kalerkantho

শনিবার । ২১ ফাল্গুন ১৪২৭। ৬ মার্চ ২০২১। ২১ রজব ১৪৪২

'মাঝবয়সী সৌমিত্রকে পেলেও চুটিয়ে প্রেম করতাম'

অনলাইন ডেস্ক   

১৫ ডিসেম্বর, ২০২০ ১৩:৪৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



'মাঝবয়সী সৌমিত্রকে পেলেও চুটিয়ে প্রেম করতাম'

কয়েক দিন আগে ঘুম থেকে উঠেই মনের ব্যথা শেয়ার করেছিলেন শ্রীলেখা মিত্র। সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে লিখেছিলেন, এই ওয়েদারে ভীষণ প্রেম পাচ্ছে। কিন্তু প্রেমিক পাচ্ছি না … সবই কপাল।

গতকাল সোমবার সকালে বোঝা গেল, কেন তিনি মনের মতো প্রেমিক খুঁজে পাচ্ছেন না!  শ্রীলেখা সবার মধ্যেই সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়কে খুঁজে বেড়াচ্ছেন!

কাল সকালে সাত বছর আগের একটি পোস্ট ফেসবুকে সামনে আসতেই নস্টালজিক হয়ে পড়েন শ্রীলেখা মিত্র। ছবিতে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে তিনি আর জয় সেনগুপ্ত। 

ক্যাপশনে লিখেছেন, ছবি সামনে আসতেই ভিড় জমালো পুরনো স্মৃতি। শুটিংয়ের ফাঁকে রাজনীতি থেকে অভিনয় হয়ে বই... সব নিয়ে জমজমাট আড্ডা।

তিনি আরো লেখেন, ইসসস! যদি সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের সমকালীন হতাম। পুরোটা না হলেও অন্তত সৌমিত্র কাকুর সময়ের কাছাকাছিও যদি জন্মাতাম; তাহলে পর্দায়, বাস্তবে তাঁর সঙ্গে চুটিয়ে প্রেম করতাম।

শ্রীলেখা বলেন, ছবিটা দেখছি আর মনে পড়ছে ‘তিন ভুবনের পারে-র সৌমিত্রকাকুকে। ‘কে তুমি নন্দিনী’ গানের তালে সে কী ট্যুইস্ট!

আমার একজন নায়কও ওই রকম ইন্টেলেকচ্যুয়াল প্রেমিক নন। ফলে কোনো নায়কের সঙ্গে প্রেম হলো না। আর সৌমিত্রকাকুর সংস্পর্শে যখন এলাম, তখন তিনি বুড়ো। কাকু হয়ে গেছেন আমার। কাকুর সঙ্গে প্রেম হয়?

তিনি আরো বলেন, যদি মাঝবয়সী সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গেও অভিনয়ের সুযোগ পেতাম, তাহলেও প্রেম করতাম। তাতেও আপত্তি ছিল না বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন তিনি।

শ্রীলেখা বলেন, ফ্যান ফলোয়ার্স আমারও কিছু কম নয়। টক্কর সমানে সমানে হতো। উনিও আমাকে নিয়ে ইনসিকিওরিটিতে ভুগতেন। জমে যেত আমাদের প্রেম।

সূত্র : আনন্দবাজার।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা