kalerkantho

রবিবার । ১০ মাঘ ১৪২৭। ২৪ জানুয়ারি ২০২১। ১০ জমাদিউস সানি ১৪৪২

'আমাকে মরে প্রমাণ করতে হবে?'

অনলাইন ডেস্ক   

২২ ডিসেম্বর, ২০২০ ১৬:২৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



'আমাকে মরে প্রমাণ করতে হবে?'

অভিনেত্রী পায়েল ঘোষ মুম্বাই পুলিশের বিরুদ্ধে নিষ্ক্রিয়তার অভিযোগ তুললেন। অভিনেত্রীর অভিযোগ, এফআইআর দায়ের করার পর প্রায় চার মাস কেটে গেলেও পুলিশ কোনও পদক্ষেপ করেনি।

সোমবার টুইটারে অসন্তোষ প্রকাশ করে পায়েল লেখেন, ‘চার মাস কেটে গেল। আমি সব রকম তথ্যপ্রমাণ দেওয়ার পরেও অনুরাগ কাশ্যপের বিরুদ্ধে কোনও পদক্ষেপ করা হয়নি। তদন্ত এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য কি এ বার আমাকে মরতে হবে?’

এখানেই থেমে যাননি পায়েল। পরে আরও একটি টুইট করেন, ‘অনেকটা সময় কেটে গেছে। মুম্বাই পুলিশ সম্পূর্ণরূপে তার কাজ করেনি। আমি অনুরোধ করছি। এটা এক নারীর বিষয়। আমাদের মাথায় রাখতে হবে আমরা কী ধরনের উদাহরণ সৃষ্টি করছি।’

কলকাতার মেয়ে পায়েল গত সেপ্টেম্বরে অনুরাগের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগ আনেন। পায়েল তাঁর অভিযোগে জানিয়েছিলেন, অনুরাগ তাঁর ছবিতে ‘কাস্টিং’ নিয়ে আলোচনা করার নামে পায়েলকে তাঁর আন্ধেরির ফ্ল্যাটে ডেকে তাঁর শ্লীলতাহানি এবং ধর্ষণের চেষ্টা করেন। ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৭৬, ৩৫৪, ৩৪১ এবং ৩৪২ ধারা অনুযায়ী অনুরাগের বিরুদ্ধে একটি মামলা রুজু করা হয়েছিল। ভারসোভা থানায় অনুরাগকে ডেকে জিজ্ঞাসাবাদও করে মুম্বই পুলিশ।

পরিচালকের আইনজীবী প্রিয়াঙ্কা খিমানি এক বিবৃতিতে জানান, ‘অনুরাগ তাঁর কথার পক্ষে সবরকম তথ্য পেশ করেছেন মুম্বাই পুলিশের কাছে। ২০১৩-র অগস্ট মাস জুড়ে তিনি শ্রীলঙ্কায় ছবির শ্যুটিং করছিলেন। পরিচালক ওই ঘটনা এবং তাঁর বিরুদ্ধে সমস্ত অভিযোগ তাই অস্বীকার করছেন।’

এই অভিযোগ প্রথমে বলিউডে ঝড় তুললেও সময়ের সঙ্গে ক্রমশ থিতিয়ে যায় পুরো বিষয়টি। মুম্বাই পুলিশের দিক থেকেও আর বিশেষ কোনও তৎপরতা দেখা যায়নি। এই মুহূর্তে অনুরাগ তাঁর নতুন ছবি ‘একে ভার্সেস একে’র প্রমোশনে ব্যস্ত। এর মধ্যেই পায়েলের টুইট কি নতুন করে বিতর্ক জাগিয়ে তুলবে?

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা