kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৬ আগস্ট ২০২২ । ১ ভাদ্র ১৪২৯ । ১৭ মহররম ১৪৪৪

সেকরেড গেমস অভিনেত্রী কুব্রা সাইতের স্বীকারোক্তি

‘মা হতে প্রস্তুত নই তাই আমাকে এমন সিদ্ধান্ত নিতে হয়েছে’

বিনোদন ডেস্ক   

৩ জুলাই, ২০২২ ১৬:৫৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



‘মা হতে প্রস্তুত নই তাই আমাকে এমন সিদ্ধান্ত নিতে হয়েছে’

কুব্রা সাইত

ভারতীয় অভিনেত্রী কুব্রা সাইত নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকী ও সাইফ আলী খান অভিনীত নেটফ্লিক্সের হিট সিরিজ ‘সেকরেড গেমস’-এ কুকু চরিত্রে অভিনয় করে সবচেয়ে বেশি পরিচিতি পেয়েছিলেন। এর পরও করেছেন ‘জওয়ানি জানেমন’, ‘গলি বয় সুলতান’-এর মতো জনপ্রিয় সিনেমা।  

কুব্রার নতুন সিনেমা এ মাসের ২২ তারিখে মুক্তি পেতে যাচ্ছে। ছবি মুক্তির আগেই ব্যক্তিগত বিষয় নিয়ে আলোচনায় এলেন এই অভিনেত্রী।

বিজ্ঞাপন

সম্প্রতি, ‘ওপেন বুক : নট কোয়াইট অ্যা মেমোয়্যার’ শিরোনামের একটি বই লিখে একজন লেখক হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেছেন। এই গ্রন্থে তিনি তাঁর বেঙ্গালুরুতে বেড়ে ওঠা নিয়ে অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য লিখেছেন। এমনকি ছোটবেলা থেকে তিনি কিভাবে লড়াই করে চলেছেন সমাজের সঙ্গে, সবটাই তুলে ধরেছেন। তাঁর শারীরিক চিত্রের সমস্যা, সামাজিক উদ্বেগ, কিশোর বয়সে পারিবারিক বন্ধুর দ্বারা তাঁকে শ্লীলতাহানি করা, এবং একটি অভূতপূর্ব গর্ভাবস্থার সব কিছুর সঙ্গে দীর্ঘ সংগ্রাম করতে হয়েছে তাঁকে।

কুব্রা সাইত তাঁর সাম্প্রতিক একটি সাক্ষাৎকারে বলেছেন, তিনি তাঁর জীবনের সেই পর্বগুলো নিয়ে আর কোনো অনুশোচনা করেন না। কুব্রা ২০১৩ সালে আন্দামানে ছুটি কাটাতে গিয়ে একটি অভিজ্ঞতা শেয়ার করেছেন।

রচিত বইয়ে লিখেছেন, ‘আমি মা হতে প্রস্তুত ছিলাম না। ’

বই লিখেছেন, তিনি সে সময়ে রাতে স্কুবা ডাইভিং করার সময় কয়েকটি পানীয় পান করে ফেলেছিলেন এবং তার পরেই তাঁর এক বন্ধুর সঙ্গে শারীরিক ঘনিষ্ঠতা হয়। এর কয়েক দিন পরেই তাঁর ‘পিরিয়ডস’ মিস হতে শুরু করে এবং তিনি প্রেগন্যান্সি পরীক্ষা করান। রিপোর্ট পজিটিভ আসে।

এ প্রসঙ্গে অভিনেত্রী বলেন, ‘এক সপ্তাহ পরে আমি গর্ভাবস্থা বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। তবে আমি এর জন্য প্রস্তুত ছিলাম না। আমি যেভাবে আমার জীবন পরিকল্পনা করেছিলাম, তা ঠিক ছিল না। ’

ভারতীয় একটি বেসরকারি সংবাদমাধ্যমের সাম্প্রতিক সাক্ষাৎকারে কুব্রা তাঁর অভিজ্ঞতার কথা শেয়ার করে জানান, এই জীবন নিয়ে তাঁর কোনো অনুশোচনা নেই। কুব্রা আরো ব্যাখ্যা করে বলেছেন, তিনি জীবনের সেই সময়ে মা হতে একেবারেই প্রস্তুত ছিলেন না এবং তিনি এখনো প্রস্তুত নন। তিনি সামাজিক সীমাবদ্ধতা একেবারেই মানেন না। ২৩ বছরের মধ্যে বিয়ে করতে হবে এবং ৩০ বছরের মধ্যে একটি সন্তানের জন্ম দিতে হবে, এই প্রথা একেবারেই বিশ্বাস করেন না।



সাতদিনের সেরা