kalerkantho

মঙ্গলবার । ৩০ চৈত্র ১৪২৭। ১৩ এপ্রিল ২০২১। ২৯ শাবান ১৪৪২

'গোল্ডেন গ্লোব' পুরস্কারে এবার নেটফ্লিক্সের জয়জয়কার

অনলাইন ডেস্ক   

২ মার্চ, ২০২১ ১০:৪৮ | পড়া যাবে ৫ মিনিটে



'গোল্ডেন গ্লোব' পুরস্কারে এবার নেটফ্লিক্সের জয়জয়কার

এশীয় বংশোদ্ভূত পরিচালক হিসেবে পুরস্কার জিতে ইতিহাসের পাতায় ক্লোয়ি ঝাও।

 গোল্ডেন গ্লোবের গুরুত্বপূর্ণ পুরস্কার ও উল্লেখযোগ্য ঘটনা নিয়ে লিখেছেন লতিফুল হক

চলচ্চিত্র ও টেলিভিশন জগতের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ পুরস্কার গোল্ডেন গ্লোবের ৭৮তম আসর বসেছিল ২৮ ফেব্রুয়ারি। যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ার দ্য বেভারলি হিলটন হোটেল ও নিউ ইয়র্ক থেকে ভার্চুয়ালি সম্প্রচারিত হয় এবারের আসর। করোনার কারণে দীর্ঘ বিরতির পর এটাই সবচেয়ে বড় পুরস্কার আসর। উপস্থাপনা করেন টিনা ফে ও অ্যামি পোলার।

দ্য ক্রাউন ও নেটফ্লিক্সের জয়

২০২০ সালের গোল্ডেন গ্লোব ছিল নেটফ্লিক্সের জন্য দুঃস্বপ্নের মতোই। মোটে একটি পুরস্কার জুটেছিল। সেখান থেকে ঘুরে দাঁড়িয়ে এবার স্টুডিওগুলোর মধ্যে সর্বোচ্চ ১০টি পুরস্কার জিতেছে নেটফ্লিক্স। এর মধ্যে আসরের সর্বোচ্চ চারটি পুরস্কার জিতেছে আলোচিত-সমালোচিত সিরিজ ‘দ্য ক্রাউন’-এর জন্য। কুইন দ্বিতীয় এলিজাবেথকে নিয়ে ঐতিহাসিক ড্রামা সিরিজটি জিতেছে ‘সেরা টিভি সিরিজ-ড্রামা’র পুরস্কার। এই সিরিজের জন্য টিভি ক্যাটাগরিতে সেরা অভিনেতা ও অভিনেত্রী হয়েছেন জশ ও’কনর এবং এমা করিন। সবচেয়ে বড় চমক প্রিন্সেস ডায়ানা চরিত্র করে এমার সেরা অভিনেত্রীর পুরস্কার জয়। ২৫ বছর বয়সী অখ্যাত এই ব্রিটিশ অভিনেত্রী এক সিরিজ দিয়েই বাজিমাত করলেন। অলিভিয়া কোলম্যান, জুডি কোমারদের পেছনে ফেলে সেরার পুরস্কার জিতলেন। একই সিরিজের জন্য টিভি ক্যাটাগরিতে সেরা পার্শ্ব-অভিনেত্রী হয়েছেন জিলিয়ান অ্যান্ডারসন। নেটফ্লিক্সের আরেকটি আলোচিত সিরিজ ‘দ্য কুইনস গামবিট’। অনুমিতভাবেই এটি ‘সেরা মিনি  সিরিজ অথবা টেলিভিশন ফিল্ম’ ক্যাটাগরিতে সেরা হয়েছে। এই সিরিজের আনা টেইলর জয় হয়েছেন সেরা অভিনেত্রী। এইচবিওর সিরিজ ‘শিটস ক্রিক’ হয়েছে ‘মিউজিক্যাল অথবা কমেডি’ ক্যাটাগরির সেরা সিরিজ।

 

ক্লোয়ির ইতিহাস

গেল বছর ভেনিস চলচ্চিত্র উৎসবে ‘সোনার সিংহ’ জিতে শুরু হয়েছিল ‘নোমাডল্যান্ড’-এর জয়রথ। এরপর পুরস্কার জেতে পিপলস চয়েস ও টরন্টো চলচ্চিত্র উৎসবেও। সমালোচকদের মতে, ২০২০ সালের অন্যতম সেরা এই চলচ্চিত্রটি অনুমিতভাবে ‘ড্রামা’ ক্যাটাগরিতে সেরা ছবি হয়েছে। ঘরবাড়ি হারিয়ে মাঝবয়সী এক নারীর যাযাবর জীবন নিয়ে খুবই অল্প বাজেটে নির্মিত ছবিটির জন্য সেরা পরিচালকের পুরস্কারও জিতেছেন ক্লোয়ি ঝাও। এর মাধ্যমে ৩৮ বছর বয়সী পরিচালক ঢুকে পড়েছেন ইতিহাসের পাতায়। এবারই প্রথম কোনো নারী পরিচালকের ছবি জিতল গোল্ডেন গ্লোবের সর্বোচ্চ পুরস্কার। এ ছাড়া দ্বিতীয় নারী পরিচালক হিসেবে গোল্ডেন গ্লোবে সেরা পরিচালক হয়েছেন ক্লোয়ি। চীনা বংশোদ্ভূত ক্লোয়ি প্রথম এশীয় হিসেবেও সেরা পরিচালকের পুরস্কার জিতেছেন। পুরস্কার জেতার পর ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে ক্লোয়ি বলেন, ‘এশিয়ার মেয়েদের জন্য এটি বড় প্রেরণা হিসেবে কাজ করবে।’ 

 

বসম্যান স্মরণ

২০২০ সালের ২৮ আগস্ট প্রয়াত হয়েছেন ‘ব্ল্যাক প্যান্থার’ খ্যাত অভিনেতা চ্যাডউইক বসম্যান। ড্রামা ক্যাটাগরিতে সেরা অভিনেতা হয়েছেন তিনি। ‘মা রেইনিজ ব্ল্যাক বটম’ ছবিতে লেভি গ্রিন চরিত্রে অভিনয়ের জন্য এ পুরস্কার পান তিনি। তাঁর পুরস্কার গ্রহণ করেন স্ত্রী টেইলর মিমোনে লেডওয়ার্ড। 

 

বোরাত-এ বাজিমাত

অ্যামাজন প্রাইম ভিডিওতে মুক্তি পেয়েই ব্যাপক জনপ্রিয়তা পায় ‘বোরাত’ সিরিজের ছবি ‘বোরাত সাবসিকুয়েন্ট মুভি ফিল্ম’। ‘হ্যামলেট’-এর মতো ফেভারিট ছবিকে পেছনে ফেলে ‘বোরাত’ সেরা হয়েছে ‘মিউজিক্যাল অথবা কমেডি’ ছবির ক্যাটাগরিতে। ছবির অভিনেতা সাশা ব্যারন কোহেন একই ক্যাটাগরিতে হয়েছেন সেরা অভিনেতা।

 

নেই ম্যানকপ্রমিজিং ইয়ং ওম্যান

নেটফ্লিক্সের ছবি ‘ম্যানক’কে পুরস্কারের মৌসুমে অন্যতম ফেভারিট মনে করেছিলেন সমালোচকরা। ‘দ্য ক্রাউন’-এর সঙ্গে সমান ছয়টি মনোনয়নও পেয়েছিল ডেভিড ফিঞ্চারের ছবিটি। আশ্চর্যভাবে একটি পুরস্কারও জোটেনি! একইভাবে চারটি মনোনয়ন পেয়েও খালি হাতে ফিরতে হয়েছে ব্ল্যাক কমেডি থ্রিলার ‘প্রমিজিং ইয়ং ওম্যান’কেও।

 

অ্যান্ড্রা ও রোজামন্ড চমক

‘ম্যানক’ ও ‘প্রমিজিং ইয়ং ওম্যান’-এর পুরস্কার না জেতা এবারের গোল্ডেন গ্লোবের সবচেয়ে বড় চমক। তবে সেরা অভিনেত্রী [ড্রামা] ও সেরা পার্শ্ব-অভিনেত্রী [মিউজিক্যাল ও কমেডি] হিসেবে অন্দ্রা দে এবং রোজামন্ড পাইকের পুরস্কার জেতাও কম আশ্চর্যের নয়। মূলত গায়িকা অন্দ্রা পুরস্কার জিতেছেন ‘দ্য ইউনাইটেড স্টেটস ভার্সেস বিলি হলিডে’ ছবির জন্য। দ্বিতীয় কৃষ্ণাঙ্গ নারী হিসেবে এই পুরস্কার জিতলেন তিনি। এই ক্যাটাগরিতে সমালোচকদের মতে এগিয়ে ছিলেন ভানেসা কিরবি [পিসেস অব আ ওম্যান], ফ্রান্সিস ম্যাকডরম্যান্ড [নোমাডল্যান্ড], ক্যারি মুলিগান [প্রমিজিং ইয়াং ওম্যান]। অন্যদিকে ‘আই কেয়ার আ লট’-এর জন্য প্রথম গোল্ডেন গ্লোব জিতেছেন রোজামন্ড। যদিও তাঁর ক্যাটাগরিতে ফেভারিট ছিলেন কেট হাডসন ও আনা টেইলর জয়।

 

ফিকে লাল গালিচা ও ভার্চুয়াল গোল্ডেন গ্লোব

মহামারির কারণে এবারের অনুষ্ঠান হয় ভার্চুয়ালি। গোল্ডেন গ্লোবের নিয়মিত ভেন্যু দ্য বেভারলি হিলটন হোটেলের সঙ্গে যুক্ত হয় নিউ ইয়র্কের একটি ভেন্যুও। দুই জায়গা থেকে যুক্ত হন দুই উপস্থাপক টিনা ফে ও অ্যামি পোলার। বেশ কয়েকবার সম্প্রচারে বিঘ্ন, কখনো জয়ীদের মাইক্রোফোন বন্ধ হওয়ার মতো টুকটাক বিড়ম্বনা ছিল। প্রতিবারের বিবেচনায় এবারের লাল গালিচা ছিল অনেকটাই ফিকে। চেনামুখের মধ্যে হাজির ছিলেন সালমা হায়েক, মার্গট রবি, আমান্ডা সেফ্রিড, গাল গ্যাদত প্রমুখ। হয়নি জাঁকজমক পার্টি ও ডিনারও।

সূত্র : এএফপি, ভ্যারাইটি

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা