kalerkantho

রবিবার। ৫ বৈশাখ ১৪২৮। ১৮ এপ্রিল ২০২১। ৫ রমজান ১৪৪২

রাজবাড়ীতে পদ্মার বুকে রোমান্স

অনলাইন ডেস্ক   

৩ মার্চ, ২০২১ ১৩:০৯ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



রাজবাড়ীতে পদ্মার বুকে রোমান্স

চিত্রনায়ক নিরব তুমুল জনপ্রিয় অভিনেত্রী রোজিনার পরিচালনায় অভিনয় করছেন নতুন একটি ছবিতে। সিনেমার নাম ‘ফিরে দেখা’। সোমবার রাতভর রাজধানীর এফডিসিতে চোখ সিনেমার শুটিং করে পরেরদিনই নিজের জেলা রাজবাড়ীতে রওনা দেন নিরব। প্রথমবারের মতো নিজের জন্মভূমিতে অভিনয় করছেন তিনি।

রাজবাড়ীর জেলার পদ্মা নদীর পাড়ে মঙ্গলবার সকাল ভোর থেকে শুটিং করছেন নিরব-স্পর্শিয়া। এই সিনেমার মাধ্যমে প্রথমবার তারা একসঙ্গে জুটি বাঁধলেন। এই দুই শিল্পী জানান, গান দিয়ে এই ছবির শুটিং শুরু হয়েছে।

রাজবাড়ী থেকে মোবাইল ফোনে নিরব কথা বললেন। বলছিলেন, নদীর তীরে বাঁধানো নৌকায় বসে তখন খাবার খাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। নিরবের সঙ্গে ছিলেন স্পর্শিয়া, কোরিওগ্রাফার মাসুম বাবুল এবং শুটিং ইউনিটের অন্য সদস্যরা। নিরব বলেন, গত রাতে এফডিসিতে ‘চোখ’ সিনেমার শুটিং শেষ করে রাজবাড়ী এসেছি ফিরে দেখা’র শুটিঙে।

প্রায় ২০ দিন টানা সেখানে শুটিং করবেন নিরব। তিনি বলেন, আমার নিজের জেলা রাজবাড়ী। প্রথম নিজের এলাকায় সিনেমার শুটিং করছি। নিজের মধ্যে অন্যরকম  অনুভূতি কাজ করছে। এখানে আমার দাদা ও নানা বাড়ি। সবাই আমার আপন মানুষ। তাই এই সিনেমার জন্য আমার আলাদা এক টান কাজ করছে। ভোর থেকে গানের শুটিং করেছি, সন্ধ্যায় অন্য দৃশ্যের শুটিং করব।

নিরব জানান, প্রথমদিন যে গানটির মাধ্যমে ‘ফিরে দেখা’র শুটিং শুরু হয়েছে ওই গানটির নাম ‘অন্তর মোড়ে’। লিখেছেন সোমেশ্বর অলি। গেয়েছেন ইমরান ও কনা। নিরব বলেন, এটি পুরোপুরি রোমান্টিক গান। গল্পের সঙ্গে মিলিয়ে গানটি রাখা।

‘ফিরে দেখা’ সরকারি অনুদান প্রাপ্ত সিনেমা। ২০১৯-২০ অর্থ বছরে রোজিনা এ সিনেমার জন্য অনুদান পেয়েছেন। মুক্তিযুদ্ধের সময়ের গল্প নিয়ে ‘ফিরে দেখা’ সিনেমার কাহিনী। চিত্রনাট্য করেছেন রোজিনা নিজেই। গোয়ালন্দ উপজেলার কুমড়াকাধি গ্রামের একটি পরিবার ও রোজিনার স্মৃতি থেকে কিছু ঘটনা নিয়ে ছবির গল্প।

এ সিনেমার মাধ্যমে প্রথমবার সিনেমা নির্মাণ করছেন রোজিনা। তিনি বলেন, গোয়ালন্দ আমার নানাবাড়ি। যুদ্ধের সময় আমি সেখানেই ছিলাম। বোঝার মতো বয়স ছিল তখন। সিনেমায় আমার দেখা যুদ্ধের সময়ের কিছু ঘটনাও থাকবে। আমি বিশ্বাস করি অভিনয়ে যেমন দর্শক আমাকে গ্রহণ করেছেন, কাজগুলো মনে রেখেছেন; পরিচালনাতেও আমার কাজ দর্শক দেখবেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা