kalerkantho

শনিবার । ১৩ আগস্ট ২০২২ । ২৯ শ্রাবণ ১৪২৯ । ১৪ মহররম ১৪৪৪  

মারা গেছেন সংগীতশিল্পী তপুর বাবা

বিনোদন প্রতিবেদক   

২২ জুলাই, ২০২২ ১২:০৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মারা গেছেন সংগীতশিল্পী তপুর বাবা

বাবার সঙ্গে তপু

মারা গেছেন সংগীতশিল্পী রাশেদ উদ্দিন আহমেদ তপুর বাবা শামসুদ্দিন আহমেদ। আজ শুক্রবার ভোর ৪টায় হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে তার মৃত্যু হয়।
 
তপু, এদিন ভোরে হঠাৎ করেই তার বাবার শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়। এরপর দ্রুত হাসপাতালেও নেওয়া হয়েছিল।

বিজ্ঞাপন

কিন্তু বাঁচানো সম্ভব হয়নি। হাসপাতালেই হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে মারা যান তিনি।
 
তপু জানিয়েছেন, তার বাবার প্রথম জানাজা হবে বারিধারা ডিওএইচএস এলাকায়। এরপর মরদেহ নিয়ে যাওয়া হবে তাদের গ্রামের বাড়ি ভোলায়। সেখানেই দাফন করা হবে প্রয়াতকে।
 
তপুর সংগীতজীবন শুরু হয়েছিল বাবার উপহার দেওয়া একটি গিটারের মাধ্যমে।  মেধাবী তপু এসএসসি পরীক্ষায় যশোর বোর্ড থেকে বিজ্ঞান বিভাগে দশম স্থান অর্জন করেছিলেন। সেই খুশিতে বাবা জানতে চান, তার কী পছন্দ। বাবার কাছে গিটারের আবদার করেন কিশোর তপু। বাবাও ছেলের আবদার রাখেন সানন্দে।
 
বাবার উপহার দেওয়া সেই গিটারে টুংটাং করতে করতে সুরের ভুবনে প্রবেশ করেন তপু। সেই বাবাকে হারিয়ে মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছেন গায়ক। প্রয়াত বাবার জন্য সবার কাছে দোয়া চেয়েছেন তিনি।
 
তপুর জনপ্রিয় কয়েকটি গান হলো- ‘এক পায়ে নূপুর’, ‘একটা গোপন কথা’, ‘বন্ধু ভাবো কী’, ‘মন ভালো নেই’, ‘ভুবন ডাঙার হাসি’।


সাতদিনের সেরা