kalerkantho

বুধবার । ২৯ বৈশাখ ১৪২৮। ১২ মে ২০২১। ২৯ রমজান ১৪৪২

ফিল্ম ক্লাবে জুয়া খেলা হয়, লাইভে বললেন ইকবাল

অনলাইন ডেস্ক   

২২ মার্চ, ২০২১ ১৬:২৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ফিল্ম ক্লাবে জুয়া খেলা হয়, লাইভে বললেন ইকবাল

সদ্য নির্বাচিত সভাপতি ওমর সানীর বিরুদ্ধে কঠিন অভিযোগের তীর ছুড়েছেন প্রযোজক ইকবাল। ইকবাল বলেন, ফিল্ম ক্লাবে একটি রুম রয়েছে। সেখানে লাখ লাখ টাকার জুয়া খেলা হয়। অথচ তাদের অধিকাংশ ফিল্ম ক্লাবের সদস্য নয়। নাশতা ৯টায় বন্ধ করে দেওয়া হলেও তাদের ভিআইপিভাবে নাশতা দেওয়া হয় ক্লাবের খরচে। রুম বন্ধ করে অবৈধ কাজের প্রতিবাদ করায় আমার সদস্যপদ স্থগিত করা হয়েছে। 

রবিবার  রাত ১০টায় ফিল্ম ক্লাবে নাশতা নিয়ে ওমর সানী-ইকবালের মাঝে অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটে। এ সময় ওমর সানীকে গালাগাল করে প্রাণনাশের হুমকি দেন ইকবাল। এ ঘটনায় ক্লাবের নিয়ম অনুযায়ী ছয় মাসের জন্য ইকবালের সদস্যপদ স্থগিতসহ ক্লাবে তার প্রবেশ নিষিদ্ধ করেছে সংগঠনটি। পাশাপাশি ইকবালের নামে থানায় সাধারণ ডায়েরিও করেন ওমর সানী।

তবে এক ভিডিও বার্তায় ইকবাল দাবি করেছেন, তিনি কাউকে হুমকি দেননি। বিষয়টি উল্লেখ করে ইকবাল বলেন, ‘২২ দিনে আপ্যায়ন খরচ দুই লাখ ২১ হাজার টাকা। চা-বিস্কুট বাবদ এই খরচ হয়েছে! কোনো অতিথি গেলে এত টাকা খরচ হয়? এ বিষয় নিয়ে ক্লাবে গালাগাল করেছি। আমি কোনো ব্যক্তিকে গালাগাল করিনি। কিন্তু উনি (ওমর সানী) গায়ে নিয়েছেন। আমি নিজেই বলেছি- আমাকে বহিষ্কার করুন। এই অনিয়মের মধ্যে আমি থাকতে চাই না। আমি কাউকে হুমকি দেইনি।’

গুলশান থানায় সাধারণ ডায়েরি (১৪০৬) করেছেন ওমর সানী। তিনি জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে জিডি করেছেন। এদিকে ইকবাল ফেসবুক পেইজে এক ভিডিও বার্তায় বলেছেন, তার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র হচ্ছে। ওমর সানী তার জিডিতে যা উল্লেখ করেছেন তা মিথ্যা ও ভিত্তিহীন।

ইকবাল ‘শুটার’, ‘পাসওয়ার্ড’, ‘বীর’সহ বেশ কয়েকটি সিনেমা প্রযোজনা করেছেন। ফিল্ম ক্লাবের আজীবন সদস্য তিনি। তিনি এই সংগঠনের সাবেক সাধারণ সম্পাদক।



সাতদিনের সেরা