kalerkantho

সোমবার ।  ১৬ মে ২০২২ । ২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ । ১৪ শাওয়াল ১৪৪৩  

শত শত বহিরাগত, এফডিসিতে যেকোনো সময় ঘটতে পারে দুর্ঘটনা

অনলাইন ডেস্ক   

১৬ জানুয়ারি, ২০২২ ১৫:০২ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



শত শত বহিরাগত, এফডিসিতে যেকোনো সময় ঘটতে পারে দুর্ঘটনা

আসন্ন শিল্পী সমিতির নির্বাচনে এফডিসি সরগরম। নির্বাচনকে কেন্দ্র করে এফডিসিতে  প্রতিদিন যেন তারকাদের মেলা বসছে। প্রতিদিন সকাল থেকে রাত পর্যন্ত তারকারা অবস্থান করছেন। ভোটাদের কাছে চাইছেন ভোট, দিচ্ছেন আড্ডা।

বিজ্ঞাপন

এই নির্বাচন উপলক্ষে এফডিসিতে বেড়েছে বহিরাগতদের প্রবেশ। সরেজমিনে গিয়ে শনিবার বিকেলে কয়েক শ বহিরাগত দেখা গেল এফডিসিতে।

শিল্পীরা কেপিআইভুক্ত এলাকায় এত পরিমাণ বহিরাগতের প্রবেশে করোনা ছড়ানোসহ নানা আতঙ্কে ভুগছেন শিল্পীরা। তাঁরা বলছেন, এফডিসিতে অপরিচিত মানুষের আনাগোনা বেড়েছে। এতে তাঁরা আতঙ্কে রয়েছেন। বহিরাগতরা ভোটারদের প্রভাবিত এবং আতঙ্ক সৃষ্টি করছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

বহিরাগতরা আগত সাংবাদিকদের সঙ্গেও সামান্য কারণে বচসায় জড়িয়ে পড়ছেন বলে কয়েকটি জাতীয় দৈনিকের গণমাধ্যমকর্মী জানিয়েছেন। পুলিশ প্রহরা ও নিরাপত্তাকর্মী থাকার পরও এফডিসির মতো জায়গায় প্রতিদিন শত শত বহিরাগত ঢুকছে―বিষয়টি নিয়ে শিল্পীরাও বিস্মিত ও আতঙ্কিত।

ব্যবস্থাপনা নিয়ে এফডিসির ভারপ্রাপ্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক নুজহাত ইয়াসমিনের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, 'প্রধান গেটে নিরাপত্তার দায়িত্বে আমাদের পুলিশবাহিনী আছেন। অনেক সময় শিল্পীদের সঙ্গে দেখা করার কথা বলে ভেতরে প্রবেশ করে। সামনে নির্বাচন, সে জন্য আমরা দেখছি যেন বাইরের কেউ প্রবেশ করতে না পারে। আমরা চেষ্টা করছি। '

এ প্রসঙ্গে সাধারণ সম্পাদকপদ প্রার্থী জায়েদ খান বলেন, ‘শিল্পী নির্বাচনে শিল্পীরা আসবে। এ ছাড়াও এফডিসিসংশ্লিষ্টরা কাজের জন্য এখানে আসবে। কিন্তু আসছে শত শত বহিরাগত মানুষ। এখানে এত বহিরাগতের আনাগোনা যে আমরা শিল্পীরাই নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। আজ  জন্য আমাদের প্যানেলের দুজন সিনিয়র শিল্পী  সূচরিতা ও অঞ্জনা আপা এফডিসিতে আসতে গিয়ে বরিহগতদের এত ভিড় শুনে রাস্তা থেকে গাড়ি ঘুরিয়ে চলে গেছেন। আর আমরা শিল্পীরা তো বহিরাগতদের জন্য এফডিসিতে হাঁটতেই পারছি না।   এ অবস্থায় কোনো দুর্ঘটনা ঘটারও আভাস পাচ্ছি। ’

আজ এফডিসির এমডি  নুজহাতের কাছে লিখিত অভিযোগ করবেন বলেও জানিয়ে জায়েদ খান বললেন, 'এর আগে নির্বাচন কমিশনকে জানিয়েছি বিষয়টি। ' 

রবিবার সকালে জায়েদ খান-মিশা প্যানেল থেকে আন্তর্জাতিক সম্পাদক পদে নির্বাচন করতে যাওয়া চিত্রনায়ক জয় চৌধুরী বলেন, 'এফডিসিতে বহিরাগত ঢুকছে প্রতিদিন এক থেকে দেড় শ। এটা কোনোভাবেই মানা যায় না। আমরা স্বাভাবিকভাবে চলাফেরা করতে পারছি। খুবই বিরক্ত। এদের এখনই ঠেকানো না গেলে অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটে যাবে। '

এবারের নির্বাচনে ইলিয়াস কাঞ্চন-নিপুণ প্যানেলের সহ-সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী চিত্রনায়ক সাইমন সাদিকও একই অভিযোগ করলেন। তিনি বলেন, "এফডিসিতে প্রচুর বাইরের লোক প্রবেশ করছে। এতে আমাদের শিল্পীদের চলাচলে সমস্যা দেখা দিচ্ছে। ভোটের প্রচারণার চেয়ে সেলফিতে বেশি সময় দিতে হয়। এতে আমাদের ভোটের প্রচারণায় প্রচুর সমস্যা করছে। বিষয়টি নিয়ে আমরা এফডিসির এমডি মহোদয়ের কাছে গিয়েছিলাম। তাঁকে বিষয়টি অবগত করার পর তিনি বলেন, 'দেখুন  এফডিসিতে তো আমাদরে কনস্ট্রাকশনের কাজ হচ্ছে, এই পরিস্থিতিতে আমাদের গেট ওপেন রাখতে হচ্ছে। তাই সাধারণ মানুষের প্রবেশ ঠেকানো সম্ভব হচ্ছে না। '" 

সাইমন আরো বলেন, "দিন দিন শিল্পীদের উপস্থিতি এফডিসিতে বাড়বে। এভাবে সাধারণ মানুষের প্রবেশ ঠেকানো না গেলে আমরা এফডিসিতে চলতেই পারব না। বিষয়টি  এফডিসির এমডিকে জানালে তিনি বলেছেন, 'এ বিষয়ে আমাদের আপাতত আর কিছুই করার নেই। '" 



সাতদিনের সেরা