kalerkantho

সোমবার ।  ১৬ মে ২০২২ । ২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ । ১৪ শাওয়াল ১৪৪৩  

বাসায় সাংবাদিক ডাকলেন ওমর সানী, গঠনমূলক কথা বলবেন

অনলাইন ডেস্ক   

১৬ জানুয়ারি, ২০২২ ১৬:২৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বাসায় সাংবাদিক ডাকলেন ওমর সানী, গঠনমূলক কথা বলবেন

আসন্ন শিল্পী সমিতির নির্বাচন নিয়ে নিজের অভিমত প্রকাশ করতে বাসায় সাংবাদিক ডেকেছেন ওমর সানী। গঠনমূলক কথা বলার জন্যই নিজ বাসায় ফেসবুকে লিখে সাংবাদিকদের ডেকেছেন এই অভিনেতা। অবশ্য বাসায় উপস্থিত সাংবাদিক কত জন হবে তা-ও নির্ধারণ করে দিয়েছেন তিনি।

ফেসবুকে তিনি লিছেখেন, ‘আজকে বিকেল পাঁচটায় আমার বাসায়, শিল্পী সমিতির বিষয় নিয়ে গঠনমূলক কথা বলব ইনশাআল্লাহ।

বিজ্ঞাপন

সাংবাদিক এবং মিডিয়ার সামনে চলচ্চিত্রের জয় হোক। ১০ থেকে ১৩ জনের ওপর কোনো রকমে গ্রহণযোগ্য নয়, সবাই সহযোগিতা করবেন আমাকে- সাংবাদিক ভাইয়েরা। ’

গতবার ওমর সানীর স্ত্রী চিত্রনায়িকা মৌসুমী চলচ্চিত্র সমিতির নির্বাচন করে মিশা সওদাগরের কাছে হেরে যান। তবে এবার হিসাবটা উল্টো।   আসন্ন নির্বাচনে মৌসুমী প্রার্থী হয়েছেন মিশার প্যানেলেই।  

দুই বছরে এমন কী হলো ‘সেই’ মিশা-জায়েদের প্যানেলে নির্বাচন করছেন মৌসুমী? এমন প্রশ্নে এফডিসিতে উপস্থিত সাংবাদিকদের মৌসুমী জানিয়েছেন, ‘বিগত দিনের সবগুলো কাজই তাঁরা (মিশা-জায়েদ প্যানেল) ভালো কাজ করেছে। আমি তাঁদের সেই ভালো ভালো কাজের সমর্থক হিসেবে এই প্যানেলে দাঁড়িয়েছি। ’

এ ছাড়া মৌসুমী আরো জানিয়েছেন, ‘মিশা-জায়েদ খানরা আমার কাছে আগে এসেছিলেন বলেই তাদের প্যানেলে গিয়েছি। আমাকে অনুরোধ করেছেন বলেই প্রার্থী হয়েছি। এ ছাড়া বিভেদ করে তো কিছু হয় না। আমি চাই সবাই মিলেমিশে থাকি। ’ 

জানা গেছে, পারিবারিক কারণে এবার কার্যনির্বাহী সদস্য পদে নির্বাচন করছেন মৌসুমী। তাঁর মা আমেরিকায় আছেন, মাকে দেখতে খুব দ্রুত যেতে হবে। নির্বাচনের দিন থাকা হচ্ছে কি না তা এখনো নিশ্চিত নন তিনি।

আগামী ২৮ জানুয়ারি হতে যাচ্ছে সমিতির ১৭তম নির্বাচন। এবারের নির্বাচনে সভাপতি পদে অভিনেতা মিশা সওদাগর ও সাধারণ সম্পাদক পদে চিত্রনায়ক জায়েদ খান একই প্যানেল থেকে নির্বাচন করছেন। অন্যদিকে সভাপতি পদে অভিনেতা ইলিয়াস কাঞ্চন ও সাধারণ সম্পাদক পদে চিত্রনায়িকা নিপুণ আক্তার একই প্যানেল থেকে নির্বাচন করছেন।

এবার নির্বাচন কমিশনারের দায়িত্ব পালন করবেন পীরজাদা হারুন। দুজন সদস্য হলেন বি এইচ নিশান ও বজলুর রাশীদ চৌধুরী। আপিল বোর্ডের চেয়ারম্যান করা হয়েছে সোহানুর রহমান সোহানকে। মোহাম্মদ হোসেন জেমী ও মোহাম্মদ হোসেনকে আপিল বোর্ডের সদস্য করা হয়েছে।    



সাতদিনের সেরা