kalerkantho

জর্দান যাবে ১২০০ নারী কর্মী

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৬ ডিসেম্বর, ২০১৮ ১৩:০৩ | পড়া যাবে ৪ মিনিটে



জর্দান যাবে ১২০০ নারী কর্মী

সরকারিভাবে জর্দানের তিন প্রতিষ্ঠানে নেওয়া হবে ১১৯৬ জন গার্মেন্টকর্মী। প্রতিষ্ঠানভেদে এ প্রক্রিয়া চলবে জানুয়ারির ২৫ তারিখ পর্যন্ত। বিস্তারিত জানাচ্ছেন ফরহাদ হোসেন

সরকারি প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ ওভারসিজ এমপ্লয়মেন্ট অ্যান্ড সার্ভিসেস লিমিটেডের (বোয়েসেল) মাধ্যমে জর্দানের ক্লাসিক ফ্যাশন অ্যাপারেল ইন্ডাস্ট্রিজ ৮৫০ জন, হাই-টেক টেক্সটাইল ১৫১ জন এবং তুশকার অ্যাপারেল ১৯৫ জন মহিলা মেশিন অপারেটর নেবে। এরই মধ্যে শুরু হয়েছে কর্মী বাছাই ও নির্বাচন প্রক্রিয়া।

আবেদনের যোগ্যতা
মেশিন অপারেটর পদে নারী প্রার্থীকে বাংলাদেশের যেকোনো তৈরি পোশাক কারখানায় মেশিন অপারেটর পদে কাজের অভিজ্ঞতা থাকতে হবে। বয়সসীমা ১৮ থেকে ৩০ বছর। ন্যূনতম অক্ষরজ্ঞান থাকতে হবে। দেশের বাইরে কাজ করার মানসিকতা ও ভালো স্বাস্থ্যের অধিকারী হতে হবে। বাংলাদেশের পাসপোর্টধারী হতে হবে, থাকতে হবে পাসপোর্টের মেয়াদ।

সঙ্গে রাখতে হবে
ক্লাসিক ফ্যাশন অ্যাপারেল ইন্ডাস্ট্রি ও হাই-টেক টেক্সটাইলে সাক্ষাত্কারের সময় সাদা ব্যাকগ্রাউন্ডে চার কপি পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ছবি, মূল পাসপোর্ট ও মূল পাসপোর্টের ছবিযুক্ত অংশের এক সেট রঙিন ও চার সেট সাদাকালো ফটোকপি সঙ্গে রাখতে হবে। তুশকার অ্যাপারেলের জন্য সাদা ব্যাকগ্রাউন্ডে চার কপি পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ছবি, মূল পাসপোর্ট ও পাসপোর্টের ছবিযুক্ত অংশের এক সেট রঙিন ও তিন সেট সাদাকালো ফটোকপি রাখতে হবে। এ ছাড়া বর্তমান অফিসের পরিচয়পত্র অথবা হাজিরা কার্ড, শিক্ষাগত যোগ্যতা ও অভিজ্ঞতার সনদ (যদি থাকে) সঙ্গে রাখতে হবে।

পরীক্ষা কোথায় কখন
বোয়েসেলের ম্যানেজার (ওভারসিজ অ্যান্ড এমপ্লয়মেন্ট) নোমান চৌধুরী জানান, নিয়োগ কর্তৃপক্ষ সুইং মেশিনে টেস্ট এবং একই দিনে সাক্ষাত্কার নিয়ে প্রার্থী বাছাই করবে। জর্দানের ক্লাসিক ফ্যাশন অ্যাপারেল ইন্ডাস্ট্রিজের আগ্রহী প্রার্থীদের আগামী ২৮ ডিসেম্বর বাংলাদেশ-জার্মান টেকনিক্যাল ট্রেনিং সেন্টার, মিরপুর-২ ঠিকানায় সকাল ৭টায় হাজির হয়ে বাছাই পরীক্ষায় অংশ নিতে হবে। হাই-টেক টেক্সটাইলে ২৮ ডিসেম্বর বাংলাদেশ-কোরিয়া টেকনিক্যাল ট্রেনিং সেন্টার, মিরপুর রোড, দারুস সালাম, ঢাকায় সকাল ৮টায় এবং তুশকার অ্যাপারেলের পরীক্ষা হবে ২৮ ডিসেম্বর ও ৪, ১১, ১৮, ২৫ জানুয়ারি শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব মহিলা টেকনিক্যাল ট্রেনিং সেন্টার, দারুস সালাম রোড, মিরপুর, ঢাকায় সকাল ৮টায়।

বাছাইয়ে যা দেখা হয়
নোমান চৌধুরী জানান, সুইং মেশিনে কাজ দিয়ে দেখা হবে কাজের দক্ষতা। একই সঙ্গে কাজের মান, সময় কেমন লাগছে সেটাও দেখবেন কম্পানির ডেলিগেটরা। যোগ্যদের ভাইভা বা সাক্ষাত্কারের জন্য মনোনীত করা হবে। ভাইভা বোর্ডে বোয়েসেল ও কম্পানির প্রতিনিধিরা থাকবেন। ভাইভায় প্রার্থীর নিজের সম্পর্কে, কাজের বিষয়ে ও পারিবারিক বিষয়ে জানতে চাওয়া হয়। বিদেশে কাজে যাওয়ার আগ্রহ, স্বাস্থ্যগত দিক ও পরিবারের সম্মতি ইত্যাদি বিষয়ও দেখা হবে এতে। 

খরচাপাতি
বাংলাদেশ ওভারসিজ এমপ্লয়মেন্ট অ্যান্ড সার্ভিসেস লিমিটেডের উপমহাব্যবস্থাপক (চলতি দায়িত্ব, হিসাব ও অর্থ) নুর আহমেদ জানান, জর্দানের ক্লাসিক ফ্যাশন অ্যাপারেল ইন্ডাস্ট্রিজ ও তুশকার অ্যাপারেল নির্বাচিত প্রার্থীদের বোয়েসেলের সব ফি পরিশোধ করবে। ভিসা ও যাওয়া-আসার বিমান টিকিটও নিয়োগ কর্তৃপক্ষ দেবে। শুধু মেডিক্যাল ফির জন্য ১০০০ টাকা, ফিঙ্গার প্রিন্টের ফি বাবদ ২২০ টাকা এবং অঙ্গীকারনামার স্ট্যাম্প ক্রয়ের জন্য ৩০০ টাকা খরচ করতে হবে। তুশকার অ্যাপারেলের কর্মীদের বোয়েসেলের সব চার্জ বাবদ ১৭ হাজার ৭৫০ টাকা পে-অর্ডারের মাধ্যমে জমা দিতে হবে। এ ছাড়া আর কোনো টাকা লাগবে না।

বেতন-ভাতা
জর্দানের ক্লাসিক ফ্যাশন অ্যাপারেল ইন্ডাস্ট্রিজ প্রতি মাসে বাংলাদেশি টাকায় মূল বেতন দেবে ১৪ হাজার ৬৮৭ টাকা। হাই-টেক টেক্সটাইলস ও তুশকার অ্যাপারেলের কর্মীরা পাবেন প্রায় ১৫ হাজার টাকা। প্রতিদিন আট ঘণ্টার সঙ্গে দুই ঘণ্টা ওভারটাইম করতে হবে। ছুটির দিনগুলোতে ডিউটি করলে পাওয়া যাবে বাড়তি টাকা। ওভারটাইমসহ সব মিলে একজন কর্মীর মাসিক বেতন পড়বে ২০ থেকে ২২ হাজার টাকা। নিয়োগকারী প্রতিষ্ঠান কর্মীদের থাকা, খাওয়া, চিকিত্সা ও যাতায়াতের যাবতীয় সুবিধা দেবে। এ ছাড়া হাজিরা ভাতা, টার্গেট ভাতা, বাত্সরিক ইনক্রিমেন্ট, উত্সব বোনাসসহ অন্যান্য সুবিধা দেওয়া হবে। যাওয়া-আসার বিমান ভাড়াও নিয়োগকারী কম্পানি বহন করবে।

যোগাযোগ
বোয়েসেল, প্রবাসী কল্যাণ ভবন, ৭১-৭২ ইস্কাটন গার্ডেন রোড, রমনা, ঢাকা-১০০০।

ফোন : ০২-৯৩৩৬৫০৮, ৯৩৬১৫১৫

ওয়েব : http://www.boesl.org.bd

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা