kalerkantho

বুধবার । ৫ কার্তিক ১৪২৭। ২১ অক্টোবর ২০২০। ৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

প্রস্তুতি ম্যাচে মিম

অনলাইন ডেস্ক   

২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ০৯:৫৬ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



প্রস্তুতি ম্যাচে মিম

ছবি : আবু সুফিয়ান নিলাভ

সিনেমার আগে টেলিছবির শুটিং করে প্রস্তুতি সারলেন বিদ্যা সিনহা মিম। সে প্রসঙ্গে তো বলেছেনই, বলেছেন ‘প্রেমের গুজব’ নিয়েও। লিখেছেন মীর রাকিব হাসান

এই কিছুদিন আগেও সাফ জানিয়ে দিয়েছিলেন, করোনা পুরোপুরি বিদায় না হলে শুটিং নয়। বিগত ছয় মাসে বেশ কিছু সিনেমার প্রস্তাব পেলেও নিজের সিদ্ধান্তে ছিলেন অনড়। অবশেষে সিদ্ধান্ত বদলালেন। ছয় মাস পর ২১ সেপ্টেম্বর শুটিংয়ে নামলেন। সিনেমা নয়, প্রথমেই বেছে নিলেন টেলিফিল্ম ‘হ্যালো বেবি’। পরিচালক কাজল আরেফিন অমি তাঁকে শুটিংয়ে নামাতে পারলেন। মিমকে রাজি করানোর ক্ষেত্রে অবশ্য মুখ্য ভূমিকা রাখলেন তাহসান। এই গায়ক-অভিনেতার সঙ্গে ভালো সম্পর্ক মিমের। ঘরবন্দি সময়ের শুরুর দিকে মিমের অনুরোধে তাঁর ইউটিউব চ্যানেলের জন্য শর্টফিল্ম ‘কানেকশন’-এ অভিনয় করেছেন তাহসান, হাজির হয়েছেন মিমের লাইভ শোতেও। ঈদুল আজহায় প্রচারিত হয়েছিল এই জুটির ‘হঠাৎ বিয়ে’। লকডাউনের আগেই শুটিং করেছিলেন নাটকটির। আর লকডাউনের পর তাহসানের সঙ্গেই ফিরলেন। তাহসানের সঙ্গে একের পর এক কাজ করছেন, স্বভাবতই মিডিয়ায় তুমুল কানাঘুষা, এই জুটির মধ্যে বিশেষ কোনো সম্পর্ক চলছে না তো! এই প্রসঙ্গ ওঠায় কিছুটা বিরক্ত হলেন মিম। গুজবটাকে একেবারে ফুঁ মেরে উড়িয়ে দিলেন, ‘লোকে কত কিছুই বলবে! সব আমলে নিলে তো কাজ করতে পারব না। পরিচালকরাই আমাদের নিয়ে জুটি করেন। আর তাহসান ভাই এখনকার অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেতা। তাঁর সঙ্গে কাজের প্রস্তাব পাওয়া এবং কাজ করাটাকে আমি স্বাভাবিকভাবেই দেখছি।’

সদ্য বিবাহিত এক দম্পতির গল্প ‘হ্যালো বেবি’। সামনের ভালোবাসা দিবসে প্রচারিত হবে এটি। টাঙ্গাইলে হয়েছে টেলিছবিটির শুটিং। এই টেলিছবিটাকে মিম প্রস্তুতি ম্যাচ হিসেবেই দেখছেন, ‘ঘরবন্দি সময়ে ঘরে বসেই ইউটিউবের জন্য কিছু কাজ করলাম। কিন্তু শুটিং ভীষণ মিস করছিলাম। মা-বাবার স্বাস্থ্যঝুঁকির কথা চিন্তা করে এত দিন কোনো প্রস্তাবেই সাড়া দিইনি। এখন তো সব কিছুই প্রায় স্বাভাবিক। বলতে পারেন আউটডোরে এই টেলিছবির শুটিং করাটাকে প্রস্তুতি ম্যাচ হিসেবে ধরে নিয়েছি। শুটিং অভিজ্ঞতাও চমৎকার। এখানে একটা রিসোর্টে শুটিং হচ্ছে। ইউনিটের সদস্য ছাড়া বাইরের কেউই নেই। তবু যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মেনেই কাজটা করছি আমরা।’

প্রস্তুতি ম্যাচটা খেলছেন সিনেমার জন্য, কারণ অক্টোবরেই সিনেমার শুটিং শুরু করবেন। অসমাপ্ত ছবি ‘ইত্তেফাক’ নয়, বরং নতুন ছবি দিয়ে ফেরার সম্ভাবনা দেখছেন। মিম বলেন, ‘দুটি সিনেমার কথা প্রায় চূড়ান্ত। এই টেলিছবির কাজটা শেষ করে ঢাকা ফিরেই সিনেমা দুটির নাম ঘোষণা করতে চাচ্ছি। দেশীয় নামি পরিচালকের ছবি। আমার সঙ্গে থাকবেন বড় তারকা। টানা শুটিং করব, যেন নতুন বছরের শুরুর দিকেই ছবি দুটি মুক্তি পেতে পারে।’

মিম অভিনীত রায়হান রাফির ‘পরাণ’ মুক্তি পেতে পারে শিগগিরই। ছবিটি নিয়ে ভীষণ আশাবাদী মিম। নিজের ইউটিউব চ্যানেলে ‘মিমস কাস্টোডি’তে জনপ্রিয় তারকাদের হাজির করে বেশ সাড়া ফেলেছেন। এক লাখ গ্রাহকের চ্যানেলটি নিয়ে কী ভাবছেন মিম? ‘অনেক দিন ধরেই নিজের একটা চ্যানেল খোলার ইচ্ছা ছিল। ঘরবন্দি সময়টাকে কাজে লাগানোর চেষ্টা করেছি এই চ্যানেলের মাধ্যমে। এখন আবার শুটিং শুরু করেছি। আপাতত ইউটিউব থেকে বিরতি নেব। তারপর আবার কনটেন্ট বানাব।’ বললেন মিম।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা