kalerkantho

সোমবার ।  ১৬ মে ২০২২ । ২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ । ১৪ শাওয়াল ১৪৪৩  

অস্কারের রিমাইন্ডার লিস্টে থাকা প্রসঙ্গে যা বললেন গাজী রাকায়েত

রংবেরং প্রতিবেদক   

২৩ জানুয়ারি, ২০২২ ১৩:০১ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



অস্কারের রিমাইন্ডার লিস্টে থাকা প্রসঙ্গে যা বললেন গাজী রাকায়েত

গাজী রাকায়েত

গাজী রাকায়েতের ইংরেজি ছবি ‘দ্য গ্রেভ’ ৯৪তম অস্কারের সাধারণ বিভাগে মনোনয়ন পেল। শুক্রবার প্রকাশিত ‘রিমাইন্ডার লিস্ট অব প্রোডাকশন্স এলিজেবল ফর দ্য নাইন্টি ফোরথ একাডেমি অ্যাওয়ার্ডস’-এ ২৭৬টি ছবি স্থান পেয়েছে, তালিকায় আছে ‘দ্য গ্রেভ’ও। অস্কারে ছবিটির সম্ভাবনার বিষয়ে বললেন গাজী রাকায়েত


আমার জানা মতে, এই প্রথম বাংলাদেশি কোনো নির্মাতার নাম অস্কারের রিমাইন্ডার লিস্টে এলো। ভারত থেকে দুটো ছবিও আছে দেখলাম তালিকায়।

বিজ্ঞাপন

এটা হচ্ছে অস্কারের মূল প্রতিযোগিতা। এর আগে আমরা অনেকবার বলেছি ‘দ্য গ্রেভ’ অস্কারে যাচ্ছে। সেটা ছিল প্রাথমিক কথা। এবার শুরু হলো হলো মূল প্রক্রিয়া। এই ২৭৬টি ছবিই এবারের অস্কারে সাধারণ বিভাগে লড়বে। অস্কারে যদি ২০টি বিভাগে পুরস্কার দেওয়া হয়, প্রতিটি বিভাগেই লড়াই করবে ছবিগুলো। যেমন সেরা চিত্রনাট্যকার, ২৭৬ জন চিত্রনাট্যকার থেকে চ‚ড়ান্ত মনোনয়নের জন্য ৫টি নাম বাছাই করা হবে।


অবশ্য আমরা সব ক্যাটাগরিতে ‘দ্য গ্রেভ’ সাবমিট করিনি। কারণ আমাদের ছবিতে স্পেশাল এফেক্টস-এর মতো কিছু বিষয় নেই। ১২-১৪টির মতো বিভাগে লড়াইয়ের জন্য নাম দিয়েছি। এর মধ্যে আছে বেস্ট অ্যাকটর মেইন রোল, বেস্ট অ্যাকট্রেস মেইন রোল, সাপোর্টিং অ্যাক্টর, বেস্ট স্ক্রিনপ্লে, সিনেমাটোগ্রাফি।


এই রিমাইন্ডার তালিকা থেকেই অস্কারের মূল প্রতিযোগিতার জন্য মনোনয়ন পাবে ছবিগুলো। ২৭ জানুয়ারি ভোট ওপেন হবে। সারা পৃথিবীতে অ্যাকাডেমির সদস্য আছে দশ হাজার। এই দশ হাজার সদস্য সাত দিনের মধ্যে ভোট দেবে। পৃথিবীর সেরা পরিচালক, অভিনয়শিল্পীরা অ্যাকাডেমির সদস্য। ২৭৬টি ছবির ব্যালট সব সদস্যের কাছে যাবে। তাঁদের ভোটেই প্রতিটি বিভাগে ৫টি নাম মনোনয়নের জন্য চূড়ান্ত হবে।  

‌'দ্য গ্রেভ'-এর একটি দৃশ্য


সারা পৃথিবীর বিখ্যাত শিল্পী কলাকুশলীদের কাছে আমাদের ফাইলটা যাচ্ছে, এটি আমাদের বাংলাদেশের চলচ্চিত্রের জন্য কতটা সম্মানের, সেটা বলাই বাহুল্য। এটা আমার কাছে অনেক বড় ব্যাপার। একটি নতুন দ্বার উন্মুক্ত হলো। আমরা স্বপ্ন দেখেছিলাম, সে পর্যন্ত পৌঁছুতে পেরেছি। এখন ৮ ফেব্র“য়ারি পর্যন্ত আমাদের স্বপ্নের সীমাটা আরেকটু বাড়ল। অস্কার পাবো কি পাবো না তা জানি না। স্বপ্নের সঙ্গে থাকতে সবারই ভালো লাগে। আমাদের বাংলাদেশে কোনো ভোটার নেই। ভারতে আছে অমিতাভ বচ্চনসহ আরো কয়েকজন। আশা করি, ভবিষ্যতে বাংলাদেশ থেকেও অস্কারের ভোটার তৈরি হবে।


আমার কাছে যেটা মনে হয়, হয়েও যেতে পারে। আমরা তো স্বপ্ন দেখতেই পারি, তাই না? না হলেও কোনো সমস্যা নেই। আমরা যে এতদূর পর্যন্ত আসতে পেরেছি, সেটাই আমাদের জন্য অনেক বড় বিষয়।

অনুলিখন : খায়রুল বাসার



সাতদিনের সেরা