kalerkantho

সোমবার । ১৫ আগস্ট ২০২২ । ৩১ শ্রাবণ ১৪২৯ । ১৬ মহররম ১৪৪৪

প্রধানমন্ত্রীকে অভিনন্দন জানাতে রাজপথে চলচ্চিত্রশিল্পীরা

বিনোদন প্রতিবেদক   

২৭ জুন, ২০২২ ১৭:৫১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



প্রধানমন্ত্রীকে অভিনন্দন জানাতে রাজপথে চলচ্চিত্রশিল্পীরা

আনন্দ মিছিল করছেন শিল্পীরা

এবার চিত্রতারকারা পথে নেমে অভিনন্দন জানালেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে। পদ্মা সেতু উদ্বোধনের ফলে আনন্দের জোয়ার বইছে দেশের মানুষের মনে। এই আনন্দে যুক্ত হলেন চলচ্চিত্রের তারকারা। চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির সভাপতি সোহানুর রহমান সোহান জানান, সম্মিলিত চলচ্চিত্র পরিষদের উদ্যোগে প্রধানমন্ত্রীকে অভিননন্দ জানাতে এই উদ্যোগ।

বিজ্ঞাপন

এফডিসির সব সংগঠনের পক্ষে কেউ না কেউ উপস্থিত ছিলেন।

আজ সোমবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে এফডিসিতে আনন্দ মিছিল করেছেন অভিনয়শিল্পীরা। মিছিলের সম্মুখভাগে চিত্রনায়ক রিয়াজ, ফেরদৌস, নিপুণ আলমগীর, চিত্রপরিচালক কাজী হায়াত, সোহানুর রহমান সোহানকে দেখা যায়। এ ছাড়াও এই আনন্দ মিছিলে শামিল হয়েছিলেন চলচ্চিত্রের সব ধরনের কুশলীরা।

এফডিসির সামনের রাস্তায় চলচ্চিত্রশিল্পীরা

এফডিসির প্রশাসনিক ভবন থেকে মূল ফটক ঘুরে কারওয়ান বাজার লেভেলক্রসিং ঘুরে আবারও এই আনন্দ মিছিলটি এফডিসিতে এসে শেষ হয়। পরে স্বাগত বক্তব্য দেন চলচ্চিত্রসংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা।

চলচ্চিত্র পরিষদের প্রধান আলমগীর বলেন, 'বিশ্বব্যাংক যখন দেশীয় একটি ষড়যন্ত্রের কারণে মুখ ফিরিয়ে নেয় তখন প্রধানমন্ত্রী নিজেদের অর্থায়নে পদ্মা সেতু করে দেখিয়ে দিয়েছেন। এ জন্য প্রধানমন্ত্রী অনেক অনেক ধন্যবাদ। প্রধানমন্ত্রী দীর্ঘজীবী হোন। সাহসিকতার সঙ্গে আরো বড় বড় কাজ করুন। আমরা আপনার সাথে আছি। '

অভিনেতা রিয়াজ বলেন, 'জাতির পিতা বলেছিলেন বাঙালিদের দাবিয়ে রাখা যাবে না। তারই সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী আবারও প্রমাণ করলেন আমাদের দাবিয়ে রাখা যায় না। দেশ-বিদেশের অসংখ্য ষড়যন্ত্রকে ঠেলে আমাদের পদ্মা সেতু চালু হয়েছে। এতে করে আমাদের দেশের আরো সমৃদ্ধি হবে। ধন্যবাদ জানাই আমাদের প্রধানমন্ত্রীকে। '

অভিনেতা ফেরদৌস বলেন, 'প্রধানমন্ত্রী আমাদের শুধু স্বপ্ন দেখান না, স্বপ্ন বাস্তবায়ন করে দেখান। আগামীতে আমরা প্রধানমন্ত্রীর মাধ্যমে আরো বড় স্বপ্ন দেখতে চাই এবং দেশের সকল মানুষ সেই স্বপ্নের বাস্তবায়নে একসঙ্গে কাজ করতে চাই। '

অভিনেত্রী নিপুণ বলেন, 'পদ্মা সেতু একটি স্বপ্নের সফল বাস্তবায়ন। এটি সমগ্র বাংলাদেশের মানুষের একটি বড় অর্জন। প্রধানমন্ত্রীর উদ্যোগ ও বলিষ্ঠ নেতৃত্ব আছে বলেই এই অর্জন সম্ভব হয়েছে। তাই দেশমাতার জন্য অনেক দোয়া ও ভালোবাসা। '



সাতদিনের সেরা