kalerkantho

বুধবার ।  ১৮ মে ২০২২ । ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ । ১৬ শাওয়াল ১৪৪৩  

কলকাতার নতুন ছবিতে জয়া

রংবেরং প্রতিবেদক   

২১ জানুয়ারি, ২০২২ ১২:৪৪ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



কলকাতার নতুন ছবিতে জয়া

জয়া আহসান

মানিক বন্দ্যোপাধ্যায়ের লেখা বহুল প্রশংসিত উপন্যাস ‘পুতুলনাচের ইতিকথা’ অবলম্বনে একই নামের চলচ্চিত্র নির্মাণ করবেন সুমন মুখোপাধ্যায়। ‘হারবার্ট’, ‘কাঙাল মালসাট’খ্যাত এই পরিচালকের সেই ছবিতে দেখা যাবে বাংলাদেশি অভিনেত্রী জয়া আহসানকেও। ছবির কুসুম চরিত্রে অভিনয় করবেন জয়া। শশী ও কুমুদের অন্য দুই চরিত্রে দেখা যাবে আবীর চট্টোপাধ্যায় ও পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়কে।

বিজ্ঞাপন

আরো দুটি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে দেখা যাবে ধৃতিমান চট্টোপাধ্যায় ও অনন্যা চট্টোপাধ্যায়কে।

উপন্যাসে অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ চরিত্র কুসুম। ছবিতেও থাকবে তেমনই। কেমন লাগছে এমন বহুল পরিচিত, প্রশংসিত চরিত্রে অভিনয়ের সুযোগ পেয়ে? ‘কালের কণ্ঠ’কে জয়া বলেন, “বাংলা সাহিত্যের ইতিহাসে ‘পুতুলনাচের ইতিকথা’ বড় একটা জায়গা নিয়ে আছে। সেই উপন্যাসের কুসুম চরিত্রে অভিনয় যেকোনো অভিনেত্রীর জন্য বড় সুযোগ। আমি চেষ্টা করব ভালো করার। ” মানিকের উপন্যাস থেকে চলচ্চিত্রে কাজ করা ছাড়াও জয়া মুখিয়ে আছেন সুমনের সঙ্গে কাজ করতেও, ‘উনি আমার ভীষণ পছন্দের পরিচালক। তাঁর ‘হারবার্ট’ তো দারুণ একটি কাজ। উনার সঙ্গে ‘পাঁচফোড়ন’-এ ছোট একটা কাজ করেছি। এবার পূর্ণদৈর্ঘ্য ছবি করতে যাচ্ছি। এ ছাড়া ছবিতে ভালো ভালো শিল্পী আছেন। সব মিলিয়ে আশা করি দর্শকদের কাছে দারুণ উপভোগ্য হবে। ’

'পুতুলনাচের ইতিকথা'য় কুসুম চরিত্রে অভিনয় করবেন জয়া।     ছবি : জয়া আহসানের ফেসবুক পেজ থেকে নেওয়া

আনন্দবাজার’কে সুমন জানান, ২০০৮ সাল থেকেই এ ছবি নিয়ে ভাবনা-চিন্তা চলছিল। কিন্তু উপন্যাসের স্বত্ব ও বাজেট জটিলতার কারণে এত দিন বাস্তবায়িত হয়নি। সব জটিলতা কাটিয়ে এ বছরই ছবির কাজ শুরু করবেন সুমন। এই ছবি দিয়ে পাঁচ বছর পর বাংলা সিনেমায় ফিরছেন তিনি। সুমন বলেন, ‘এই ছবির জন্য দুটি জিনিস খুব জরুরি ছিল। দক্ষ অভিনেতা ও বাজেট। আবীর, জয়া ও পরম সেই ব্যালান্সটা করতে পারবে। ছবির শুটিং শিডিউল ২৫ দিনের, যা বাংলা ছবিতে এখন দেখা যায় না। ’

ছবিতে ভারতবর্ষের স্বাধীনতা-পূর্ববর্তী সময়কে ফ্রেমবন্দি করবেন সুমন। ‘মূল উপন্যাসের সময়টা আরো পেছনে ছিল, আমি খানিকটা এগিয়ে এনেছি। উপন্যাসের সব কিছু চলচ্চিত্রে ধরানো সম্ভব নয়। দুটি মাধ্যম আলাদা। আমি চারিত্রিক রসায়নের ওপর বেশি জোর দিয়েছি’, বলেন সুমন। প্রখ্যাত এই পরিচালকের বাবা অরুণ মুখোপাধ্যায় ‘পুতুলনাচের ইতিকথা’ মঞ্চস্থ করেছিলেন, সুমন তৈরি করছেন চলচ্চিত্র।



সাতদিনের সেরা