kalerkantho

শনিবার । ১৬ শ্রাবণ ১৪২৮। ৩১ জুলাই ২০২১। ২০ জিলহজ ১৪৪২

ইউসুফ-ঐশীর 'একটা স্বপ্ন নিয়ে আয়' দৃষ্টি কেড়েছে শ্রোতাদের

অনলাইন ডেস্ক   

২৩ মে, ২০২১ ২১:৩৬ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



ইউসুফ-ঐশীর 'একটা স্বপ্ন নিয়ে আয়' দৃষ্টি কেড়েছে শ্রোতাদের

'আমি নিয়মিত গান শুনি, বলতে পারেন গান শোনা আমার অন্যতম এন্টারটেইনমেন্ট। আমি সাধারণত একটু ক্লাসিক টাইপের গানই বেশি শুনি। অন্য গান যে শুনি না, তা নয়। তবে খুব সম্প্রতি শোনা একটি গান আমার হৃদয়কে দারুণভাবে স্পর্শ করেছে। গানটির কথা, সুর, সংগীত আয়োজন থেকে শুরু করে ভিজ্যুয়ালাইজেশন- সবই দারুণ ছিল। আর সবচে' সুন্দর ছিল দুজন শিল্পীর অনবদ্য গায়নভঙ্গি। সত্যিই, ঠিক এই সময়ে বাঙলাদেশে যা বিরল। গানসংশ্লিষ্ট সবকিছুর এত সুন্দর আর নান্দনিক সমন্বয় এর আগে আমি কোথাও শুনেছি - এমনটা মনে পড়ে না'।

এভাবেই নিজের গান শোনার অভিজ্ঞতা বর্ণনা করছিলেন একজন শ্রোতা। আর যে গানটি নিয়ে তিনি এমন মন্তব্য করছিলেন সেটি হলো ইউসুফ আহমেদ খান এবং রাকিবা ইসলাম ঐশীর নতুন ট্র্যাক 'একটা স্বপ্ন নিয়ে আয়'। ১৯ মে ওয়াইবিটস এর ইউটিউব চ্যানেল থেকে অবমুক্ত হয় গানটি। সাখাওয়াত হোসেন মারুফের কথায় সুর দিয়েছেন গায়ক নিজেই। সাউন্ড ডিজাইনও তাঁর। আর গানটির সার্বিক সাউন্ড অ্যারেঞ্জমেন্টের দায়িত্বে ছিল সাউন্ড ডিজাইনার্স গ্রুপ 'সাউন্ড হ্যাকার'।

গানটির সঙ্গে রয়েছে একটি মৃদূ অথচ শক্তিশালী মিউজিক ভিডিও। যার নির্দেশনা, সম্পাদনা এবং রঙের দায়িত্বে ছিলেন জাহিদুল ইসলাম। সিনেমাটোগ্রাফিতে পার্বত রায়হান। মিউজিক ভিডিওটিতে গায়ক-গায়িকার সঙ্গে স্বতঃস্ফূর্ত পারফর্ম করতে দেখা গেছে কামরুন্নাহার মুন্নীকে।

'আমি বরাবরই ভালো কাজ করতে চাই। কম অথচ ভালো।' বলছিলেন ই্‌উসুফ। 'যেহেতু অনেক দিন ধরে গান করি তাই গানের ক্ষেত্রে আমি বেশ চুজি। চেষ্টা করি ভালো কিছু করতে। ভালো না লাগলে করি না, তবে যা করি তা যেন নিজেকে স্যাটিসফাই করে- সেদিকে আমার নজর থাকে। গানটির সুর এবং সংগীত আয়োজনে আমাদের সবার পক্ষ থেকে সর্বোচ্চটা করা হয়েছে। শিল্পী হিসেবে ঐশী অসাধারণ- এটা বলার অপেক্ষা রাখে না। মুন্নীর পারফর্মেন্স নান্দনিক। সব মিলিয়ে ভালো কিছু করার চেষ্টা করেছি। আশা করি, শ্রোতারা বুঝবেন'।

'আমি দারুণ খুশি। এমন একটা প্রজেক্টে থাকতে পেরে।' বলছিলেন ঐশী। 'প্রতিটি শিল্পীই চান তার ভালো কিছু গান থাকুক। যা শ্রোতাদের অবসরের সঙ্গী হবে। আমি এই গানটির ব্যাপারে আশাবাদী। আমি বিশ্বাস করি- গানটি কালের গর্ভে হারিয়ে যাবে না। মানুষ শুনবে এবং ভালোবাসবে'। উচ্ছ্বসিত এই শিল্পী বলেন, ইউসুফ ভাই অনেক গুণী একজন শিল্পী। তাঁর সঙ্গে কাজ করতে পেরে আমি নিজেকে সৌভাগ্যবান মনে করছি।

গানটির মিউজিক ভিডিওতে পারফর্ম করেছেন কামরুন্নাহার মুন্নী। তিনি বলেন, এটা এমন একটা গান যেখানে শুধু শিল্পী দুজন পাশাপাশি বসে গেয়ে দিলেই হতো। আলাদাভাবে মিউজিক ভিডিও করার প্রয়োজন পড়ত না। গানটি অসাধারণ। মানহীন গানের সময়ে এই গানটি সুন্দর গানের মাইলফলক হয়ে থাকবে। গানটির কথা, সুর, সংগীত, ভিডিও- সবই পরিমিত; কোথাও ছিটেফোটাও বাড়বাড়ন্ত নেই। শ্রতিনন্দন এই গানটির জন্য শুভ কামনা।<>



সাতদিনের সেরা