kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৪ মাঘ ১৪২৭। ২৮ জানুয়ারি ২০২১। ১৪ জমাদিউস সানি ১৪৪২

সুজাতাকে আইসিইউ থেকে কেবিনে নেওয়া হয়েছে

অনলাইন ডেস্ক   

২৫ নভেম্বর, ২০২০ ১৫:১৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সুজাতাকে আইসিইউ থেকে কেবিনে নেওয়া হয়েছে

ঢাকাই ছবির কিংবদন্তি চলচ্চিত্র অভিনেত্রী সুজাতা গুরুতর অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। মঙ্গলবার  রাতে হঠাৎ করে হৃদরোগে আক্রান্ত হলে তাঁকে রাজধানীর ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অবস্থা গুরুতর হওয়ায় রাতেই আইসিইউতে নেওয়া হয় তাঁকে।

চিত্র সম্পাদক আবু মুসা দেবু হাসপাতালে সুজাতার দেখভালের দায়িত্বে রয়েছেন। তিনি বলেন, মঙ্গলবার বাসায় অবস্থা গুরুতর হলে সুজাতা ম্যাডামকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। রাতে তাকে আইসিইউতে রাখেন চিকিৎকরা। সকাল ১১টার দিকে অবস্থা একটু উন্নতি হলে ডাক্তাররা তাকে কেবিনে স্থানান্তর করেন। এখন কিছুটা উন্নতির দিকে।

ষাটের দশকে চলচ্চিত্রের অন্যতম জনপ্রিয় নায়িকা সুজাতা। ১৯৬৩ সালে সালাউদ্দিন পরিচালিত ‘ধারাপাত’ ছবির মাধ্যমে চলচ্চিত্রে অভিষেক ঘটে তাঁর। শুরুতে তাঁর নাম ছিল তন্দ্রা মজুমদার। ধারাপাতের পরিচালক তাঁর নাম পরির্তন করে রাখেন সুজাতা। বর্তমানে তিনি সুজাতা নামেই পরিচিত।

সুজাতা অভিনীত  ‘রূপবান’ তুমুল জনপ্রিয়তা পায় এই ছবিটিতে মাত্র ১২ বছর বয়সে নায়িকার চরিত্রে অভিনয় করে দর্শকের মন জয় করে নেন। 
১৯৭৮ সাল পর্যন্ত অসংখ্য হিট চলচ্চিত্রের নায়িকা সুজাতা। মাঝে এক যুগেরও বেশি সময় দূরে ছিলেন বড় পর্দা থেকে। তবে ফের প্রাণের টানে ফিরেও এসেছেন অভিনয়ে। নায়িকা হিসেবে সুজাতার উল্লেখযোগ্য চলচ্চিত্রের মধ্যে রয়েছে- ‘রূপবান’, ‘ডাক বাবু’, ‘জরিনা সুন্দরী’, ‘অপরাজেয়’, ‘আগুন নিয়ে খেলা’, ‘কাঞ্চনমালা’, ‘আলিবাবা’, ‘বেঈমান’, ‘অনেক প্রেম অনেক জ্বালা’, ‘প্রতিনিধি’ ইত্যাদি।  

১৯৭৭ সালে সুজাতা নায়িকা হিসেবে সর্বশেষ রহিম নেওয়াজ পরিচালিত ‘রাতের কলি’ চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন।  ১৯৮৮ সালে ‘অর্পণ' সিনেমা পরিচালনা করে পরিচালক হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেন সুজাতা।  ছোট পর্দায়ও অভিনয় করতে দেখা যায় তাঁকে। অভিনয়ের স্বীকৃতিস্বরূপ পেয়েছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে আজীবন সম্মাননা।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা