kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ । ১৪ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ২ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

টিকিট নেই, বাধ্য হয়ে ‘পরাণ’ ও ‘হাওয়া’র পুরো শো কিনে নিলেন

বিনোদন প্রতিবেদক   

১৪ আগস্ট, ২০২২ ১৩:০৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



টিকিট নেই, বাধ্য হয়ে ‘পরাণ’ ও ‘হাওয়া’র পুরো শো কিনে নিলেন

সাব্বির ও সালমিন

‘পরাণ’ ও ‘হাওয়া’ সিনেমা দুটি মুক্তি পেয়েছে অস্ট্রেলিয়ায়। সেখানেও একই অবস্থা। দুটি সিনেমার অগ্রিম টিকিট নিয়ে সেখানকার বাঙালি দর্শকের এখন হাহাকার! অনেকেই আফসোস করে বলছিলেন, ‘টিকিট পাচ্ছি না। তাহলে কি প্রথম সপ্তাহে সিনেমা দুটি দেখতে পারব না!’

সাব্বির চৌধুরীর দীর্ঘদিনের বন্ধু সালমিন সুলতানা তানহা।

বিজ্ঞাপন

তিনিও তাঁর পরিবার ও বন্ধুদের জন্য টিকিট পাচ্ছিলেন না। পরে মাথায় বুদ্ধি আসে। দুই বন্ধু পরিকল্পনা করলেন এই সিনেমা দুটির একটি করে পুরো শো কিনে নিলে কেমন হয়? যেই ভাবা সেই কাজ। ‘হাওয়া’ এবং ‘পরাণ’-এর অস্ট্রেলিয়ান ডিস্ট্রিবিউটরদের সঙ্গে যোগাযোগ করলেন। তারপর আলোচনার মাধ্যমে তাঁদের থেকে কিনে নিলেন দুই সিনেমার দুই শো।  

আজ রবিবার সিডনির হয়েটস ব্যাংকসটাউন সিনেমাসে স্থানীয় সময় সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার শোতে দেখবেন ‘হাওয়া’ এবং আগামী শনিবার একই সময়ে দেখবেন ‘পরাণ’।  

সাব্বির বলেন, ‘অতীতে আমি অস্ট্রেলিয়ায় বাংলা সিনেমা ডিস্ট্রিবিউশন করেছি। তা ছাড়া এখানে বহু বছর থাকার কারণে অনেক বড় একটা অডিয়েন্স আমাকে চেনেন। তাঁরা আমাকে পারসোনালি ও ফেসবুকে বিভিন্ন বাংলাদেশি অস্ট্রেলিয়ান গ্রুপে টিকিট না পাওয়ার কথা জানাচ্ছিলেন। আমি যেহেতু সব সময়ই কাজ করি অডিয়েন্সের জন্য, সেখান থেকেই আমি ইনিশিয়েটিভটা নিই। ’ 

সালমিন জানালেন তিনি এমন মধুর সমস্যায় পড়েছেন। বললেন, ‘দুজনে মিলে সিদ্ধান্ত নিলাম স্পেশাল কোনো শো করা যায় কি না। অস্ট্রেলিয়ায় সিনেমা দুটির পরিবেশকের সঙ্গে যোগাযোগ করলে আশানুরূপ সাড়া পাই। তারা সম্মত হন, আমাদের জন্য দুই শোয়ের ব্যবস্থা করে দেবেন। তাঁদের ধন্যবাদ জানাতে চাই আমাদের অনুরোধ রেখেছেন বলে। ’

সালমিন বলেন, ‘ব্যাপারটি নিঃসন্দেহে আনন্দদায়ক। শুধু বাঙালিরা নন, অনেক ভারতীয়, পাকিস্তানি বা অস্ট্রেলিয়ান বন্ধুও সিনেমাটি দেখার আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। এটা আমার কাছে খুব গর্বের বিষয়। ইতিমধ্যে আমার অনেক ভারতীয় বন্ধু সিনেমাগুলো দেখে প্রশংসাও করেছে। ’ 

জানা গেছে,  অস্ট্রেলিয়ায় ‘হাওয়া’র প্রথম দুই সপ্তাহের সিডনি ও মেলবোর্ন শহরের সবগুলো শোর টিকিট বিক্রি শেষ! পরিবেশকরা জানান, টিকিট ছাড়ার চার দিনের মধ্যেই এই বৃহৎ দুই শহরের সবগুলো শোর টিকিট অগ্রিম বিক্রি হয়ে গেছে। এবং একে একে প্রায় সব স্টেটে এ মুভির শো চলছে এবং চলবে যত দিন ডিমান্ড থাকবে।



সাতদিনের সেরা