kalerkantho

শুক্রবার । ৮ মাঘ ১৪২৭। ২২ জানুয়ারি ২০২১। ৮ জমাদিউস সানি ১৪৪২

যখন তুমি নিঃসঙ্গ, হৃদয়ের দরজা খুলে দাও; আলো আসতে দাও

অনলাইন ডেস্ক   

২ ডিসেম্বর, ২০২০ ১২:২১ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



যখন তুমি নিঃসঙ্গ, হৃদয়ের দরজা খুলে দাও; আলো আসতে দাও

আলো আসতে দাও

তোমার হৃদয় খুলে দাও, সে রোশন প্রবেশ করুক হৃদয় প্রকোষ্ঠে
তুমি যখন একা, নিঃসঙ্গ; সে তোমায় প্রজ্জ্বলিত করবে
হৃদয়ের প্রতিটি দরজা খুলে দাও, এ রোশন অবারিতভাবে প্রবেশ করুক... 
যখন তুমি বুঝতে পারবে তুমি তোমার সঙ্গে অন্যায় করা হয়েছে 
আর সেই সময়টা তোমার কাছের বন্ধুরাও মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে
শুধু তোমার হৃদয়টা খুলে দাও এবং আলোয় আলোয় ভরে যাক হৃদয় 

২০১৫ সালে ফেসবুকে ফারিয়া-অপুর পরিচয়। সেখান থেকে বন্ধুত্ব ও প্রেম। তিন বছর পর ২০১৮ সালের ফেব্রুয়ারিতে তাঁরা আংটিবদল করেন। গত বছরের ১ ফেব্রুয়ারি ধুমধাম করে বিয়ে হয় অভিনেত্রী শবনম ফারিয়া ও বেসরকারি চাকরিজীবী হারুন অর রশীদ অপুর। সেই হিসাবে তাঁদের সম্পর্কের বয়স পাঁচ বছর। হঠাৎ করেই অপুর স্মৃতি ভোলা যাবে না উল্লেখ করে ফারিয়া ফেসবুকে লিখেছেন, ‘যে মানুষটার সঙ্গে গত পাঁচ বছর আমার জীবন প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে জড়িয়ে ছিল, সেই মানুষটার অসংখ্য স্মৃতি রয়েছে, যা চাইলেই হঠাৎ করে মুছে ফেলা সম্ভব নয়। বিচ্ছেদের পরে তাঁকে কীভাবে ছোট করি।’

শবনম ফারিয়া এই বিচ্ছেদে যখন ব্যথিত হয়েছেন তখন সে ক্ষতে আঘাত করেছে সাধারণ ফেসবুক ব্যবহারকারীরা। বলেছেন কটূকথা, বলতে ছাড়েন নি মিডিয়ার বিয়ে এমনই হয়। অন্তত বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমের মন্তব্যে বাক্সে এমন মন্তব্যে পরিপূর্ণ। ফারিয়া নিজেকে ফেসবুক থেকে সরিয়ে নিয়েছেন। আপাতত তার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট নিস্ক্রিয়। রয়েছেন ফেসবুক থেকে দূরে। কিন্তু দূর সুদূরেও নিজের দুঃখের কথা জানান দিয়েছেন। হয়তো সাধারণ ইন্টারনেট ব্যবহারকারীরার নেই সেখানে আর এ জন্যই বলতে পেরেছেন- 'যখন তুমি বুঝতে পারবে তুমি তোমার সঙ্গে অন্যায় করা হয়েছে,  আর সেই সময়টা তোমার কাছের বন্ধুরাও মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে;  শুধু তোমার হৃদয়টা খুলে দাও এবং আলোয় আলোয় ভরে যাক হৃদয়...'

কখনো কখনো গানের কথাগুলো নিজের কথা হয়ে আসে, মনে হয় খুব নিকটবর্তী কথা এবং 'আমার' এমন কথা কে টের পেয়ে এতো আগে লিখে গিয়েছে, গেয়ে গিয়েছে? অ্যাকুরিয়াস নামের একটি গানের অ্যালবামের 'লেট দ্য সানশাইন ইন' গানের অংশ বিশেষ শুরুতেই উল্লেখিত কথাগুলো। যেটা যৌথভাবে লিখেছেন,  জেরোমি রাগনি,জেমস রাডো, গল্ট ম্যাকডারমট। ১৯৬৯  সালে প্রকাশিত ওই গানের কথাগুলো এই ২০২০ সালেও খুব নিবিরভাবে উপলব্ধি করেছেন বলেই নিজের একটি ছবির সঙ্গে ইনস্টাগ্রামে শেয়ার করেছেন।

ফারিয়া ফেস্ববুকে লিখেছিলেন, বিচ্ছেদের পর তাঁরা বন্ধু হয়ে থাকতে চান। তাঁর এ সিদ্ধান্তেরও সমালোচনা করছেন অনেকে। ফারিয়া মনে করেন, ‘মানুষ ব্লেইম গেম, গালিগালাজ, মানুষকে ছোট করতে পছন্দ করে। বিচ্ছেদের পর কোনো সম্পর্ক কেন সুন্দর হবে না? কেন আমরা বলতে পারব না বিচ্ছেদের পরও আমরা বন্ধু।’ ফারিয়া বলেন, ‘প্লিজ মাথায় নেন, শেষটাও সুন্দর হতে পারে। শেষটাও সম্মান দিয়ে, ভালোবাসার সঙ্গে শেষ হতে পারে। আমার কষ্ট, আমার অভিমান—সব আমার কাছেই থাক।’

কিন্তু ফারিয়া শেষ পর্যন্ত ফেসবুক থেকে সরে গেছেন। ইনগ্রামে হৃদয় নিংড়ে আসা দুঃখ, খুব সহজ করেই প্রকাশ্য করলেন- 'আলো আসতে দাও, সুর্য কিরণ আসতে দাও...'

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা