kalerkantho

শনিবার । ৯ মাঘ ১৪২৭। ২৩ জানুয়ারি ২০২১। ৯ জমাদিউস সানি ১৪৪২

বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে শায়িত হবেন ওস্তাদ শাহাদাত হোসেন খান

অনলাইন ডেস্ক   

২৯ নভেম্বর, ২০২০ ১১:০৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে শায়িত হবেন ওস্তাদ শাহাদাত হোসেন খান

সদ্য প্রয়াত বরেণ্য সংগীতজ্ঞ ও যন্ত্রসংগীত শিল্পী (সরোদ) ওস্তাদ শাহাদাত হোসেন খান। ছবি: সংগৃহীত

বরেণ্য সংগীতজ্ঞ ও যন্ত্রসংগীত শিল্পী (সরোদ) ওস্তাদ শাহাদাত হোসেন খানকে মিরপুর বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে শায়িত করা হবে। রবিবার (২৯ নভেম্বর) বাদ জোহর তাঁর দাফন প্রক্রিয়া সম্পন্ন হবে।

বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন তাঁর ভাতিজা তানসেন খান। তিনি বলেন, ‘প্রথমে সিদ্ধান্ত হয়েছিল বনানী কবরস্থানে শায়িত করার। এরপর পশ্চিম রামপুরায়। সব শেষে বাদ জোহর মিরপুর বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে তাঁর দাফন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করার সিদ্ধান্ত হয়েছে।’

করোনায় আক্রান্ত হয়ে শনিবার (২৮ নভেম্বর) রাত সাড়ে ৮টায় উত্তরার ক্রিসেন্ট হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন ওস্তাদ শাহাদাত হোসেন খান। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৬২ বছর। স্ত্রী, দুই কন্যাসহ অসংখ্য শিক্ষার্থী, ভক্ত-অনুরাগী রেখে গেছেন ওস্তাদ শাহাদাত হোসেন খান৷

শাহাদাত হোসেন খান ১৯৫৮ সালের ৬ জুলাই তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তানের (বর্তমান বাংলাদেশ) ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার এক সমৃদ্ধ সংগীত পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর পিতা ওস্তাদ আবেদ হোসেন খান একজন প্রখ্যাত উচ্চাঙ্গ সংগীতশিল্পী ও সেতারবাদক। তাঁর দাদা ওস্তাদ আয়েত আলী খাঁ উপমহাদেশের প্রখ্যাত সংগীতজ্ঞ এবং ওস্তাদ আলাউদ্দিন খাঁর ছোট ভাই। তাঁর দুই চাচা প্রখ্যাত সংগীতজ্ঞ বাহাদুর হোসেন খান এবং সংগীতজ্ঞ-গবেষক ও লেখক মোবারক হোসেন খান।

১৯৭২ সালে তিঁনি ও তাঁর চাচা বাহাদুর হোসেন খান যুগলবন্দি হয়ে আলাউদ্দিন সংগীত সম্মেলনে সরোদ পরিবেশন করে প্রশংসিত হন। সংগীতে অবদানের জন্য ১৯৯৪ সালে বাংলাদেশ সরকার তাঁকে দেশের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ বেসামরিক সম্মাননা একুশে পদকে ভূষিত করে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা