kalerkantho

সোমবার । ২৩ ফাল্গুন ১৪২৭। ৮ মার্চ ২০২১। ২৩ রজব ১৪৪২

বিগবসের ঘর থেকে বের হয়েই বিয়ে!

অনলাইন ডেস্ক   

১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০০:৪৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বিগবসের ঘর থেকে বের হয়েই বিয়ে!

রাহুল বৈদ্য ও দিশা পারমারের বিয়ের দিনক্ষণ চূড়ান্ত। বিগ বসের ঘর থেকে বের হওয়ার মাসখানেকের মধ্যেই বিয়ের পিঁড়িতে বসতে যাচ্ছেন রাহুল। সংগীতশিল্পীর বোন শ্রুতি স্পটবয়কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে রাহুল-দিশার বিয়ের খবর নিশ্চিত করেছেন। 

কয়েক দিনের মধ্যেই শেষ হচ্ছে বিগবস সিজন ১৪। চলতি সিজনের সবচেয়ে আলোচিত প্রতিযোগী হিসেবে উঠে এসেছে দুটি নাম- রুবিনা দিলাইক ও রাহুল বৈদ্য। অনেকের মতেই রাহুল এই বছর বিগ বসের ট্রফি জেতার যোগ্য দাবিদার। রাহুলকে যে ভালোবাসা আর সমর্থন গোটা দেশ দিচ্ছে তা দেখে আপ্লুত গায়কের পরিবার। 

শ্রুতি জানিয়েছেন, তিনি আত্মবিশ্বাসী যে রাহুল বিগ বসের ট্রফিসহই ঘরের বাইরে আসবে। পাশাপাশি বিগ বস থেকে ফিরেই বিয়ের তোড়জোড়ে ব্যস্ত হয়ে পড়বেন তিনি সে কথাও মেনে নিয়েছেন শ্রুতি। চলতি বছরেই বিয়ের পিঁড়িতে বসছেন রাহুল-দিশা, নিশ্চিত করেন শ্রুতি বৈদ্য। পরিবারের ঘনিষ্ঠমহলের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, জুন মাসের বেশ কয়েকটি শুভ দিন বাছা হয়েছে, তবে তারিখ পাকা হয়নি। রাহুল বিগ বসের ঘর থেকে ফিরলে তারপর বিয়ের দিন ঠিক হবে।

উল্লেখ্য, গত বছর নভেম্বরে বিগ বসের ঘরেই দিশার সঙ্গে নিজের চর্চিত প্রেম কাহিনির খবরে সিলমোহর দেন রাহুল। এবং দিশাকে বিয়ের প্রস্তাব দেন জাতীয় টেলিভিশনে। রাহুলকে বলতে শোনা গিয়েছিল, 'আমার জীবনে এমন একজন মানুষ আছে, যাকে আমি গত দুই বছর ধরে চিনি। সেই মেয়েটি হলো দিশা পারমার, কোনো দিনও নিজেকে এতটা নার্ভাস মনে হয়নি। দিশা, আমার মনে হয় তুমি এই পৃথিবীতে সবচেয়ে সুন্দরী। এরপর হাঁটু গেড়ে বসে, আংটি হাতে নিয়ে বলেন- দিশা, তুমি কি আমায় বিয়ে করবে?

এত দিন পর রাহুলের প্রশ্নের জবাব নিয়ে অবশেষে বিগ বসের ঘরে হাজির হচ্ছেন দিশা। আজ রাতের এপিসোডে রাহুলকে চমকে দিয়ে বিগ বসের ঘরে প্রবেশ করবেন দিশা। এবং রাহুলের বিয়ের প্রস্তাব গ্রহণ করবেন হাসিমুখে।

টেলিভিশনের দুনিয়ার পরিচিত নাম দিশা পারমার। স্টার প্লাসের ধারাবাহিক ‘প্যায়ার কা দরদ হ্যায়, মিঠা মিঠা প্যায়ারা প্যায়ারা’-তে পংখুরি চরিত্রে অভিনয় করে ব্যাপক জনপ্রিয়তা কুড়িয়েছিলেন দিশা। রাহুল বৈদ্যর সঙ্গে 'ইয়াদ তেরি' নামের এক মিউজিক ভিডিওতে দেখা মিলেছে দিশার।

সূত্র : হিন্দুস্তান টাইমস।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা