kalerkantho

শনিবার । ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ২৭ নভেম্বর ২০২১। ২১ রবিউস সানি ১৪৪৩

গ্রেপ্তার আরজে নিরবকে নিয়ে যা বললেন স্ত্রী লাবণ্য

অনলাইন ডেস্ক   

১০ অক্টোবর, ২০২১ ১৪:৩৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



গ্রেপ্তার আরজে নিরবকে নিয়ে যা বললেন স্ত্রী লাবণ্য

ইভ্যালি ও ই-অরেঞ্জের প্রতারণার বিষয়টি নিয়ে দেশে তোলপাড়ের মধ্যেই আলোচনায় আসে আরেকটি ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান কিউকম। প্রতিষ্ঠানটির সিইও রিপন মিয়ার পর এবার কিউকমের হেড অব সেলস (কমিউনিকেশন অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন) অফিসার হুয়ামূন কবির নিরবকে (আরজে নিরব) গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এক দিনের রিমান্ডে জিজ্ঞাসাবাদে নানা চাঞ্চল্যকর তথ্য দিয়েছেন তিনি।

আরজে নিরব গ্রেপ্তারের পর শনিবার (৯ অক্টোবর) মধ্যরাতে তার সঙ্গে তোলা একটি ছবি ফেসবুক প্রোফাইলে দিয়ে আবেগঘন ক্যাপশন লিখেছেন স্ত্রী অভিনেত্রী লাবণ্য লি।

তিনি লিখেছেন, 'তোমাকে নিয়ে আমি গর্বিত, আরো বেশি হব। এই অন্ধকার কেটে যাবে ইনশাআল্লাহ। অন্য সবার থেকে আমি ভালো করে জানি, তুমি দোষী নও। তুমি সব সময় তোমার সাধ্যের বাইরেও মানুষকে সাহায্য করেছ। তুমি কখনো কাউকে আঘাত করার কথা ভাবতেও পারো না। কিন্তু আমি ভালো করে চিনতেছি, কে আমাদের বন্ধু আর কে শত্রু।'

কিউকমের হেড অব সেলস (কমিউনিকেশন অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন) অফিসার পদে থাকা আরজে নিরবের কাজই ছিল সাধারণ মানুষদের আকৃষ্ট করা। নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্টেও তিনি কিউকম নিয়ে নানা প্রচারণা চালান। তার কথায় বিশ্বাস করে সাধারণ মানুষ লাখ লাখ টাকা বিনিয়োগ করে পথে বসেছে।

গত ২৪ আগস্ট কিউকম নিয়ে একটি নিউজ শেয়ার করেন নিরব। সেখানে তিনি লেখেন, ‘পুরো দেশ আর সারা দুনিয়া জুড়ে কিউকম ছড়াতে চাই, ইনশাআল্লাহ। আট বিভাগে নিজস্ব ডেলিভারি পয়েন্ট, ওয়্যারহাউস, কাস্টমার কেয়ার চালু করবে কিউকম।’ এ ছাড়া নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্টে এমন অনেক স্ট্যাটাস আর নিউজের মাধ্যমে কাস্টমারদের দৃষ্টি আকর্ষণ করতেন আরজে নিরব।

রিমান্ড সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে, রেডিও জকির চাকরি ছেড়ে দিয়ে ই-কমার্স প্রতারণায় নেমেছিলেন নিরব। কিউকমের সিইও রিপন মিয়াকে গ্রাহকের অর্থ হাতানোর অভিনব নানা কৌশল রপ্ত করান তিনি। জিজ্ঞাসাবাদ করা হলেও পুলিশ কর্মকর্তাদের অনেক প্রশ্নই এড়িয়ে যান তিনি। তবে কিউকমের সিইও মো. রিপন মিয়া প্রতারণা করে গ্রাহকদের ২৫০ কোটি টাকা আটকে রেখেছেন বলে তদন্ত সংশ্লিষ্টরা নিশ্চিত হয়েছেন। এসব তথ্যসহ তার দেওয়া আরো নানা চাঞ্চল্যকর তথ্য যাচাই-বাছাই করে দেখছেন তদন্ত সংশ্লিষ্টরা।

আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কর্মকর্তারা বলছেন, আরজে নিরবের প্রচারণায় আকৃষ্ট হয়ে গ্রাহকরা কিউকমের প্রতি ঝুঁকেছিল। তাই কোনোভাবেই দায় এড়াতে পারেন না নিরব।



সাতদিনের সেরা