kalerkantho

বুধবার ।  ১৮ মে ২০২২ । ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ । ১৬ শাওয়াল ১৪৪৩  

কাঞ্চন-জায়েদকে অভিনন্দন জানালেন মিশা

রংবেরং প্রতিবেদক    

২৯ জানুয়ারি, ২০২২ ১৭:৫০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কাঞ্চন-জায়েদকে অভিনন্দন জানালেন মিশা

ইলিয়াস কাঞ্চন ও জায়েদ খান

নির্বাচনে ইলিয়াস কাঞ্চনের কাছে হেরে গেছেন মিশা সওদাগর, তাতে কী! বিজয়ী সভাপতিকে অভিনন্দন জানাতে ভোলেননি ঢাকাই ছবির এই খল অভিনেতা। সামাজিক মাধ্যম ফেসবুকে নতুন সভাপতিকে অভিনন্দন জানিয়েছেন তিনি। একইসঙ্গে তাঁর চার বছরের নেতৃত্বের সঙ্গী সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খানকেও অভিনন্দন জানিয়েছেন।  

কাঞ্চন-জায়েদের একসঙ্গে তোলা একটি ছবি পোস্ট করে তিনি লেখেন, ‘অভিনন্দন’।

বিজ্ঞাপন

শুধু তাই নয়, ছবিটিতে ফটোশপের মাধ্যমে ফুলের মালা পরিয়ে দিয়েছেন মিশা সওদাগর।

মিশা সওদাগরের পোস্ট করা কাঞ্চন-জায়েদের ছবি। ফটোশপের মাধ্যমে গলায় ফুলের মালা পরিয়ে দিয়েছেন দুজনকে।


প্রথমবারের মতো শিল্পী সমিতির সভাপতি নির্বাচিত হলেন ইলিয়াস কাঞ্চন। আর তৃতীয়বারের মতো সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন জায়েদ খান। পর পর দুই বারের সভাপতি মিশা সওদাগর তৃতীয়বারে এসে হারলেন ইলিয়াস কাঞ্চনের কাছে। কাঞ্চন পেয়েছেন ১৯১ ভোট, মিশা পেয়েছেন ১৪৮ ভোট।
অবশ্য গতকাল ভোটগ্রহণ চলার সময়ই মিশা বলেছিলেন, ইলিয়াস কাঞ্চনের সঙ্গে তাঁর নাম উচ্চারিত হচ্ছে এতেই তিনি গর্বিত। যদিও গতকাল মিশা বলেছিলেন, তাঁর জয়ী হওয়ার সম্ভাবনা ৬০ ভাগ। সঙ্গে সঙ্গে এও বলেন, ‘কাঞ্চন ভাই খুবই ভালো মানুষ। তিনি আমার বড় ভাই। এমন সজ্জন মানুষের সঙ্গে আমার নাম জড়িয়েছে, এতেই আমি গর্বিত। জিতি হারি- আমি তার ছোট ভাই- এই পরিচয়েই থাকব। ’

ভোটের দিন ইলিয়াস কাঞ্চনের সঙ্গে মিশা সওদাগর

 এবারে সহ-সভাপতি পদে নির্বাচিত হয়েছেন ডিপজল ও রুবেল, সহ-সাধারণ সম্পাদক পদে সাইমন সাদিক জয়ী হয়েছেন। সাংগঠনিক সম্পাদক হয়েছেন শাহানুর। আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক পদে জয় চৌধুরী। দপ্তর সম্পাদক আরমান। সংস্কৃতি ও ক্রীড়া সম্পাদক পদে জিতেছেন মামনুন ইমন। আজাদ খান কোষাধ্যক্ষ হয়েছেন। কার্যকরী সদস্য পদে সর্বোচ্চ ভোট পেয়ে জয়ী হয়েছেন নায়ক ফেরদৌস। এছাড়াও নির্বাচিত হয়েছেন মৌসুমী, অঞ্জনা, রোজিনা, অরুণা বিশ্বাস, কেয়া, অমিত হাসান, জেসমিন, সুচরিতা, চুন্নু ও আলীরাজ।
এবারের নির্বাচনে ভোটার ছিলেন ৪২৮। ভোট দিয়েছেন ৩৬৫ জন। এরমধ্যে কার্যকরী পরিষদের সদস্যপদে বাতিল হয়েছে ১০টি ভোট৷ আর সম্পাদকীয়তে বাতিল হয়েছে ২৬টি ভোট৷ প্রধান নির্বাচন কমিশনার হিসাবে নির্বাচন পরিচালনা করেছেন পীরজাদা শহীদুল হারুন। তার সঙ্গে কমিশনার হিসাবে ছিলেন বিএইচ নিশান ও জাহিদ হোসেন।



সাতদিনের সেরা