kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২০ জুন ২০১৯। ৬ আষাঢ় ১৪২৬। ১৬ শাওয়াল ১৪৪০

বিএনপি অফিসে ছাত্রদলের তালা বিক্ষোভ

বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন

নিজস্ব প্রতিবেদক    

১২ জুন, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



বিএনপি অফিসে ছাত্রদলের তালা বিক্ষোভ

বয়সের সীমারেখা না রাখাসহ তিন প্রস্তাবের ভিত্তিতে কমিটি গঠনের দাবিতে গতকাল মঙ্গলবার রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে দিনভর বিক্ষোভ করেছে ছাত্রদলের বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মীরা। বিক্ষোভের মধ্যে তারা কার্যালয়ের বিদ্যুৎ সংযোগ কয়েক দফা বন্ধ করে দেয়। একপর্যায়ে ভেতরে ঢুকে অফিস কর্মচারীসহ কয়েকজন ছাত্রনেতাকেও বের করে দেয় তারা। এ সময় ছাত্রদলের সাবেক কয়েকজন নেতা কার্যালয়ে এসেও বাধার মুখে ভেতরে ঢুকতে পারেননি। পরে তাঁরা গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের কার্যালয়েগিয়ে লন্ডনে অবস্থানরত দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সঙ্গে স্কাইপে উদ্ভূত পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা করেন। সন্ধ্যার দিকে বিক্ষুব্ধ ছাত্রদল নেতাদের একটি প্রতিনিধিদলকে ডাকা হয় সেখানে। রাত সাড়ে ৮টায় এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত তাঁদের মধ্যে বৈঠক চলছিল।

দলের যুগ্ম মহাসচিব অসুস্থ রুহুল কবীর রিজভী এ সময় বিএনপি কার্যালয়ের তৃতীয় তলায় অবস্থান করছিলেন। তাঁর সঙ্গে দুজন অফিস কর্মী ও চিকিৎসক ছিলেন। রাতেও বিক্ষুব্ধ ছাত্রদল নেতাকর্মীদের কার্যালয়ের সামনে অবস্থান নিয়ে থাকতে দেখা গেছে।

কার্যালয়ে তালা : সকাল ১০টা থেকেই বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মীরা কার্যালয়ের সামনে অবস্থান নিতে শুরু করে। এরপর বেলা সকাল ১১টার দিকে দরোজায় তালা দিয়ে কার্যালয়ের সামনে অবস্থান নেয় তারা। নিচতলায় তাদের একটি অংশ অনশন কর্মসূচিতেও বসে। বিক্ষুব্ধদের দাবি, ছাত্রদলের কমিটি ভেঙে দেওয়ার সংবাদ বিজ্ঞপ্তি প্রত্যাহার করতে হবে। ছাত্রদল যে তিনটি প্রস্তাবনা দিয়েছিল সে অনুযায়ী নতুন কেন্দ্রীয় সংসদ গঠন করতে হবে। তারা এ সময় ‘সরকারের দালালরা হুঁশিয়ার, সাবধান’, ‘আমাদের অধিকার দিতে হবে দিতে হবে’সহ উত্তেজনাপূর্ণ স্লোগান দেয়।

অন্যদিকে বিক্ষোভ শুরুর আগেই সকাল ১০টার দিকে সাবেক ছাত্রদল নেতা খায়রুল কবীর ও আজিজুল বারী হেলাল কার্যালয়ে ঢুকে যান। রিজভীর চিকিৎসা দিয়ে চিকিৎসকরা সাড়ে ১২টার দিকে অফিস থেকে যাওয়ার সময় এই দুই নেতাও বের হন। এ সময় বিক্ষুব্ধরা ‘ভুয়া’ ‘ভুয়া’ বলে স্লোগান দেয়। বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান বরকতউল্লা বুলু, বিশেষ সম্পাদক শামসুর রহমান শিমুল বিশ্বাস আদালতে হাজিরা দিয়ে সাড়ে ১১টার দিকে কার্যালয়ের সামনে এলে বিক্ষুব্ধদের সামনে পড়েন।

২৪ ঘণ্টার জন্য প্রত্যাহার : টানা ১১ ঘণ্টা বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের প্রধান ফটক তালাবদ্ধ রাখার পর তা ফের খুলে দিয়েছে বিক্ষোভকারীরা। মঙ্গলবার রাত ১০টায় মেয়াদোত্তীর্ণ কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বিক্ষোভকারীদের নেতৃত্বদানকারী অন্যতম নেতা আসাদুজ্জামান আসাদ বলেন, ‘আমরা অবস্থান কর্মসূচি এক দিনের জন্য স্থগিত করেছি। আশা করি, এর মধ্যে আমাদের দাবিসমূহ বিবেচনায় নেবে দল।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা