kalerkantho

মঙ্গলবার। ৫ মাঘ ১৪২৭। ১৯ জানুয়ারি ২০২১। ৫ জমাদিউস সানি ১৪৪২

'করোনা আক্রান্ত' পোস্ট দিয়ে শুটিং করলেন অভিনেতা

অনলাইন ডেস্ক   

২ ডিসেম্বর, ২০২০ ১৬:৩৮ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



'করোনা আক্রান্ত' পোস্ট দিয়ে শুটিং করলেন অভিনেতা

স্ত্রী করোনা আক্রান্ত, তার সেবা করতে গিয়ে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন- এমন একটি পোস্ট দেওয়ার পরের এক থেকে দেড় ঘণ্টার মধ্যে অভিনেতাকে কারওয়ান বাজারের মতো জনবহুল এলাকায় দেখা গেল ক্যামেরার সামনে। করেছেন একটি নাটকের শুটিং। 

অভিনেতা তৌসিফ মাহবুব করোনায় আক্রান্ত। এমন খবর দেশের প্রায় সকল গণমাধ্যমে মঙ্গলবার রাতে প্রকাশিত হয়েছে। সবখানেই তৌসিফের ফেসবুক পোস্টের বরাত দিয়ে সংবাদটি প্রকাশ করা হয়। আর একইদিন সন্ধ্যায় তৌসিফকে কারওয়ান বাজারে রাফাত মজুমদার রিংকুর নাটকের কয়েকটি দৃশ্যের শুটিঙে দেখা গেল। এই ঘটনায় বিস্ময় প্রকাশ করেছেন শিল্পী সংঘের সাধারণ সম্পাদক আহসান হাবিব নাসিম।

এর আগে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় তৌসিফ মাহবুব নিজের ফেসবুকে লিখেছেন, প্রতিটি স্বামীকে এই দিনটি দেখতে হবে। আল্লাহ সকলকে শক্তি দান করুন সেই আশা করি... ছবিটি পুরাতন, কিন্তু বউটা এইবার অনেক অসুস্থ... #করোনা। শুধু বউনা, শ্বশুর বাড়িতে সবাই...। ...আমিও দোয়া করবেন। প্লিজ...।'

এই পোস্ট দেওয়ার পরেই তৌসিফকে শুটিং করতে দেখা যায়

ভক্তরা সেখানে মন্তব্য করে প্রার্থনা জানিয়েছেন যেন দ্রুত সকলেই আরোগ্য লাভ করে।

স্ত্রীর সঙ্গে তিনিও করোনায় আক্রান্ত এ কথা নিজেই ফেসবুকে লেখার পর সকল গণমাধ্যমে 'তৌসিফ সস্ত্রীক করোনায় আক্রান্ত' এমন খবর প্রকাশিত হয়েছে, তারপরেও কেন শুটিঙে অংশ নিলেন, এই বিষয়ে জানার পরে তৌসিফের ফোনে একাধিকবার ফোন কল করা হলেও তিনি ধরেননি। মেসেজ দিয়ে ফের ফোন দিলেও 'ওয়েটিং' অপশন দেখায়, সেসময় তিনি ফোন কেটে দেন। এরপর প্রতিবেদক তাকে পরিচয় দিয়ে পরিস্কার বাংলা ভাষায় মেসেজে লেখেন, 'আপনি কভিড আক্রান্ত লিখেছেন, কাল সন্ধ্যায় শুটিং করেছেন- বিষয়টা জানতে চাচ্ছিলাম।' এরপরেও তৌসিফের সাড়া পাওয়া যায়নি।

এ বিষয়ে নির্মাতা রাফাত মজুমদার রিংকু বলেন, 'তৌসিফ অসুস্থ ছিল, কিন্তু আমরা জানি সুস্থ হয়ে গেছেন। যেহেতু সুস্থ হয়ে গেছেন, সেহেতু আমার একটা নাটকের সামান্য কয়েকটি অংশ ছিল, রাস্তার দৃশ্য।  অল্প সময়ের শুট আমরা করেছি।'

রাজধানীর কারওয়ান বাজারের কয়েকটি অংশে শুটিং হয়েছে। তৌসিফের সঙ্গে শুটিঙে অংশ নিয়েছিলেন এলআর সোহেল। কারওয়ান বাজারে ইত্তেফাক ভবনের সামনে শুটিং করার সময় তৌসিফ মাহবুবকে দেখা যায় সোহেলকে ইট দিয়ে মাথা ফাটিয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে পকেট থেকে টাকা বের করে নিয়েউন্মাদের মতো চলে যাচ্ছেন।

এ বিষয়ে সোহেলকে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, তৌসিফকে তো অসুস্থ মনে হয়নি। তাকে স্বাভাবিকভাবেই দেখা গেছে শুটিঙে। আর আমি পরিচালনা করি, রিংকু ভাইয়ের নাটকে অভিনয় করেছি। তৌসিফ ভাই পোস্ট দিয়েছেন সেটাও দেখিনি। 

এ প্রসঙ্গে অভিনয় শিল্পী সংঘের সাধারণ সম্পাদক আহসান হাবীব নাসিম  বলেন, 'করোনা আক্রান্ত কেউ পোস্ট দিয়ে শুটিং করতে যাবে না এটা অন্যায়। তার তো সেলফ আইসোলেশনে থাকার কথা। আমরা স্বাস্থ্যবিধি মেনে শিল্পীদের শুটিং করছি অথচ একজন শিল্পী নিজে পোস্ট দিলেন আবার জনবহুল এলাকায় শুটিং করলেন এটা ঠিক হয়নি।' .

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা