kalerkantho

সোমবার । ৫ ডিসেম্বর ২০২২ । ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ । ১০ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

উত্তরায় জীবন্ত সাপ নিয়ে শুটিং করলেন দোদুল

বিনোদন প্রতিবেদক   

১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২২ ১৬:৩২ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



উত্তরায় জীবন্ত সাপ নিয়ে শুটিং করলেন দোদুল

সাপ নিয়ে শুটিংয়ের সময় দোদুল

দীর্ঘ ১৫ বছরের বিরতি শেষে আবারও অভিনয়ে করলেন জনপ্রিয় নির্মাতা সাজ্জাদ হোসেন দোদুল। দুই বছর আগে স্ত্রী-নির্মাতা লাজুকের অনুরোধে একটি নাটকে তার অভিনয় করার কথা থাকলেও শেষ পর্যন্ত কাজটি করা হয়নি। এই দীর্ঘ বিরতিতে তাকে অভিনয়ে না পাওয়া গেলেও নির্মাণ নিয়েই ব্যস্ত ছিলেন তিনি।

তবে এবারে ক্যামেরার সামনে ফেরাটা ছিল বেশ চ্যালেঞ্জিং।

বিজ্ঞাপন

অন্তত সোমবার দুপুরে কালের কণ্ঠের সঙ্গে আলাপকালে এমনটাই জানালেন দোদুল। বললেন, ‘একদম ভয়ঙ্কর গোখরো সাপ নিয়ে শুটিং করেছি। এটা আমার জন্য বেশ চ্যালেঞ্জিং ছিল। শেষ পর্যন্ত শুটিং সম্পন্ন করতে পেরেছি। ’

রাজধানীর উত্তরায় সাপ নিয়ে শুটিং করতে গিয়ে ইউনিটের সবাই আতঙ্কিত ছিল জানিয়ে দোদুল কালের কণ্ঠকে বলেন, এটা এমন একটা শট যা সবাই সহ্য করতে পারে না। একমাত্র আবু হুরাইরা তানভীর সাপকে ভয় পায়নি। যার ফলে শুটিং সম্ভব হয়েছে। প্রথমে সাপকে আমার পোষ মানাতে হয়েছে, আসলে পোষ মানানো না, বলতে গেলে আমার প্র্যাক্টিস। দীর্ঘ সময় সাপের মাথা চেপে ধরে প্র্যাক্টিস করেছি। ’

সাপ নিয়ে দোদুলের পূর্বের অভিজ্ঞতা রয়েছে জানিয়ে কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘আমার গ্রামের বাড়ি শেরপুরের নালিতাবাড়ি। আমি আরেকজনসহ খেতের মধ্য দিয়ে যাচ্ছিলাম। সে সময় আমার আমাদের সামনে একটা গোখরো সাপ চলে আসে। সাপটি কামড় দিলে আমার সাথের জনকেই কামড় দেবে, কারণ সে আমার সামনে। আমি দ্রুত সিদ্ধান্ত নিলাম। কোনোমতে নিজেকে কায়দা করে সাপের পেছনে নিয়ে এলাম। এরপর লেজ ধরে ফেললাম। জানি লেজ ধরলে সাপ ক্ষমতা হারিয়ে ফেলে। পরে দূরে ছড়িয়ে পড়বে। ’

১৫ বছর পর নিজের পরিচালিত ধারাবাহিক নাটক দিয়ে অভিনয়ে ফিরলেন দোদুল। নতুন এই ধারাবাহিকের নাম ‘মুসা’। গত ২ আগস্ট থেকে তারকাবহুল এই ধারাবাহিকটি বৈশাখী টিভিতে প্রতি মঙ্গল, বুধ ও বৃহস্পতিবার রাত ৯টা ২০ মিনিটে প্রচার হচ্ছে। আগামীকাল মঙ্গলবার (২০ সেপ্টেম্বর) ধারাবাহিকটির ২২ তম পর্ব প্রচার হবে। নতুন পর্বে দেখা মিলবে অভিনেতা দোদুলকে।  

অভিনয়ে ফেরা প্রসঙ্গে দোদুল বলেন, ‘নিজের আগ্রহতেই এবার অভিনয়ে ফিরেছি। তবে অনেকেই আমাকে অভিনয়ে দেখতে চায়। অভিনয়ের জন্য তাদের থেকে এক ধরনের চাপ রয়েছে। অভিনয় করার আগ্রহ থাকলেও সেভাবে সময় দিতে পারছি না। অভিনয়কে ভালোবেসেই মিডিয়ায় নাম লেখিয়েছিলাম কিন্তু বিভিন্ন কারণে স্থায়ী হতে পারিনি। এরপর নির্মাণে ব্যস্ত হয়ে যাই। মাঝে মধ্যে অনুরোধে কাজ করলেও এবার সিদ্ধান্ত নিয়েছি এখন থেকে নিয়মিত কাজ করব।

‘মুসা’ ধারাবাহিকে রঘু চরিত্রে অভিনয় করেছেন দোদুল। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ধারাবাহিকের গল্পটি অপরাধ জগতের। নাটকটি লিখতে গিয়ে অনেককিছু সম্পর্কে খোঁজ খবর নিতে হয়েছিল। তবে এই গল্পে একেবারে সত্যি ঘটনা উঠে না এলেও একরকম তার ছায়া অবলম্বনে নির্মিত হয়েছে। রঘু ভয়ংকর একটি চরিত্র। যার বাম চোখ অন্ধ, একজন পেশাদার খুনি। জীবন্ত সাপ নিয়ে আছে দারুণ সব গল্প। রাজধানী শহর রঘুর কথায় চলে। এমনই একটি চ্যালেঞ্জিং চরিত্র দিয়ে অভিনয়ে ফিরলাম। আশা করছি, দর্শকদের ধারাবাহিক নাটকটি ও রঘু চরিত্র পছন্দ হবে।

ঢাকার আন্ডারওয়ার্ল্ডের গল্প নিয়ে নির্মিত তারকাবহুল দীর্ঘ ধারাবাহিক ‘মুসা’র কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেছেন অভিনেতা আবু হুরায়রা তানভীর। এর বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন শিল্পী সরকার অপু, শম্পা রেজা, শামীমা নাজনীন, সুব্রত, মিলন ভট্টাচার্য, ইমতু রাতিশ, সাব্বির আহমেদ, নাইরুজ সিফাত, জেবা জান্নাত প্রমুখ।

https://www.facebook.com/binodon.kalerkantho/videos/2015587835497016


সাতদিনের সেরা