kalerkantho

শনিবার । ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ২৭ নভেম্বর ২০২১। ২১ রবিউস সানি ১৪৪৩

প্রিসিলার কাজে মুগ্ধতা প্রকাশ করলেন আসিফ-মনিরা মিঠু

অনলাইন ডেস্ক   

২৭ অক্টোবর, ২০২১ ১৭:৪৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



প্রিসিলার কাজে মুগ্ধতা প্রকাশ করলেন আসিফ-মনিরা মিঠু

সোশ্যাল মিডিয়ায় যারা সক্রিয়, তারা প্রিসিলা নামটির সঙ্গে পরিচিত।  আমার পুরো নাম ফাতিমা নাজনীন প্রিসিলা। প্রিসিলা ফেসবুকে একটু সাক্ষাৎকারমূলক অনুষ্ঠান করেন, যেখানে বাংলাদেশের শীর্ষ তারকা থেকে আলোচিত ব্যক্তিরাও তাতে অংশ নেন। 

প্রিসিলা একজন তরুণী, শুধু সোশ্যাল মিডিয়া ভিত্তিক কর্মকাণ্ডই নয়, বাস্তবে সমাজসেবামূলক কাজগুলোতেও নিজেকে যুক্ত করছেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে বসেই। প্রিসিলাকে নিয়ে এই প্রজন্মের নানা কৌতু্হযল। 

যুক্তরাষ্ট্রে বসেও দেশের সামাজিক কর্মকাণ্ডে অংশ নিচ্ছেন এই টিনেজ কিশোরী। দেশের বেশ কয়েকটি দুর্গম এলাকায় তার উদ্যোগে বসেছে টিউবওয়েল, শিশু ও বয়স্কদের জন্য খেলনা এবং স্বাস্থ্য সচেতনতার জিনিসপত্র পাঠান যুক্তরাষ্ট্র থেকে। 

নওগাঁ জেলার রানীনগরের উত্তর রাজাপুরে একটি দরিদ্র পরিবারের বাসায় টিউবওয়েল বসানো হয়েছে প্রিসিলার উদ্যোগে। এর কয়েকটি ছবি পোস্ট করে প্রিসিলা লিখেছেন, 'আমাদের আরেকটি ক্ষুদ্র কাজ শেষ হয়েছে। ফিরোজ চাচা অনেক খুশি। আমার ফেসবুক ও ইউটিউবের সব ভাই-বোনের জন্য উপহার ফিরোজ চাচার এই হাসি।'

প্রিসিলার এই কাজে চমৎকৃত হয়েছেন দেশের জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী আসিফ আকবর ও জনপ্রিয় অভিনেত্রী মনিরা আক্তার মিঠু। আসিফ মন্তব্য করেছেন, 'মা আমার, আনন্দে থাকো। আনন্দে রাখো।' 

আসিফের এমন মন্তব্যে উৎসাহ পেয়েছেন বলে জানান প্রিসিলা।

অন্যদিকে, এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে মনিরা আক্তার মিঠু লিখেছেন, 'মাশাআল্লাহ, আল্লাহ তোমাকে আরো তৌফিক দান করুন, সুস্থ রাখুক তোমার পুরো পরিবারকে, ভালোবাসা ও আদর নিয়ো।'

প্রিসিলা উত্তর দিয়েছেন- শিগগিরই মনিরা মিঠুর সঙ্গে ফোন করে কথা বলবেন।

এমন উদ্যোগ অব্যাহত থাকবে বলে নিউ ইউয়র্ক থেকে কালের কণ্ঠকে জানিয়েছেন ফাতিমা নাজনীন প্রিসিলা। তিনি বলেন, আমি বাংলাদেশের মানুষের পাশে সব সময় থাকতে চাই। মানুষের সেবাতে, মানুষের পাশে থাকতে যে আনন্দ, তার তুলনা চলে না। কোনো কিছুর বিনিময় ছাড়াই বাংলাদেশের মানুষের বিপদে-আপদে থাকার চেষ্টা করব। আমার জন্য শুধু দোয়া করবেন।

প্রিসিলা হলিউডের প্রতিষ্ঠান New York film academy থেকে অভিনয় ও মডেলিং কোর্স সম্পন্ন করেছেন। কিন্তু অভিনয় বা মডেলিংয়ে নিয়মিত হবেন না। মাদার তেরেসার জীবনী তাঁকে ভীষণভাবে অনুপ্রাণিত করেছে। এ ছাড়া ডায়ানার জীবনীও তাঁকে স্পর্শ করে। মিয়ানমারের একটি ছবিতে অভিনয় করেছেন প্রিসিলা। হলিউডের একটি ছবিতেও অফার পেয়েছিলেন, যাওয়া হয়নি। 

এখন বলা যায়, নিয়মিত অনলাইন অ্যাংকর ফাতিমা নাজনীন প্রিসিলা। 



সাতদিনের সেরা