kalerkantho

বুধবার । ২৮ শ্রাবণ ১৪২৭। ১২ আগস্ট ২০২০ । ২১ জিলহজ ১৪৪১

জায়েদ খানকে বয়কটের চিন্তা ভাবনা

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৫ জুলাই, ২০২০ ০২:৫৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



জায়েদ খানকে বয়কটের চিন্তা ভাবনা

চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খানকে বয়কট ঘোষণা করার কথা ভাবছে চলচ্চিত্রসংশ্লিষ্ট প্রযোজক সমিতিসহ ১৭টি সংগঠন। চলচ্চিত্রের স্বার্থবিরোধী কর্মকাণ্ড ও অনিয়মের অভিযোগে সংগঠনগুলো এই সিদ্ধান্ত নিতে যাচ্ছে।

বুধবার বিকাল ৪টায় প্রযোজক সমিতির কার্যালয়ে ১৭ সংগঠনের প্রতিনিধিদের নিয়ে এক বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, যেখানে উপস্থিত ছিলেন না বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির কোনো সদস্য। 

জানা গেছে, প্রযোজক-পরিবেশক সমিতি জায়েদ খানের বিরুদ্ধে ‘সংগঠনের স্বার্থবিরোধী কর্মকাণ্ডের’ অভিযোগ পেয়েছে- এমনটাই বলছে প্রযোজক সমিতির নেতৃবৃন্দ। চলচ্চিত্র প্রযোজক-পরিবেশক সমিতির পক্ষ থেকে সোমবার (১৩ জুলাই) তার বিরুদ্ধে পাঠানো হয় কারণ দর্শানোর নোটিশ। জায়েদ খানের বক্তব্য সন্তোষজনক না পাওয়া পর্যন্ত তাকে বয়কট করা হবে এবং চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সভাপতি মিশা সওদাগরকেও সাবধান করে চিঠি দেওয়া হবে।  

এ প্রসঙ্গে পরিচালক সমিতির সভাপতি মুশফিকুর রহমান গুলজার বলেন, সবার জন্য প্রযোজক সমিতি একটি নীতিমালা করেছে। সেটা যারা মানবে না, তাদের বয়কট করা হবে। শুধু জায়েদ খান নয়, এটা সবার জন্যও প্রযোজ্য। বুধবার (১৫ জুলাই) দুপুর ১টায় আমরা একটি সংবাদ সম্মেলন করছি। এরপর এ বিষয়ে সবাইকে বিস্তারিত জানাতে পারবো।

এদিকে ১৩ জুলাই জায়েদ খানকে পাঠানো নোটিশে উল্লেখ করা হয়, চলচ্চিত্র নির্মাণে শৃঙ্খলা আনতে ও নির্মাণ ব্যয় কমাতে গত অক্টোবরে একটি নীতিমালা প্রণয়ন করেছে সমিতি। এটি বাস্তবায়ন হলে চলচ্চিত্র নির্মাণের খরচ ন্যূনতম ১৫ লাখ টাকা কমে যাবে। কিন্তু এই কাজে অসহযোগিতা করতে জায়েদ খান বিভিন্ন শিল্পীকে উৎসাহিত করছেন। 

এমনকি মোবাইলে এসএমএস পাঠিয়ে তিনি এটা করেছেন। একই অভিযোগে চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সভাপতি ও অভিনেতা মিশা সওদাগরকে সতর্ক করে ১৫ জুলাই চিঠি পাঠানো হবে বলে জানিয়েছে প্রযোজক ও পরিচালক সংগঠনের নেতারা। 

তবে জায়েদ খান কালের কণ্ঠকে বলছেন, চলচ্চিত্রশিল্পী সমিতির কার্যকরী কমিটি এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এখানে আমাকে বয়কট করার চিন্তা ভাবনা আসছে কীভাবে বুঝতে পারছি না।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা