kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৬ অক্টোবর ২০২২ । ২১ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

মেসেজ কেলেঙ্কারিতে পড়েছিলেন যেসব দক্ষিণী সুন্দরী

বিনোদন ডেস্ক   

১৩ আগস্ট, ২০২২ ১৫:২০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মেসেজ কেলেঙ্কারিতে পড়েছিলেন যেসব দক্ষিণী সুন্দরী

অঞ্জলি অরোরা (বামে), জ্যোতিকা (মাঝে), নয়নতারা (ডানে)

সম্প্রতি ‘লক আপ’ খ্যাত তারকা অঞ্জলি অরোরার একটি এমএমএস ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফাঁস হয়ে গেছে, যা সবাইকে হতবাক করে দিয়েছে। ভিডিওটি নিয়ে নেট দুনিয়ায় বেশ আলোচনায় আছেন এই অভিনেত্রী।  এর আগেও দক্ষিণের অভিনেত্রীদের মধ্য রানীজথা, নয়নতারা, জ্যোতিকাসহ আরো কয়েকজন অভিনেত্রীর এমএমএস কেলেঙ্কারি জাতিকে হতবাক করেছিল। দক্ষিণের যে ছয়জন অভিনেত্রীর এমএমএস কেলেঙ্কারি ইতিমধ্যে আলোড়ন ফেলেছে নেট দুনিয়ায়, তাদের বিষয়েই একটু চোখ বোলানো যাক।

বিজ্ঞাপন

 

অঞ্জলি অরোরা
‘লক আপ’ প্রতিযোগী অঞ্জলি অরোরার একটি এমএমএস ভিডিও সম্প্রতি ফাঁস হয়েছে। তবে মনে করা হচ্ছে ভিডিওটি জাল। এ বিষয়ে অঞ্জলি বলেন, তাঁর মুখাবয়ব এডিট করে এটি বানানো হয়েছে। যদিও অঞ্জলিকে এমএমএস স্ক্যান্ডাল ভিডিওতে দেখা যায়নি, তবে তাঁর মতোই একই চেহারার একজনকে দেখা গেছে।

জ্যোতিকা
দক্ষিণের আরেক জনপ্রিয় অভিনেত্রী জ্যোতিকারও এমএমএস ভিডিও ভাইরাল হয়েছিল। তবে সেই ভিডিওকে ভুয়া বলেছেন তিনি। জনসমক্ষে তাঁর ভাবমূর্তি নষ্ট করার চেষ্টা চলেছে বলে দাবি জানিয়েছেন এই অভিনেত্রী।

নয়নতারা
বিচ্ছেদের পরও সাবেক প্রেমিক সিম্বুর সঙ্গে নয়নতারার চুম্বনরত একটি ছবি ফাঁস হয়ে গিয়েছিল সম্প্রতি। যা নিয়ে নেট দুনিয়ায় শুরু হয়েছিল বেশ শোরগোল। যদিও দুজনের কেউই এ বিষয় নিয়ে মুখ খোলেননি।

তৃষা কৃষ্ণান
দক্ষিণী তারকা তৃষা কৃষ্ণানও হঠাৎ শিরোনামে এসেছিলেন এক ভাইরাল ভিডিও দিয়ে। সেটা ছিল তাঁর মডেলিংয়ের সময়কার চেহারার একটি ভিডিও। তাঁর মতোই দেখতে একটি মেয়ের গোসল করার ক্লিপ ছিল সেটি। যদিও তৃষা নিজেকে নির্দোষ দাবি করে বলেন, এটা তাঁর নয়।  

আন্দ্রেয়া জেরেমিয়াহ
দক্ষিণের আরেক অভিনেত্রী আন্দ্রেয়া জেরেমিয়াহ ও অনিরুদ্ধ রবিচন্দরের চুম্বনের ছবিটি দ্রুতগতিতে ভাইরাল হয়েছিল। এতে করে অনেকটা বিব্রত অবস্থায় পড়েন এই অভিনেত্রী। তবে তাঁরা দুজন শিগগিরই আলাদা হয়ে গেলেও একে অপরের সাথে সৌহার্দ্যপূর্ণ ছিলেন।

রানীজথা
প্রাক্তন দক্ষিণী অভিনেত্রী রানীজথারও ধর্মগুরু স্বামী নিত্যানন্দের সঙ্গে যৌন কেলেঙ্কারির কিছু ছবি ও ভিডিও ফাঁস হয়ে গিয়েছিল। এ ঘটনার পর রানীজথা আত্মগোপনে চলে গিয়েছিলেন। তারপর তিনি অভিযোগ দায়ের করেছিলেন যে এগুলো তাঁর ছবি বা ভিডিও নয়। পরে এগুলোকে এডিট করা উল্লেখ করে ভিডিওটি সম্প্রচার করা বিভিন্ন নিউজ চ্যানেলকে ক্ষমা চাওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল।

সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা



সাতদিনের সেরা