kalerkantho

শুক্রবার । ১৪ মাঘ ১৪২৮। ২৮ জানুয়ারি ২০২২। ২৪ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

বাঁধনের জন্মদিনে দেখা দিলেন হারিয়ে যাওয়া বিন্দু

অনলাইন ডেস্ক   

৮ নভেম্বর, ২০২১ ১৫:৫৫ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



বাঁধনের জন্মদিনে দেখা দিলেন হারিয়ে যাওয়া বিন্দু

আজমেরি হক বাঁধন, এই মুহূর্তে দেশীয় শোবিজে এক জ্বলজ্বলে তারকা। যেদিকেই যান তার আভা যেন ঠিকরে পড়ছে। সফলতার পালকে যে দুটি পালক যুক্ত হলো সম্প্রতি তা তো সহজলভ্য নয়। কানের লাল গালিচায় হেঁটে এলেন কদিন আগে, তারপরেই বলিউডের চলচ্চিত্রে অভিনয়।

বিজ্ঞাপন

এমন ভাগ্যের সমন্বয় কজনের ভাগ্যেই ঘটে।  

স্বাভাবিকভাবেই এমন অভিনয়শিল্পীর উদযাপনগুলো ব্যাতিক্রম হবে, এটাই স্বাভাবিক এবং হয়তো নিয়ম। রাজধানীর গুলশানের রেনেসাঁ হোটেলে দেখা গেল এমনই এক দৃশ্য। বাঁধনের জন্মদিন পালন করছেন যারা, তারা নিজ নিজ ক্ষেত্রে প্রত্যেকেই ধ্রুবতারা। চিত্রনায়িকা পূর্ণিমা, অভিনেত্রী মাসুমা রহমান নাবিলা, কণ্ঠশিল্পী কণা, সামিয়া আফরিন, আফরোজা- কে নেই? 

তবে এই জন্মদিন পালনের অনুষ্ঠানে হাজির হয়েছিলেন একজন হারিয়ে যাওয়া তারা, তিনি বিন্দু। লাক্স তারকা বিন্দু। দেশের শোবিজ অঙ্গন থেকে নিজেকে গুটিয়ে নেওয়া বিন্দুকেও দেখা গেল রেনেসাঁয়। অবশ্য শুধু বাঁধন নন, উজ্জ্বলার ব্যবস্থাপনা পরিচালক আফরোজার জন্মদিনও পালন করা হয়।  

২০১৪ সালে বিয়ের পর ঘোষণা দিয়ে মিডিয়া ছাড়েন তিনি। মিডিয়ার আলোকচ্ছটা থেকে দূরে থাকা এ অভিনেত্রী দীর্ঘদিনের আড়াল ভেঙে ২০১৯ সালে হঠাৎ আবির্ভুত হন রাজধানীর এক ম্যারাথনে। তারপর অভিনয়ে যেমন পাওয়া যায়নি, তেমনি মিডিয়ার কোনো অনুষ্ঠানেও তার দেখা মেলেনি।  

২০০৬ সালের লাক্স-চ্যানেল আই সুপারস্টার প্রতিযোগিতার রানার-আপ আফসান আরা বিন্দু। ‘দারুচিনি দ্বীপ’ শিরোনামের চলচ্চিত্রের মাধ্যমে বড় পর্দায় পা রাখেন তিনি। এরপর ‘জাগো’, ‘পিরিতের আগুন জ্বলে দ্বিগুণ’, ‘এই তো প্রেম’ নামের সিনেমায় অভিনয় করেন।

২০১৪ সালের ২৪ অক্টোবর আসিফ সালাউদ্দিন মালিকের সঙ্গে তিনি বিয়ের পিঁড়িতে বসেন। এরপর নিজ থেকেই জানিয়ে দেন, তিনি আর অভিনয় করবেন না।

জন্মদিনের বিষয়টি নিয়ে আফরোজা নিজের ফেসবুকে লিখেছেন, 'ভালোলাগা এবং ভালোবাসা এমন দুটি শব্দ যা আসে অন্তরের অন্তস্থল থেকে - আজ এত সুন্দর একটি বিকেল কেটেছে আর তার জন্য যে প্রস্তুতি সবাই মিলে নিয়েছে তা অসাধারণ ছিল, এটা কেবল পাওয়ার উইমেনরাই পারে । বাঁধনের জন্মদিন তার সাথে অনেক রকমের প্রাপ্তি ও ছিল জমা, সাথে সবার ভালোবাসার ফলাফলে উদযাপিত হলো আমাদের দুজনের জন্মদিন।  অনেক অনেক ধন্যবাদ। '

আজমেরি হক বাঁধন। কান চলচ্চিত্র উৎসবে তাঁর অভিনীত রেহানা মরিয়ম নূর প্রশংসিত হয়েছে। উৎসবস্থলে চোখের জল, আবেগে ভাসিয়েছে দেশের মানুষকে। ফিরেই উড়ে গিয়েছিলেন মুম্বাই, বলিউডের একটি চলচ্চিত্রে কাজ করে দেশে ফিরেছেন। বাঁধন মুখোমুখি হয়েছিলেন গুলশানে গণমাধ্যমকর্মীদের সঙ্গে এক আড্ডায়। সেই আড্ডায় জানান কান ও বলিউডের অভিজ্ঞতা।  

'রেহানা মরিয়ম নুর’  বাংলাদেশে  ১২ নভেম্বর মুক্তি পাচ্ছে।



সাতদিনের সেরা