kalerkantho

শুক্রবার। ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৭। ৪ ডিসেম্বর ২০২০। ১৮ রবিউস সানি ১৪৪২

ধর্মের টানে বলিউড ছাড়া সানা বিয়ে করেছেন মুফতিকে

অনলাইন ডেস্ক   

২২ নভেম্বর, ২০২০ ১১:৫৩ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



ধর্মের টানে বলিউড ছাড়া সানা বিয়ে করেছেন মুফতিকে

বলিউড অভিনেত্রী সানা খান ধর্মের টানে গত অক্টোবরে অভিনয় ছাড়ার ঘোষণা দিয়েছিলেন। ধর্মকর্মে মন বসাতে বলিউডের রঙিন দুনিয়া ত্যাগ করার ঘোষণা দিয়ে বলিউডজুড়ে হৈচৈ ফেলে দেন এই অভিনেত্রী। 

এবার তিনি আলোচনায় এলেন গুজরাটের মাওলানা মুফতি আনাসকে বিয়ে করে। ভারতীয় বিভিন্ন গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে তাঁর বিয়ের তথ্য জানানো হয়েছে।

শুক্রবার সানার বিয়ে হয়েছে। বিয়ের অনুষ্ঠানের পর কেক কেটে উদযাপনও করতে দেখা যায় নবদম্পতিকে। সানার স্বামী মুফতি আনাস সম্পর্কে জানা গেছে, তিনি গুজরাটের একজন বুজুর্গ আলেম।

উল্লেখ্য, মডেলিং দিয়ে কর্মজীবন শুরু করেন সানা। সানা প্রায় পাঁচটি ভাষায় ১৪টি চলচ্চিত্রে এবং ৫০টির মতো বিজ্ঞাপনে কাজ করেছেন। তবে তিনি দর্শকের কাছে সবচেয়ে বেশি আলোচিত বিগ বস সিজন-৬ এবং বলিউড সুপারস্টার সালমান খানের 'জয় হো' সিনেমায় অভিনয়ের মাধ্যমে।

পৃথিবীতে মানুষের আসা মানেই কি অর্থ ও খ্যাতির পেছনে দৌড়ানো? সানা তাঁর কিছুদিন আগে ইনস্টাগ্রামে পোস্টে লিখেছিলেন, জীবনের এক গুরুত্বপূর্ণ সন্ধিক্ষণে দাঁড়িয়ে আমি আপনাদের সঙ্গে কথা বলছি। বিনোদন জগতে আমি বহু বছর ধরে ছিলাম। এই সময়ে আমি আল্লাহর দয়ায় বহু খ্যাতি, অর্থ ও ভক্তদের থেকে ভালোবাসা পেয়েছি। যার জন্য আমি চিরকৃতজ্ঞ থাকব। কিন্তু কিছুদিন ধরেই একটা জিনিস ভাবছি, পৃথিবীতে মানুষের আসা কি অর্থ ও খ্যাতির পেছনে দৌড়ানোর জন্য? দরিদ্র ও অসহায়দের জন্য কাজ করা কি কর্তব্য নয়? একজনের কি ভাবা উচিত নয় যে তিনি যেকোনো মুহূর্তে মারা যেতে পারেন? এই প্রশ্নের উত্তর আমি খুঁজে বেড়াচ্ছি। বিশেষ করে জানতে চাই, মৃত্যুর পরে আমার কী হবে? এসব প্রশ্নই এখন সানার।

সানা সে সময় বলেন, আমার ধর্মের মধ্যে এর উত্তর খুঁজতে যাই। বুঝতে পারি, এই পৃথিবীতে জন্ম নিয়ে মৃত্যু-পরবর্তী জীবনের উন্নতির জন্য কাজ করা দরকার। সৃষ্টিকর্তার নির্দেশমতো যদি একজন ভৃত্য তার জীবনযাপন করে তাহলেই ভালো। সব সময় অর্থ ও খ্যাতির পেছনে ছুটলেই সেটা হয় না। বরং পাপের রাস্তা ছেড়ে সৃষ্টিকর্তার দেখানো পথেই হাঁটা উচিত। তাই আজ ঘোষণা করছি, আজ থেকে বিনোদন জগৎ থেকে চিরকালের মতো বিদায় নিলাম। আজ থেকে মানবিকতার জন্য কাজ করব এবং সৃষ্টিকর্তার নির্দেশ মেনে চলব। প্রত্যেক ভাই-বোনকে আল্লাহর কাছে আমার জন্য প্রার্থনা করতে বলছি, যাতে আমায় এই কাজে তিনি অনুমতি দেন এবং গ্রহণ করেন। আমার সব ভাই-বোনকে অনুরোধ করব, তাঁরা যেন আমার সঙ্গে বিনোদন জগৎ নিয়ে আর কোনো আলোচনা না করেন। ধন্যবাদ।  

সানার এই পোস্ট মুহূর্তে ভাইরাল হয় ইন্টারনেট দুনিয়ায়। অনেকেই তাঁর এই হঠাৎ অন্তরালে চলে যাওয়ায় বিস্ময় প্রকাশ করেন। তবে তাঁর ব্যক্তিগত এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়ে শুভ কামনাও করেন তাঁর ভক্ত-অনুরাগীরা।

এর মধ্যেই নভেম্বরে সানার বিয়ের খবর জানা গেল।  

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা