক্ষা কখন কোথায়
পরীক্ষা নেওয়া হবে ঢাকার তেজগাঁওয়ের পুরনো বিমানবন্দরের বাংলাদেশ বিমানবাহিনী তথ্য ও নির্বাচনী কেন্দ্রে। ১৬, ২১, ২৩, ২৮ ও ৩০ জানুয়ারি এবং ৪, ৬, ১১, ১৮ ও ২০ ফেব্রুয়ারি প্রতিদিন সকাল ৮টায় পরীক্ষা নেওয়া হবে। আবেদন প্রক্রিয়া ও পরীক্ষা সংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্য পাওয়া যাবে বিজ্ঞপ্তিতে।

নির্বাচন পদ্ধতি
কয়েকটি ধাপে অফিসার ক্যাডেট নির্বাচন করবে বিমানবাহিনী। প্রথম ধাপে প্রাথমিক লিখিত পরীক্ষা। এই ধাপে আইকিউ, ইংরেজি ও সাধারণ জ্ঞান থেকে প্রশ্ন আসবে। পরে নেওয়া হবে প্রাথমিক ডাক্তারি পরীক্ষা। একই দিনে নেওয়া হবে মৌখিক পরীক্ষা। এই তিনটি পরীক্ষা পাস করলে আন্তঃবাহিনী নির্বাচনী পর্ষদ (আইএসএসবি) কর্তৃক পরীক্ষা নেওয়া হবে। এই পরীক্ষায় পাস করলে কেন্দ্রীয় চিকিত্সা পর্ষদ (সিএমবি) কর্তৃক চূড়ান্ত স্বাস্থ্য পরীক্ষা নেওয়া হবে। চূড়ান্ত নির্বাচন পর্ষদ অফিসার ক্যাডেট নিয়োগ করবে।

আইএসএসবি
লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের ডাকা হবে চার দিনের আইএসএসবি (ইন্টার সার্ভিস সিলেকশন বোর্ড) পরীক্ষায়। প্রথম দিন প্রথমেই বুদ্ধিমত্তা পরীক্ষা। বুদ্ধিমত্তা পরীক্ষার পর প্রার্থীকে পিকচার পারসেপশন অ্যান্ড ডেসক্রিপশন টেস্টে অংশ নিতে হয়। ছবি দেখে ইংরেজিতে একটি গল্প লিখতে হয় এবং এর পক্ষে যুক্তি দেখাতে হয়। পাস করলে ডাকা হয় মনস্তাত্ত্বিক পরীক্ষায়। বাংলা ও ইংরেজি বাক্য রচনা, বাক্য সম্পূর্ণকরণ, ছবি দেখে গল্প লিখন, অসম্পূর্ণ গল্প সম্পূর্ণকরণ ও আত্মসমালোচনা থাকে।

দ্বিতীয় দিন একটি নির্দিষ্ট বিষয়ের ওপর দলগত আলোচনা, বক্তৃতা এবং শারীরিক সামর্থ্যের পরীক্ষা দিতে হয়। নেওয়া হয় মৌখিক পরীক্ষাও। প্রার্থীর পরিবার, পাঠ্যপুস্তক, নিজের সম্পর্কে নানা প্রশ্ন করা হতে পারে। এর মাধ্যমে প্রার্থীর সাহস, আত্মবিশ্বাস, ব্যক্তিত্ব, যোগ্যতা, তাত্ক্ষণিক বুদ্ধি ইত্যাদি বিষয় যাচাই করা হয়।

তৃতীয় দিন প্রার্থীর প্ল্যানিং ও কমান্ড টেস্ট। এর মাধ্যমে প্রার্থীর নেতৃত্ব ও পরিকল্পনার দক্ষতা যাচাই করা হয়ে থাকে। শেষ দিন সাধারণত কোনো পরীক্ষা দিতে হয় না। এ দিন ফল ঘোষণা করা হয়। যারা উত্তীর্ণ হয়, তাদের দেওয়া হয় গ্রিনকার্ড। আর যারা উত্তীর্ণ হতে পারে না, তাদের দেওয়া হয় রেড কার্ড। আইএসএসবি প্রস্তুতি সম্পর্কে বিস্তারিত জানা যাবে .িরংংন-নফ.ড়ত্ম ওয়েবসাইটে।

ভাতা ও সুযোগ-সুবিধা
প্রশিক্ষণকালীন বিনা মূল্যে থাকা-খাওয়া ও চিকিত্সাসহ অফিসাররা মাসিক বেতন ১০ হাজার টাকা করে পাবেন। ছয় মাস মেয়াদি প্রশিক্ষণ শেষে সরাসরি ‘ফ্লাইং অফিসার’ পদে নিয়মিত কমিশন দেওয়া হবে। তখন বাংলাদেশ বিমানবাহিনীর নিয়মানুসারে পাওয়া যাবে বেতন-ভাতা ও অন্য সুযোগ-সুবিধা।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা