kalerkantho

সোমবার ।  ১৬ মে ২০২২ । ২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ । ১৪ শাওয়াল ১৪৪৩  

পুলিশ সদস্যদের সঙ্গে মেহজাবীনের নাচ

রংবেরং প্রতিবেদক    

২৫ জানুয়ারি, ২০২২ ১১:১৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পুলিশ সদস্যদের সঙ্গে মেহজাবীনের নাচ

রাজারবাগ পুলিশ লাইনে পুলিশ সদস্যদের সঙ্গে মঞ্চে মেহজাবীন

গত বছরের ঈদের নাটক ‘আলো’তে ট্রাফিক পুলিশের ভূমিকায় অভিনয় করে দারুণ প্রশংসিত হয়েছিলেন মেহজাবীন চৌধুরী। মাহমুদুর রহমান হিমি পরিচালিত নাটকটি লিখেছেন অভিনেত্রী নিজেই। কর্মক্ষেত্রে একজন নারী সার্জেন্টের ঘাত-প্রতিঘাত, প্রতিবন্ধকতা নাটকে সুন্দরভাবে তুলে ধরায় মেহজাবীন ও হিমিকে ক্রেস্ট প্রদান করে সম্মান জানায় বাংলাদেশ পুলিশ উইমেনস নেটওয়ার্ক (বিপিডাব্লিউএন)। বাংলাদেশ পুলিশের সঙ্গে অভিনেত্রীর সুসম্পর্ক তখন থেকেই।

বিজ্ঞাপন

মহড়ায় পুলিশ সদস্যদের সঙ্গে মেহজাবীন চৌধুরী ও ইভান শাহরিয়ার সোহাগ


এবার পুলিশ সদস্যদের সঙ্গে নাচলেন জনপ্রিয় এই অভিনেত্রী। রবিবার সন্ধ্যায় রাজারবাগ পুলিশ লাইনসে ৩০ জন পুলিশ সদস্যকে সঙ্গে নিয়ে মঞ্চ মাতান মেহজাবীন। সেই অভিজ্ঞতার কথা শেয়ার করে অভিনেত্রী বলেন, ‘পেশাগত কাজের বাইরেও আমাদের পুলিশ বাহিনীতে এত সংস্কৃতিমনা ব্যক্তি রয়েছেন তা আমার জানা ছিল না। তাঁরা দুর্দান্ত নাচেন, গানও করেন। আমার সঙ্গে সেদিন যাঁরাই নেচেছেন, মনেই হয়নি তাঁরা পেশাদার শিল্পী নন। তাঁদের এই মেধা আমাকে বিস্মিত করেছে। ’
পুলিশ সদস্যদের সঙ্গে নাচের অনুষ্ঠানে অংশ নেওয়ার পেছনে যে ‘আলো’র ভূমিকা আছে, সেটাও স্বীকার করলেন অভিনেত্রী। মেহজাবীন আরো বলেন, ‘পুলিশ সদস্যদের সঙ্গে আমার যোগাযোগ বেড়েছে সেই নাটক প্রচারের পর থেকেই। তাঁরা নানা সময়ে আমাকে বিভিন্ন কাহিনি, নানা অজানা বিষয় শুনিয়েছেন। হয়তো সামনে তাঁদের জীবনযাত্রা নিয়ে আরো কাজ করব। ’

সেদিন ১০ মিনিটের নাচের স্লটে তিনটি গানের সঙ্গে পারফর্ম করেন মেহজাবীন—কনার গাওয়া ‘ধিমতানা’, মিলার ‘বাবুরাম সাপুড়ে’ ও ইবরার টিপুর ‘ও পৃথিবী’। সমন্বয় ও কোরিওগ্রাফি করেছেন ইভান শাহরিয়ার সোহাগ। তিনি বলেন, ‘প্রায় এক সপ্তাহ মহড়ার পর ৩০ জন পুলিশ সদস্যকে নিয়ে নাচটা কোরিওগ্রাফ করেছি। মেহজাবীনের সঙ্গে তাঁদের রসায়ন ও আন্তরিকতা মহড়াকে সহজ করে দিয়েছে। অনুষ্ঠান শেষে পুলিশ কর্তাদের বাহবাও পেয়েছি। ’

নাচে অংশ নেওয়া পুলিশ সদস্যদের একজন মুনজিলা পারভীন। কথা হলো তাঁর সঙ্গেও। তিনি বলেন, ‘আমি ১৩ বছর ধরে পুলিশ বাহিনীর বিভিন্ন সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডের সঙ্গে যুক্ত। এবারের অভিজ্ঞতা অন্য রকম, এত বড় শিল্পীর সঙ্গে কাজ আগে করিনি। নাচের মহড়ার সময় কয়েকবার ওনার গায়ে হাত লেগে গেছে, তিনি কিছুই মনে করেননি। এই অনুষ্ঠানের কথা আমার অনেক দিন মনে থাকবে। ’



সাতদিনের সেরা