kalerkantho

শনিবার । ৩১ আশ্বিন ১৪২৮। ১৬ অক্টোবর ২০২১। ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

হলিউডের চলচ্চিত্রে বাংলাদেশের প্রীতম

অনলাইন ডেস্ক   

১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ১৩:৩৯ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



হলিউডের চলচ্চিত্রে বাংলাদেশের প্রীতম

ছিলেন বাংলাদেশের জনপ্রিয় গায়ক। ছিল আরো অনেক পরিচয়, কিন্তু এখন সেসব ছাপিয়ে তিনি বলিউডের চলচ্চিত্রে। হ্যাঁ, এমনটাই সম্ভব হয়েছে বাংলাদেশের জনপ্রিয় গায়ক প্রীতমের দ্বারা। ২০১৬ সাল থেকে যুক্তরাজ্যে বসবাস করছেন এই শিল্পী। শুরুতে সংগীতকর্ম চালিয়ে গেলেও গত বছর থেকে নাম লিখিয়েছেন অভিনয়ে। কাজ করছেন হলিউডের প্রখ্যাত কয়েকটি প্রযোজনা সংস্থার সঙ্গে। সেসব সিনেমা-ওয়েব সিরিজ রয়েছে মুক্তির অপেক্ষায়।

 ইতিমধ্যেই নেটফ্লিক্স, ওয়ার্নার ব্রাদার্স, অ্যামাজন, সনির মতো আন্তর্জাতিক ওটিটি প্ল্যাটফর্মের সিনেমা ও ওয়েব সিরিজে অভিনয় করেছেন বলে জানিয়েছেন প্রীতম। এর সুবাদেই তিনি সম্প্রতি যুক্ত হলেন ব্রিটিশ রাজপরিবারের গল্পে! তালিকাভুক্ত হয়েছেন ব্রিটিশ অ্যাক্টর ও পারফর্মার হিসেবে।

প্রীতম জানান, সনি পিকচার্স প্রযোজিত শিশুদের একটি সিনেমায় তিনি কাজ করছেন। যেটির বাজেট ৩৬ মিলিয়ন ডলার। সিনেমাটিতে অভিনয়ের সুবাদে অভিভাবক হিসেবে তিনি পেয়েছেন একাডেমি অ্যাওয়ার্ড উইনার এমা স্টোন, এমা থমসনের মতো তারকাদের।

ব্রিটিশ রাজপরিবারের গল্প নিয়ে নির্মিত একটি সিরিজেও কাজ করেছেন বাংলাদেশের এই গায়েন। তিনি বলেন, "ব্রিটিশ রাজপরিবারের গল্প নিয়ে বিখ্যাত সিরিজ ‘দ্য ক্রাউন’। এর একটি বিশেষ পর্বে বাংলাদেশ হাইকমিশনারের চরিত্রে অভিনয়ের সুযোগ পেয়েছি আমি। বিষয়টি উল্লেখযোগ্য তিনটি কারণে। প্রথমটি হলো ‘দ্য ক্রাউন’-এর মতো ঐতিহাসিক প্রেক্ষাপটের সিরিজ। দ্বিতীয়টি সনি পিকচার্সের মতো পৃথিবীর প্রথম শ্রেণির প্রযোজনা সংস্থার সঙ্গে বাংলাদেশি শিল্পী হিসেবে চুক্তিবদ্ধ হয়ে অভিনয় করা। তৃতীয়ত, বাংলাদেশের পোশাক ও দেশের নামটি বিশ্বজুড়ে উপস্থাপন করার সুযোগ পাওয়া।’

প্রীতম আরো জানিয়েছেন, এসব সিনেমা-ওয়েব ফিল্মে তিনি এরই মধ্যে কাজ করেছেন বিশ্বখ্যাত অভিনেত্রী ক্লেইরি ফয়, এমা স্টোন, এলিজাবেথ ডেভিকি, জেমস বন্ড বা পাইরেটস অব দ্য ক্যারিবিয়ানের স্যার জোনাথন প্রাইস, হ্যারিপটারের ইমেলডা স্টাটান, ডমেনিক ওয়েস্ট প্রমুখের সঙ্গে।

গত এক বছরে সনি পিকচার্স, স্কাই টিভি, অ্যাপল টিভি, বিবিসি প্রডাকশন, ওয়ার্নার ব্রাদার্স, অ্যামাজন ও নেটফ্লিক্সের মোট ৫টি সিনেমা এবং ৮টা সিরিজে কাজ করেছেন বলেও জানান প্রীতম। যার বেশির ভাগই প্রকাশ হতে থাকবে ২০২২ সাল থেকে। কিছু সিনেমায় অডিও প্রডাকশনের কাজও করেছেন।
গানের পাশাপাশি দেশেও টুকটাক অভিনয় করেছিলেন প্রীতম। তবে লন্ডনে গিয়ে এবার বনে গেছেন পুরোদস্তুর অভিনেতা। তবে সংগীতকে একেবারেই ভোলেননি তিনি। বললেন, ‘লন্ডনে সংগীতে আন্তর্জাতিক মানের উচ্চশিক্ষা নিচ্ছি। যেন একটা সময় পৃথিবীর যেকোনো কলেজ বা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াতে পারি।’ অভিনয়ের পাশাপাশি সময়-সুযোগ বুঝে নতুন গান প্রকাশ করবেন বলেও জানিয়েছেন প্রীতম।

প্রীতম আহমেদ দেশে দুই যুগের ক্যারিয়ারে উপহার দিয়েছেন ‘বালিকা’, ‘চলো পালাই’, ‘ভালোবাসার মিছিলে এসো’র মতো জনপ্রিয় গান। অন্য শিল্পীদের কণ্ঠেও শ্রোতাপ্রিয়তা পেয়েছে তার লেখা-সুর। 



সাতদিনের সেরা